X
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২
১৬ আষাঢ় ১৪২৯

বায়তুল মোকাররমের খতিব নিয়োগে সময় নেবে সরকার?

আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১৬:০৪

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের খতিব নিয়োগে আরও সময় নিতে পারে সরকার। তবে ঠিক কী কারণে সময় নেবে, তা স্পষ্ট করতে পারেননি সংশ্লিষ্টরা। সিনিয়র আলেম ও প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে যুক্ত কয়েকজন বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, জাতীয় মসজিদের খতিব পদের জন্য কয়েকজন আলেমের নাম আলোচনায় রয়েছে। এদের প্রত্যেকেই সরকারঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

সংশ্লিষ্ট আলেমরা মনে করছেন, খতিব নিয়োগে আরও সময় নিতে পারে সরকার। বিশেষ করে হেফাজতসহ ধর্মভিত্তিক দলগুলোকে সমন্বিতভাবে রাখার জন্য যে আলেমকেই যোগ্য মনে করা হবে, তার দিকেই এ পদে নিয়োগের পাল্লা ভারী হতে পারে।

গত কয়েকদিনে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন আলেম ও ধর্মভিত্তিক দলগুলোর সিনিয়র একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, খতিব পদের জন্য গুলশান আজাদ মসজিদের খতিব ও আল হাইআ’তুল উলইয়া লিল কওমিয়্যাহ’র চেয়ারম্যান মাওলানা মাহমুদুল হাসান, শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গভর্নর মুফতি রুহুল আমীন, মাওলানা কফিল উদ্দিন সরকারের নাম আলোচনায় এসেছে। এর বাইরেও আরও অনেকের নাম এসেছে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাবেক গর্ভনর মিছবাহুর রহমান চৌধুরী মনে করেন, বায়তুল মোকাররম মসজিদটি পৃথিবীর গুরুত্বপূর্ণ ১৫টি জাতীয় মসজিদের মধ্যে অন্যতম। এই প্রতিষ্ঠানের খতিব হিসেবে একজন পরিচ্ছন্ন, ‘স্পটলেস’ জ্ঞানী আলেম প্রয়োজন। তার মন্তব্য, ‘এমন একজনকে যেন এখানে নিয়োগ দেওয়া হয়, যিনি কোনও দিন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ছিলেন না, দরবারি বা দলীয় আলেম নন। বিতর্কের ঊর্ধ্বে এমন একজনকে বায়তুল মোকাররমের খতিব নিয়োগ দেওয়া হোক। প্রয়োজনে এতে সময় লাগলে আরও সময় নেবে সরকার।’

দীর্ঘদিন অসুস্থ অবস্থায় শায়িত থেকে গত ৩ ফেব্রুয়ারি বিকালে ইন্তেকাল করেন বায়তুল মোকাররমের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন। তার মৃত্যুর মধ্য দিয়ে বায়তুল মোকাররমের চার জন খতিব গত হয়েছেন। ২০০৯ সালের ২ জানুয়ারি মাওলানা সালাহউদ্দিনকে খতিব হিসেবে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে নিয়োগ দেয় ধর্ম মন্ত্রণালয়। এর আগে তিনি মহাখালীর গাউসুল আজম মসজিদের খতিবের দায়িত্ব পালন করেন। তারও আগে তিনি ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ছিলেন।

ইফাবা সূত্র জানায়, বায়তুল মোকাররমের ইমাম নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হলেও খতিব নিয়োগ করে ধর্ম মন্ত্রণালয়। বিশেষত, সরকারের উচ্চমহলের সরাসরি ভূমিকার মধ্য দিয়েই খতিব নিয়োগ দেওয়া হয়। এছাড়া, সাবেক খতিব মাওলানা উবায়দুল হকের জীবিতকালে হাইকোর্ট এ পদটিকে ‘আমৃত্যু’ হিসেবে রায় দেন। সদ্য প্রয়াত সালাহউদ্দিন ২০১৫ সাল থেকেই নামাজ পড়ানো থেকে বিরত ছিলেন। ওই সময় থেকেই তার শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকায় পারিবারিকভাবে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাবেক প্রয়াত মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালকে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

সূত্র বলছে, ২০১৬ সাল থেকে খতিব পদে নিয়োগ পেতে আলেমদের চেষ্টা ছিল গোপনে। ২০১৫ সালের শেষদিকে সরকারের পক্ষ থেকে হেফাজতের তৎকালীন নেতৃত্বকে খতিব পদের জন্য নাম দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।  ওই সময় হেফাজত কয়েকজন আলেমের নাম প্রস্তাব করে। সেই তালিকায় মাওলানা সাজিদুর রহমান, হবিগঞ্জের মাওলানা ইমদাদুল হক, মাওলানা আনোয়ার শাহ (প্রয়াত), চট্টগ্রামের এম ই এস কলেজের শিক্ষক ড. আফম খালিদ হোসাইনের নাম ছিল বলে হেফাজতের তৎকালীন একনেতা বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছিলেন। এছাড়া প্রয়াত ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান ময়মনসিংহ এলাকার একজন খ্যাতনামা আলেমকে, প্রয়াত মহাপরিচালক সামীম আফজাল আরেকজন আলেমকে খতিব পদে নিয়োগের জন্য নানারকম চেষ্টা-তদ্বির করেছিলেন। যদিও ওই সময় সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে খতিব নিয়োগে কোনও আগ্রহ দেখানো হয়নি।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গভর্নর মুফতি রুহুল আমীন বলেন, ‘আমাদের গভর্নিং বডির এখনও কোনও বৈঠক হয়নি। এ বিষয়টি নিয়ে এখনও আলোচনা হয়নি। সর্বশেষ যিনি দায়িত্বে ছিলেন, তিনি কিছুদিন হলো ইন্তেকাল করেছেন। উনি জীবিত অবস্থাতেই জোড়াতালি দিয়ে চলেছে। এখনও সেভাবেই চলছে।’

আপনার নামও আলোচনায় এসেছে, এমন প্রশ্নে রুহুল আমীন বলেন, ‘এটা মানুষের ভালোবাসা, আল্লাহর কাছে কবুলিয়্যাতের বিষয়। আসলে এ বিষয়গুলো এখনও আলোচনাতেই নেই।’

সিনিয়র একাধিক আলেম ও দায়িত্বশীলরা বলছেন, আগামী দিনে দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ‘খতিব’ নিয়োগ হতে পারে। এক্ষেত্রে ধর্মভিত্তিক দলগুলোকে সমন্বয় করে যাকে উপযুক্ত মনে করা হবে, এমন ব্যক্তিকেই এ দায়িত্বে দেখা যেতে পারে। তবে সরকারের ওপরমহলই মূলত এ পদের দায়িত্বশীলকে নির্ধারণ করবেন, এমনটিও জানাচ্ছেন একাধিক সিনিয়র আলেম।

এ বিষয়ে শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব মাওলানা ফরীদউদ্দীন মাসঊদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এখনও আমার সঙ্গে এ বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে কেউ আলাপ করেনি। মনে হচ্ছে, সরকার তাড়াহুড়ো করবে না। বাংলাদেশে এসব সিদ্ধান্ত নেন একমাত্র  প্রধানমন্ত্রী। উনার কাছে কী সিদ্ধান্ত তিনি নিজে জানেন, অন্য কেউ জানে না। কথা উঠতেছে, কিন্তু এসব অর্থবহ না।’

জানতে চাইলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব মোহাম্মদ আবদুল কাদের শেখ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বায়তুল মোকাররমের খতিব নিয়োগ সরকারের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করে।  এ বিষয়ে এখনও কোনও তথ্য আমাদের কাছে নেই।’

ছবি: চৌধুরী আকবর হোসেন

/এপিএইচ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বিপৎসীমার ওপরে পানি, বেড়েছে ভাঙন
বিপৎসীমার ওপরে পানি, বেড়েছে ভাঙন
ভিডিওর পর ছাড়ার হুমকি, হাতিয়ে নিতো মোটা অঙ্কের টাকা
ভিডিওর পর ছাড়ার হুমকি, হাতিয়ে নিতো মোটা অঙ্কের টাকা
নির্ধারিত সময়ের আগেই পদ্মা সেতুর টাকা উঠে আসবে: প্রধানমন্ত্রী
নির্ধারিত সময়ের আগেই পদ্মা সেতুর টাকা উঠে আসবে: প্রধানমন্ত্রী
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কী মনিটরিং করে ইউজিসি, প্রশ্ন জাপা এমপির
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কী মনিটরিং করে ইউজিসি, প্রশ্ন জাপা এমপির
এ বিভাগের সর্বশেষ
করোনা: মসজিদে প্রবেশে বিধিনিষেধ জারি
করোনা: মসজিদে প্রবেশে বিধিনিষেধ জারি
ইন্টারন্যাশনাল আর্কিটেকচার অ্যাওয়ার্ড জিতলো দ্য গ্রেট মস্ক অব আলজিয়ার্স
ইন্টারন্যাশনাল আর্কিটেকচার অ্যাওয়ার্ড জিতলো দ্য গ্রেট মস্ক অব আলজিয়ার্স
নতুন সাজে খুলতে যাচ্ছে উপমহাদেশের প্রথম মসজিদ
নতুন সাজে খুলতে যাচ্ছে উপমহাদেশের প্রথম মসজিদ
১০ তলা হচ্ছে সোবহানবাগ মসজিদ
১০ তলা হচ্ছে সোবহানবাগ মসজিদ
মসজিদটির সংস্কার হয়েছিল ‘অদৃশ্য আদেশে’
বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদমসজিদটির সংস্কার হয়েছিল ‘অদৃশ্য আদেশে’