অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণের আগে ব্যবস্থাপনা বিধিমালা প্রণয়ন বন্ধের দাবি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:১৯, আগস্ট ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৩, আগস্ট ০৯, ২০২০

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ

ভুক্তভোগী মালিকদের কাছে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণের যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণের আগেই অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনের আওতায় প্রাপ্ত সরকারি সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা বিধিমালা-২০২০ প্রণয়ন ও তার চূড়ান্তকরণের পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ। পাশপাশি অনতিবিলম্বে তা বন্ধের জোর দাবি জানানো হয়। পরিষদ বলছে, মালিকপক্ষের কাছে সম্পত্তি প্রত্যর্পণের আগে ত্বরিৎ গতিতে বিধিমালা প্রণয়নের উদ্যোগ সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও জনগণের স্বার্থের পরিপন্থী। রবিবার (৯ আগস্ট) পরিষদ এক বিবৃতিতে একথা জানিয়েছে।

প্রেস বিবৃতিতে পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রাণা দাশগুপ্ত বলেন, ‘১৯ বছর আগে সংসদে গৃহীত অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন ও এতদ্বসংক্রান্ত হাইকোর্টের ৮৯৩২/২০১১ নম্বরের রিট মামলায় প্রদত্ত রায়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও এ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন হয়নি। অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ ট্রাইব্যুনালে দায়ের করা আবেদনের মধ্যে এ পর্যন্ত ৩৫ শতাংশ এবং আপিল ট্রাইব্যুনাল থেকে ট্রাইব্যুনালে নিষ্পত্তি করা আবেদনের কমবেশি ৫৫ শতাংশ আপিল আবেদন ইতোমধ্যে নিষ্পত্তি হয়েছে। তবে, এ সব চূড়ান্তভাবে নিষ্পত্তিকৃত আবেদনের ৫ শতাংশ  আবেদনে উল্লিখিত জমিও নানা অজুহাতে ও ছলচাতুরিতে আজও জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ প্রকৃত মালিক বা উত্তরাধিকারী বা সহ-অংশীদারদের মধ্যে প্রত্যর্পণ করেনি।

বিবৃতিতে বলা হয়, অসাধু আমলাচক্র ২০০১ সালের আইনে ২০১১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত নানাবিধ ইতিবাচক সংশোধনীর পরেও এ ইতিবাচক আইনকে নেতিবাচকতায় পরিণত করার জন্যে কয়েকটি সংশোধনী আনার চেষ্টা করলেও প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে তা ফলপ্রসূ হয়নি। এক্ষেত্রে ভুক্তভোগীদের হয়রানি এবং স্বার্থান্বেষী আমলাচক্র তাদের দুরভিসন্ধি চরিতার্থের মাধ্যমে  প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছাকে সুপরিকল্পিতভাবে বানচালের লক্ষ্যে এধরনের কথিত বিধিমালা করোনাভাইরাসের মতো দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতে এক মাসের মধ্যে চূড়ান্তকরণে উদ্যোগী হয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনে সুস্পষ্টভাবে বলা আছে— এ সব সম্পত্তির প্রকৃত মালিক ও তার উত্তরাধিকারী, স্বার্থাধিকারী বা সহ-অংশীদারদের বরাবরে দাবিকৃত অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণের কথা থাকলেও যেক্ষেত্রে প্রত্যর্পণের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া আজও শেষ হয়নি, সেক্ষেত্রে এহেন বিধি প্রণয়নের উদ্যোগ প্রচলিত আইন ও  হাইকোর্টের রায়ের নির্দেশনার সম্পূর্ণ পরিপন্থী। এহেন আমলাতান্ত্রিক চক্রান্ত সম্পর্কে সজাগ, সতর্ক ও সচেতন থাকার জন্যে বিবৃতিতে মানবাধিকারকামী সর্বস্তরের জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানানো হয়।

বিবৃতিতে অনতিবিলম্বে হাইকোর্টের রায়ের নির্দেশনার আলোকে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন যথাযথ বাস্তবায়নে দ্রুততার সঙ্গে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্যে ভূমিমন্ত্রীর প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানানো হয়।

        

/এসও/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ