ভারতে নাগরিক আইন সংকট নিয়ে উদ্বিগ্ন নয় বিজিবি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৪৪, জানুয়ারি ০২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪১, জানুয়ারি ০২, ২০২০

বিজিবি`র সংবাদ সম্মেলনভারতে নাগরিক আইন সংকট নিয়ে বিজিবি উদ্বিগ্ন নয় বলে জানিয়েছেন বাহিনীর মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘সীমান্তরক্ষী বাহিনী হিসেবে আমাদের দায়িত্ব, অবৈধভাবে কেউ সীমান্ত যাতে অতিক্রম করতে না পারে, তা নিশ্চিত করা। এটি আমাদের রুটিন দায়িত্ব। এনআরসি (ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেনস) বা সিএএ (সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট অ্যাক্ট) ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। সেটা নিয়ে আমাদের উদ্বেগের কোনও কারণ নেই।’ তবে ভারতে নাগরিক আইন নিয়ে সংকট তৈরির পর গত দুই মাসে অনুপ্রবেশের দায়ে বিজিবি ৪৪৫ জনকে আটক করেছে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে বিজিবি সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম।

বিজিবি’র ডিজি বলেন, ‘গত এক বছরে সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে নারী-শিশুসহ ৯৭২ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় ২৫৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটকদের সবার বাড়ি বাংলাদেশে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে আমরা বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছি, যারা বিভিন্ন সময়ে দালালের মাধ্যমে কাজের সন্ধানে ভারতে পাড়ি দিয়েছেন বা পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন।’

ভারতে নাগরিক আইন সংকটের পর অনুপ্রবেশের সংখ্যা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘গত নভেম্বর ও ডিসেম্বরে ৪৪৫ জন অনুপ্রবেশ করেছে। বিশেষ করে ঝিনাইদহ, মহেশপুর এবং সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে এসেছে তারা। তারা সবাই বাংলাদেশের নাগরিক, কাজের সন্ধানে তারা সেই দেশে পাড়ি দিয়েছিলেন। অনেকে বেঙ্গালুরুতে কাজ করতেন। নাগরিক আইন সংকটের পর তারা দেশে ফিরেছেন।’

/এসজেএ/এফএস/এমএমজে/

লাইভ

টপ