X
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪
৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার বা সিটি করপোরেশন কোনও উদ্যোগ নেয়নি: সাকি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৯:০৬আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৯:০৬

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার বা সিটি করপোরেশন সত্যিকারের কোনও উদ্যোগ নেয়নি বলে মন্তব্য করেছেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ বহুমুখী শ্রমজীবী ও হকার সমিতি আয়োজিত ডেঙ্গু দমনে ব্যর্থ ঢাকার দুই মেয়রের পদত্যাগ ও দ্রব্যমূল্যের দাম জনগণের নাগালের আনার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলে এসব কথা বলেন তিনি।

জোনায়েদ সাকি বলেন, প্রতিদিন কেউ না কেউ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছে। জুন-জুলাই থেকে ব্যাপক প্রকোপ শুরু হয়েছে। কিন্তু ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার বা সিটি করপোরেশন সত্যিকারের কোনও উদ্যোগ নেয়েনি। ২০১৯ সাল থেকে দেশে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে, অথচ ডেঙ্গু মশার লার্ভা যে জন্মাতে না পারে, তেমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। তেমন উদ্যোগ নিলে ডেঙ্গুর প্রকোপ ৪০ ভাগ কমে যেত। অথচ পাশের দেশ ভারত এমন উদ্যোগ অনেক আগেই নিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ার পর সিটি করপোরেশন কোনও যথাযথ উদ্যোগ নেয়নি। যেসব কীটনাশক নিয়ে এসেছে, সেগুলো কাজে লাগেনি। বরং এসবের মাধ্যমে লুটপাট করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, দেশের স্বাস্থ্য খাতের অবস্থা তো আমরা দেখতেই পাচ্ছি। ৮০ হাজার মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে, অথচ সে অনুযায়ী চিকিৎসাসেবা পাচ্ছে না। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হলে দরকার পড়ে স্যালাইনের, অথচ এই স্যালাইন নিয়ে ব্যবসা করা হয়েছে। সংকট দেখিয়ে পুঁজি করা হয়েছে। হাসপাতালের প্রয়োজন নেই, কিন্তু চিকিৎসকরা রোগীদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠিয়ে লাখ লাখ টাকা আদায় করেছেন।

একদিক দিয়ে ডেঙ্গুতে মানুষ মরে, অন্যদিক দিয়ে বাজারে গিয়ে তাদের নাভিশ্বাস উঠে উল্লেখ করে সাকি বলেন, সিন্ডিকেটের ফলে মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে। এ সিন্ডিকেট সব বাজার নিয়ন্ত্রণ করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তু এসব নিয়ে সরকারের মাথাব্যথা নেই। সরকারের চিন্তা হলো কিভাবে ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় আসা যায়।

গণসংহতি আন্দোলনের এই নেতা বলেন, বাংলাদেশের মানুষকে যদি ভালো থাকতে হয়, তাহলে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ে অংশ নিতে হবে। আর সে লড়াই হবে সরকারকে হটানোর লড়াই। একটি জবাবদিহিমূলক গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করার পাশাপাশি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর ৩১ দফা দাবি বাস্তবায়নে কাজ করতে হবে।

বাংলাদেশ বহুমুখী শ্রমজীবী ও হকার সমিতির সভাপতি বাচ্চু ভুইয়ার সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলার সদস্য আল-আমিন, রিমিসহ অন্য সদস্যরা। সমাবেশ শেষে তারা প্রেসক্লাবের সামনে থেকে মিছিল নিয়ে পল্টন মোড়ে গিয়ে শেষ করে।

/এএজে/এনএআর/
সম্পর্কিত
হরিজনদের উচ্ছেদ বন্ধের দাবি গণসংহতির
স্বর্ণপদক দেওয়ার ঘোষণা দিলেন মেয়র আতিক
ইউরোপে ডেঙ্গুর বিস্তার, আতঙ্কের নাম টাইগার মশা
সর্বশেষ খবর
ঢাকা থেকে শ্রীমঙ্গল ছুটলেন তৌসিফ-তটিনী
ঢাকা থেকে শ্রীমঙ্গল ছুটলেন তৌসিফ-তটিনী
কোরবানিতে যেসব বিষয় খেয়াল রাখা উচিত
কোরবানিতে যেসব বিষয় খেয়াল রাখা উচিত
তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ তুলে শুরু হচ্ছে ইউরো
তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ তুলে শুরু হচ্ছে ইউরো
ঈদ আসছে, ‘আওয়াজ’ বাড়ছে কামারপাড়ায়
ঈদ আসছে, ‘আওয়াজ’ বাড়ছে কামারপাড়ায়
সর্বাধিক পঠিত
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির মূল্যায়ন: যেসব নির্দেশনা দেওয়া হলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির মূল্যায়ন: যেসব নির্দেশনা দেওয়া হলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে
শনিবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ নাকি খোলা, সিদ্ধান্ত ঈদের পর
শনিবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ নাকি খোলা, সিদ্ধান্ত ঈদের পর
কোটি টাকার গরু, ১৫ লাখের ছাগল এবং ‘ফুটানি’
কোটি টাকার গরু, ১৫ লাখের ছাগল এবং ‘ফুটানি’
এনবিআরের সাবেক কমিশনার ওয়াহিদা রহমানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
এনবিআরের সাবেক কমিশনার ওয়াহিদা রহমানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
ঈদের পর মেট্রোরেলে নতুন পিক-অফপিক
ঈদের পর মেট্রোরেলে নতুন পিক-অফপিক