লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যা: মানবপাচারকারী চক্রের দুই সদস্য রিমান্ডে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:১৩, জুন ০৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩১, জুন ০৩, ২০২০

লিবিয়ায় একটি অভিবাসন সেন্টারে বিশ্রামরত বাংলাদেশি অভিবাসীরা।

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি নিহতের ঘটনায় মানবপাচারকারী চক্রের দুই সদস্যের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার (৩ জুন) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক তোফাজ্জল হোসেন শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন মাহবুবুর রহমান ও সাহিদুর রহমান। তারা দায়ের করা এজাহারের ৩৩ ও ৩৪ নম্বর আসামি।

আদালতের সংশ্লিষ্ট সূত্র বাংলা ট্রিবিউনকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।     

এদিন দুপুরে পল্টন থানার মানবপাচার আইনে দায়ের করা মামলায় সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনে তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক মিজানুর রহমান সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করে তাদের আদালতে হাজির করেন। আসামিদের পক্ষে আইনজীবী সাইফুল ইসলাম সুমন ও কামাল হোসেন রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন  করেন। অপরদিকে, রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যা ও মানবপাচারের ঘটনায় গত মঙ্গলবার (২ জুন) ৩৮ জনকে আসামি করে রাজধানীর পল্টন থানায় মামলা দায়ের করেন সিআইডির উপ-পরিদর্শক রাশেদ ফজল। এজাহারে ৩৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে এবং অজ্ঞাত আরও ৩০-৩৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এর আগে গত ২ জুন মূলহোতা কামাল হোসেন ওরফে হাজী কামালের জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মে লিবিয়ার মিজদা শহরে মানবপাচারকারীদের হাতে ২৬ বাংলাদেশি নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছেন। বাংলাদেশি একটি দালালচক্র উন্নত জীবনের প্রলোভন ও মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে করোনার মধ্যেই তাদের লিবিয়ায় নিয়ে যায়। ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে তাদের ইতালি হয়ে ইউরোপে প্রবেশ করানোর আশ্বাস দিয়েছিল তারা। কিন্তু, লিবিয়াতে পাচারকারী স্থানীয় চক্রটি তাদের মারধর করে মুক্তিপণ চাইলে পাচারকারীদের স্থানীয় হোতা প্রথমে নিহত হয়। এরপর তাদের নির্বিচার গুলিবর্ষণে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

 

/টিএইচ/টিএন/

লাইভ

টপ