X
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২
১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
কেরানীগঞ্জে আগুনে ৬ জনের মৃত্যু

বাড়ি এখন সুনসান নীরব, বাকরুদ্ধ ছালমা বেগমও

তোফায়েল হোছাইন
১১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:০০আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:০৪

দুই সন্তানের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে পাড়ি জমিয়েছিলেন ছালমা আক্তার। সেখান থেকেই দুঃসংবাদ পান, বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এরপর ছুটে আসেন দেশে। কিন্তু প্রাণে রক্ষা পায়নি দুই ছেলে। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে তাদের।

শুধু দুই ছেলেই নয়, ছালমা বেগম একে একে হারিয়েছেন মা, বোন, বোনের মেয়ে ও নিজের ফুফুকে। সবাইকে হারিয়ে এখন পাগলপ্রায় এই চল্লিশোর্ধ্ব এই নারী। একেবারে নিশ্চুপ সময় কাটে তার। স্বজনরা কোনোরকম সান্ত্বনা দিয়ে স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করলেও তিনি থাকেন চুপচাপ। সম্প্রতি কথা হয় এই প্রতিবেদকের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আমার দুই সন্তান, আল্লাহ তাদের নিয়ে গেছে। আমার তো সব শেষ, এখন আমার আর কিছু নাই।’

গত ৩০ আগস্ট ভোরে কেরানীগঞ্জের জিনজিরা ইউনিয়নের মান্দাইল জেলেপাড়া এলাকার একটি বাড়িতে গ্যাসের চুলার আগুন বিস্ফোরণ হয়ে দগ্ধ হন একই পরিবারের শিশুসহ ছয় জন। দগ্ধদের মধ্যে ঘটনার দিন বিকালে ছালমা বেগমের ছোটবোন সোনিয়া বেগমের ৩ বছরের মেয়ে মরিয়ম মারা যায়। এরপর ২ সেপ্টেম্বর দুপুরে ছালমা বেগমের বড় ছেলে শাহাদাত হোসেন (২০) ও সন্ধ্যায় মা মোছা. বেগম (৬০) মারা যান।

এর তিনদিন পরে গত ৫ সেপ্টেম্বর ভোরে ছালমা বেগমের ফুফু পান্না বেগম (৫০) মারা যান। পরদিন ৬ সেপ্টেম্বর ভোর সাড়ে ৩টার দিকে মারা যান ছালমার ছোটবোন সোনিয়া বেগম (২৬)। আর সবশেষ ৮ সেপ্টেম্বর সকালে ছালমা বেগমের ছোট ছেলে ইয়াছিনের (১২) মৃত্যু হয়।

সম্প্রতি বাড়িটিতে গিয়ে দেখা যায়, দুই তলা বাড়িটির নিচ তলায় তিন ইউনিটের একটি ইউনিটে থাকতো দগ্ধ পরিবারটি। ঘটনার পর থেকে সেই ইউনিটটি তালাবদ্ধ অবস্থায় রয়েছে।

বাড়ি এখন সুনসান নীরব, বাকরুদ্ধ ছালমা বেগমও

আশপাশে ভাড়াটিয়াদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এ বাড়িতে মোছা. বেগম (৬০) মানুষদের তাবিজ, পানি পড়া দেওয়াসহ বিভিন্ন আধ্যাত্মিক কাজ করতেন। হয়তো এ ধরনের কিছু করতে গিয়েই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। গ্যাসের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হলে বাসায় আরও অনেক বেশি ক্ষয়ক্ষতি হতো। বাসায় সে ধরনের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

তবে মারা যাওয়া সোনিয়া বেগমের স্বামী ওসমান গণি ঘটনার দিনের বর্ণনা দিয়ে ওসমান গণি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সেদিন সকালে শাহাদাত হোসেন তার নানি বেগমকে সকালে নাস্তা বানানোর জন্য বলে বাথরুমে চলে যান। এরপর তার নানি নাস্তা বানানোর জন্য গ্যাসের চুলায় দিয়াশালাইয়ের কাঠি দিয়ে আগুন ধরাতে গেলে পুরো রুমে তা ছড়িয়ে পড়ে। পরে ঘরে থাকা সবাই দগ্ধ হন।

স্ত্রী ও ৩ বছরের মেয়ে মরিয়মকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ ট্রাক ড্রাইভার ওসমান গণি। তার সংসারে ছিল স্ত্রী সোনিয়া, ১২ বছরের ছেলে ইমরান ও সাড়ে ৩ বছরের মেয়ে মরিয়ম। ইমরান একটি মাদ্রাসায় পড়ালেখা করে। মা আর বোনকে হারিয়ে সেও স্তব্ধ, নিশ্চুপ।

ওসমান গণি আরও বলেন, ‘ঘটনার দিন রাতে মরিয়মকে নিয়ে তার মা সোনিয়া বেগম তার নানির বাসায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেসময় ইমরান ছিল মাদ্রাসায় ও আমি ছিলাম গাড়িতে। ওই দিন সকালে আমি চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় ফিরছিলাম তখন আমি আগুনের কথা শোনার সাথে সাথে বার্ন ইউনিটে চলে আসি। এরপর তো একে একে সবাইকে হারালাম।

ছোট ছেলে ইমরান বিষয়ে তার বাবা ওসমান গণি বলেন, ইমরান প্রতিদিন সকালে তার মায়ের কবরের পাশে গিয়ে কোরআন পড়ে। সে সারাক্ষণ তার মায়ের কথা চিন্তা করে। মা মারা যাওয়া কথা সে ভুলতে পারে না। সারাক্ষণ চুপচাপ, নিস্তব্ধ থাকে।

ওসমান গণি স্ত্রী সোনিয়া ও সাড়ে তিন বছরের মেয়েকে হারিয়ে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এক নিমিশে আমার সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। ছেলে ছাড়া আমার এখন আর কিছুই নাই। আমি তাদের জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।

/ইউএস/
নৌ শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে অচল খুলনা ও নওয়াপাড়া নদী বন্দর
নৌ শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে অচল খুলনা ও নওয়াপাড়া নদী বন্দর
সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
মেয়র হানিফের জীবন ও কর্ম অনুসরণের আহ্বান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর
মেয়র হানিফের জীবন ও কর্ম অনুসরণের আহ্বান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
সর্বাধিক পঠিত
সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের আলাদা হিসাব দিতে হবে না
সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের আলাদা হিসাব দিতে হবে না
সুইজারল্যান্ডকে বিশ্বকাপে কখনও হারাতে পারেনি ব্রাজিল
সুইজারল্যান্ডকে বিশ্বকাপে কখনও হারাতে পারেনি ব্রাজিল
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ সোমবার
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ সোমবার
ভারতকে বাদ দিয়ে এ অঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে বৈঠক চীনের
ভারতকে বাদ দিয়ে এ অঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে বৈঠক চীনের
বেলজিয়ামকে হারিয়ে দিলো মরক্কো
বেলজিয়ামকে হারিয়ে দিলো মরক্কো