X
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দীর্ঘসূত্রতায় মামলা দায়েরের সাল-ই মনে করতে পারেন না প্রসিকিউশন

উদিসা ইসলাম
২০ নভেম্বর ২০২৩, ১২:০০আপডেট : ২০ নভেম্বর ২০২৩, ১২:৫৫

‘তাজরীন ফ্যাশনস লিমিটেড’ অগ্নিকাণ্ডের মামলায় ১১ বছরের মাথায় এসে চলতি বছর মাত্র চারটি শুনানির দিন ধার্য হয়েছে। তবে এতেও সাক্ষীদের হাজির করতে ব্যর্থ হয়েছেন প্রসিকিউশন। পরবর্তী তারিখ ২০২৪ সালের মার্চ মাসে ধার্য হওয়ার পরে ভুক্তভোগীদের প্রশ্ন— সাক্ষী আনতে আর ঠিক কতবার ব্যর্থ হওয়ার পর এ মামলার বিচার শেষ হবে? আর শ্রমিকদের পক্ষে নিয়মিত এ মামলা ফলো করেন এমন অ্যাক্টিভিস্টরা বলছেন, ‘পুরো বিশ্ব যে আগুন ও হত্যাকাণ্ড দেখেছে, সেটার সাক্ষী পাওয়া যায় না বছরের পর বছর; এমনটাও ঘটে।’ দীর্ঘদিন বিলম্ব করার মধ্য দিয়ে মামলাটি থেকে নজর সরিয়ে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছে বলেও তাদের দাবি। এসব নিয়ে প্রসিকিউশনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কত জনকে সমন পাঠিয়ে কত জনকে হাজির করানো গেছে বা মামলার বয়সইবা কত হলো— জবাব মেলেনি।

রাজধানী ঢাকার উপকণ্ঠ আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে তাজরীন ফ্যাশনস গার্মেন্টসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলার এক দশক পেরিয়ে গেলেও কেবল সাক্ষ্যগ্রহণেই থমকে আছে বিচারকাজ। ২০১২ সালের ২৪ নভেম্বর তাজরীন ফ্যাশন লিমিটেডে অগ্নিকাণ্ডে ১১৭ জন পোশাককর্মী নিহত হন। আহত হয়েছিলেন ২ শতাধিক। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় ১০৪ জন সাক্ষীর মধ্যে আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন মাত্র ১১ জন।

আলোচিত এ মামলাটি বর্তমানে ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন। সবশেষ গত ১ নভেম্বর মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণ দিন ধার্য ছিল। ওই দিনও সাক্ষী উপস্থিত না হওয়ায় আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ২৫ মার্চ দিন ধার্য করেছেন। এর আগে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক এ কে এম মহসিনুজ্জামান খান ২০১৩ সালের ২২ ডিসেম্বর আদালতে তাজরীন ফ্যাশনস-এর এমডি দেলোয়ারসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৫ সালের ৩ সেপ্টেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত।

‘২০২৩ সালে মোট চারটি শুনানির দিনে একটিও সাক্ষী হাজির করা সম্ভব হয়নি’, উল্লেখ করে পোশাকশ্রমিক নেতা শহীদুল ইসলাম সবুজ বলেন, ‘আমাদের প্রশ্ন হলো— এভাবে সাক্ষী হাজির করতে পারা যাচ্ছে না অজুহাতে আর কত বিলম্ব করা হবে? স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যে তদন্ত ও সে অনুযায়ী সুপারিশ, যে কয়জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছে, তাদের যে বয়ান; তা দিয়েই বিচার সম্পন্ন করার দিকে যেতে হবে। কেননা, সেগুলোতেই মামলা প্রমাণের যথেষ্ট রসদ আছে।’

তিনি বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, ‘পুরো বিশ্বের চোখের সামনে ঘটে যাওয়া এ নির্মম ঘটনার সাক্ষীর অভাবে বিচার হয়নি ১১বছর ধরে। এটাও আমাদের দেখতে হলো।’

তাজরীনের ভয়াবহ আগুন (ফাইল ছবি)

উল্লেখ্য, তাজরীন অগ্নিকাণ্ড মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে। এই বছরে সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ছয়টি তারিখ (১ জানুয়ারি, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ৩০ মে, ১৯ জুলাই, ৩ সেপ্টেম্বর, এবং ১ নভেম্বর) ধার্য ছিল। একটি তারিখেও রাষ্ট্রপক্ষ সাক্ষী হাজির করতে পারেনি। গত ১ নভেম্বর আগামী শুনানির জন্য ২০২৪ সালের ২৫ মার্চ নির্ধারণ করে দিয়েছেন আদালত।

এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় করা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সরকারি বিভিন্ন সংস্থা থেকে কয়েকটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। প্রতিটি অনুসন্ধানেই মালিক-কর্তৃপক্ষের শ্রমিক নিরাপত্তা বিষয়ে সার্বিক অবহেলার চিত্র তুলে ধরা হয়। এর মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য হল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন। 

এই প্রতিবেদনের সুপারিশমালায় বলা হয়, ‘তাজরিন ফ্যাশন লিমিটেডে সংঘটিত এই মর্মান্তিক মৃত্যুর বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর। যা দেশে এবং বিদেশে ব্যাপকভাবে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। আগুন লাগার বিষয়টি নাশকতা হতে পারে, তবে এত বিপুল মর্মান্তিক মৃত্যুর জন্য মালিকের অমার্জনীয় অবহেলাই দায়ী। এটি সুস্পষ্টভাবে অবহেলাজনিত মৃত্যু ঘটানোর অপরাধ। তাই তাজরীন ফ্যাশন লিমিটেডের মালিককে দণ্ড-বিধির ৩০৪ (ক) ধারায় আইনের আওতায় এনে বিচারে সোপর্দ করার সুপারিশ করা হলো।’

এদিকে শুধু দেশে নয়, আন্তর্জাতিকভাবেই এ মামলা ব্যাপকভাবে আলোচিত। সেই মামলার নিয়মিত তথ্য কিংবা সাক্ষী বিষয়ে কোনও তথ্য দিতে পারে না প্রসিকিউশন। সাক্ষী না আসা প্রসঙ্গে এতো আলোচিত মামলাতেও মামলার দীর্ঘসূত্রতায় প্রসিকিউশন চট করে মনে করতে পারে না অনেক তথ্য। এভাবে কতদিন সাক্ষীর অপেক্ষায় থাকবেন প্রশ্নের জবাবে প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর মো. মুর্শিদ উদ্দীন খাঁন বলেন, ‘আমরা সাক্ষী আনতে সমন দেই, আসে না। কেউ যদি না আসে তাকে তো ধরে আনা যায় না।’ 

একটা বছর একজন সাক্ষীও আনা সম্ভব হবে না, সেটা স্বাভাবিক কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা সমন দেই, আমরা ওয়ারেন্টও দিয়েছি কাউকে কাউকে। এখন না পেলে কী করবো?’

সাক্ষী না পেলে কী করবেন, আর কতদিন পরে সিদ্ধান্ত নেবেন— যে তাদের আর পাওয়া যাবে না; এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘সাক্ষী না পেলে যে কয়জন সাক্ষী দিয়েছেন, তার ওপর ভিত্তি করে রায় দেবেন আদালত।’ এ মামলা কতদিন হলো, জানতে চাইলে তিনি বলতে পারেননি। 

ভয়াবহ আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত তাজরীন ফ্যাশনস (ফাইল ছবি)

কতজন সাক্ষী দিয়েছে প্রশ্নে তিনি বলেন, আদালতে গিয়ে নথি দেখে বলতে পারবেন। এমনকি এই মাসে যে শুনানি ছিল সেখানে আসামি দেলোয়ার এসেছিলেন কিনা, সেটাও তিনি জানেন না।

উল্লেখ্য, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুপারিশের পরে মালিকসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করা হয়। একটি মামলা দায়ের করেন একজন নিখোঁজ শ্রমিকের ভাই। আশুলিয়া থানার পুলিশ বাদী হয়ে অপর মামলাটি দায়ের করে। ২০১৩ সালের ২ ডিসেম্বর ৩২৩/৩২৫/৪৩৬/৩০৪/৩০৪-ক/৪২৭ দ বিধিতে সিএমএম কোর্টে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

/ইউএস/
সম্পর্কিত
সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ
আদম তমিজী হক ও তার দুই স্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
অটোরিকশাচালকদের বিক্ষোভ: গ্রেফতার ৩০ জনের জামিন হয়নি
সর্বশেষ খবর
ভিয়েতনামে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৪
ভিয়েতনামে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৪
চট্টগ্রামে বেড়েছে কোরবানিদাতা, ৩৩ হাজার পশুর ঘাটতি
চট্টগ্রামে বেড়েছে কোরবানিদাতা, ৩৩ হাজার পশুর ঘাটতি
মাভাবিপ্রবি’র ছাত্রীদের মেসে গোপন ভিডিও ধারণের অভিযোগ, শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি
মাভাবিপ্রবি’র ছাত্রীদের মেসে গোপন ভিডিও ধারণের অভিযোগ, শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি
টিভিতে আজকের খেলা (২৪ মে, ২০২৪)
টিভিতে আজকের খেলা (২৪ মে, ২০২৪)
সর্বাধিক পঠিত
নেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
এমপি আজীম হত্যাকাণ্ডনেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
কবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
এমপি আনার হত্যাকবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের নিয়ে নতুন ষড়যন্ত্র?
বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের নিয়ে নতুন ষড়যন্ত্র?
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম