X
শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩
১৩ মাঘ ১৪২৯

শিক্ষার্থীকে মেরে হাসপাতালে পাঠানোর অভিযোগ ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে

ঢাবি প্রতিনিধি
০৯ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৫৪আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৫৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজয় একাত্তর হলের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের এক কর্মীর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে হলের ১১০০১ নম্বর রুমে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মীর নাম মোনাফ প্রান্ত। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং হল ছাত্রলীগের সদস্য ও হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু ইউনুসের অনুসারী। অন্যদিকে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর নাম রাসেল মাহমুদ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। 

প্রত্যক্ষদর্শী একাধিক শিক্ষার্থী জানান, হল ছাত্রলীগের কমিটি হওয়ার পর এদিন এলাকাভিত্তিক গ্রুপ আলাদা হয়ে যাচ্ছিল। ফলে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন রুমে নতুন করে শিফট করা হয়। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী যে রুমে থাকতেন, সেই রুমে শিফট হন অভিযুক্ত প্রান্ত। রাত সাড়ে ৮টায় রুমে সবাই না থাকার কারণে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী কিছুটা দেরিতে রুম থেকে বের হতে চেয়েছিলেন, যাতে রুমের সবাই এলে একসঙ্গে বের হতে পারেন। ওই রুমের সবাইকে আলাদা রুমে শিফট করা হয়। ফলে সবাই নিজেদের নতুন রুমে চলে যায় কিন্তু তিন শিক্ষার্থী রুম ছাড়তে একটু দেরি করেন। তাদের মাঝে রাসেলও একজন।

শিক্ষার্থীরা আরও জানান, প্রান্ত রুমে এসে রাসেলের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে হাতের কাছে রড পেয়ে তা দিয়ে রাসেলকে মারধর করেন ও মুখে থাপ্পড় দেয়। মারধরের কারণে রাসেল কোমরে আঘাত পান। পরে ঢাকা মেডিক্যাল গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।

এ বিষয়ে রাসেল মাহমুদ বলেন, ‌‌‌‌‘আমাদের রুম পরিবর্তন চলছে। তখন আমি রিডিং রুমে ছিলাম। রুমে এসে দেখি প্রান্ত (অভিযুক্ত) আমার রুমে শুয়ে আছে। আমি রুমে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে সে বলতেছে, এই এখনও রুম থেকে সব জিনিস নিয়ে যাস নাই কেন? তাড়াতাড়ি নিয়ে যা।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি তখন তাকে একটু দেরিতে বের হওয়ার কথা বলতেই সে আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এরপর রড দিয়ে বেধড়ক মারে। আমি হাত দিয়ে আটকানোর চেষ্টা করি। আমার কোমর, হাত ও পেছনে রড দিয়ে বাড়ি দেয়। পরে বন্ধুরা এসে আমাকে সেভ করে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে আসে।’

শিক্ষার্থীরা জানান, প্রান্ত খুবই উগ্র মেজাজের। প্রায়ই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে ঝগড়ায় লিপ্ত হন। হলের জুনিয়রদেরও মারধর করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

তবে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মী মোনাফ প্রান্ত বলেন, ‘এ রকম কোনও কিছুই হয়নি। রাসেল আমার বন্ধু হয়। রুম নিয়ে জাস্ট একটু তর্কাতর্কি হয়েছে। পরে সিনিয়র ভাইরা এসে সমাধান করে দিছে।’

বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু ইউনুস বলেন, ‘ঘটনাটি দুজনের ব্যক্তিগত বিষয়। তবু বিষয়টি প্রমাণিত হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আমরা সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবো।’

বিজয় একাত্তর হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আবদুল বাছির বলেন, ‘আমাকে বিষয়টি নিয়ে এখন পর্যন্ত কেউ জানায়নি। আমি জেনে যথাযথ ব্যবস্থা নেবো।’

/এনএআর/
সর্বশেষ খবর
সারাদেশে যুব মজলিসের বিক্ষোভ: মামুনুল হকের মুক্তি দাবি
সারাদেশে যুব মজলিসের বিক্ষোভ: মামুনুল হকের মুক্তি দাবি
বিএনপির দুর্নীতি নিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ফেসবুক স্ট্যাটাস
বিএনপির দুর্নীতি নিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ফেসবুক স্ট্যাটাস
ডাকসু নয়, জাতীয় নির্বাচন নিয়ে আগ্রহ বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলোর
ডাকসু নয়, জাতীয় নির্বাচন নিয়ে আগ্রহ বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলোর
চট্টগ্রামকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে সাকিবের বরিশাল
চট্টগ্রামকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে সাকিবের বরিশাল
সর্বাধিক পঠিত
বিয়ে করে বিপাকে অভিনেতা তৌসিফ!
বিয়ে করে বিপাকে অভিনেতা তৌসিফ!
উপহার পেয়েছিলেন মাত্র চারটি, এখন তাদের ছাগল-ভেড়া ৬৩টি
উপহার পেয়েছিলেন মাত্র চারটি, এখন তাদের ছাগল-ভেড়া ৬৩টি
রাজধানীতে বিক্রি হচ্ছে জমজমের পানি
রাজধানীতে বিক্রি হচ্ছে জমজমের পানি
কলকাতার দেয়ালে দেয়ালে তাসনিয়া: ফারিণের পাশে দাঁড়ালেন প্রসেনজিৎ
কলকাতার দেয়ালে দেয়ালে তাসনিয়া: ফারিণের পাশে দাঁড়ালেন প্রসেনজিৎ
প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লা নামেই বিভাগ দিন: এমপি বাহার
প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লা নামেই বিভাগ দিন: এমপি বাহার