বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি মোহাম্মদ নাসিমের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১১:৫০, এপ্রিল ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০৭, এপ্রিল ০৯, ২০২০

ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদসদ্য গ্রেফতার হওয়া বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার ফাঁসির আসামি বরখাস্তকৃত ক্যাপ্টেন আব্দুল মাজেদের ফাঁসির রায় কার্যকর করার আগে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ‘এই খুনির ফাঁসির রায় অবশ্যই কার্যকর হবে। তবে তার আগে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বঙ্গবন্ধু ও জেলখানায় চার নেতা হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে কারা ছিল তার আরও তথ্য জানা যাবে। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে বঙ্গবন্ধুর বাকি খুনিরা কোথায় পালিয়ে আছে সেটাও।’

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল)  এক ভিডিও বার্তায় জাতীয় চার নেতার অন্যতম ক্যাপ্টেন মনসুর আলীর ছেলে  মোহাম্মদ নাসিম এ দাবি করেন।মোহাম্মদ নাসিম

ভিডিও বার্তায় নাসিম বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের মহাবিপর্যয়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার আত্মস্বীকৃত খুনি পলাতক আব্দুল মাজেদের গ্রেফতার দেশবাসীর জন্য একটি সুসংবাদ বয়ে এনেছে। আমরা আশ্বস্ত হয়েছি যে দীর্ঘ চার যুগ পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী খুনিকে গ্রেফতার করেছে। এজন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই। আমি মনে করি এই খনি শুধু জাতির জনককে হত্যা করেনি, এই খুনি জেলখানায় ঢুকে জাতীয় চার নেতা হত্যাকাণ্ডেও অংশ নিয়েছিল।’

মাজেদকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি তুলে তিনি বলেন, ’এই খুনিকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন রয়েছে বলে আমি মনে করি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইনমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করবো এর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আগে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে হবে। কারণ, এই খুনি বলতে পারবে সেদিন জেলখানায় হত্যার নির্দেশ কে দিয়েছিল, কারা দিয়েছিল। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের মধ্য দিয়ে অনেক কিছু উন্মোচন হবে, যারা বঙ্গবন্ধু ও জেলখানায় চার নেতাকে নৃশংস হত্যায় অংশ নিয়েছিল তাদের ব্যাপারে।’

নাসিম বলেন, ‘তার বিচার হয়েছে। বিচার কার্যকর হবে। কিন্তু তাকে জিজ্ঞাসাবাদের মধ্য দিয়ে খুনের নেপথ্য খলনায়কদের বের করা দরকার। না হলে অনেক কিছু অজানা হয়ে আছে, অজানা হয়ে থাকবে। খুনিরা কোথায় পলাতক আছে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের মধ্য দিয়ে তাও জানা যেতে পারে। তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে হবে। তবে অবশ্যই তার আগে যেন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।’

উল্লেখ্য, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদ ২৫ বছর ধরে ভারতে পালিয়ে ছিল। করোনাভাইরাস আতঙ্কে সেখান থেকে গত ১৬ মার্চ ময়মনসিংহের সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করে মাজেদ। দেশে ফেরার গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার (৬ এপ্রিল) মধ্যরাতে রাজধানীর মিরপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

আরও পড়ুন- 

রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) মাজেদের

আবদুল মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি

২৫ বছর ভারতে পালিয়ে ছিলেন বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ

/ইএইচএস/এফএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ