সাকিব-মুশফিক নেই, কী বলছেন মুমিনুল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:০৩, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:০৫, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২০

গত এক বছরের টেস্টের পরিসংখ্যানে শুধু হতাশার ছবি। প্রতিপক্ষের সামনে সামান্য প্রতিরোধও গড়তে পারেনি ২০১৯ সালে খেলা পাঁচ টেস্টে। অবশ্য সেরা একাদশও নামাতে পারেনি বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডে সাকিব আল হাসান খেলেননি। পাঁজরের চোটে ছিলেন না মুশফিকুর রহিমও। পাকিস্তানের বিপক্ষেও দলের সেরা দুই ক্রিকেটারকে পাওয়া যাচ্ছে না। তাদের অভাবের মাঝেও অধিনায়ক মুমিনুল হক ইতিবাচক দিক দেখছেন।

নিষেধাজ্ঞার কারণে সাকিবকে এক বছরের জন্য পাচ্ছে না বাংলাদেশ। তার না থাকাটা স্বাভাবিক। মুশফিক নিরাপত্তার শঙ্কায় যাননি পাকিস্তানে। শুধু এই সিরিজ নয়, প্রায় নিয়মিতই বাংলাদেশকে টেস্ট খেলতে হচ্ছে দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের ছাড়া। এই যেমন সবশেষ ভারত সফরে ছুটিতে ছিলেন তামিম ইকবাল।

পাকিস্তানে তিনি থাকলেও বাংলাদেশ পাচ্ছে না সাকিব-মুশফিককে। দলের সেরা দুই ক্রিকেটারকে ছাড়া খেলতে নামা নিশ্চয় চ্যালে্ঞ্জিং? অধিনায়ক মুমিনুল হক বিষয়টিকে দুইভাবে দেখছেন, ‘হ্যাঁ, দলের সেরা খেলোয়াড়ের না থাকাটা কঠিনই। তবে এটা অনেক বড় সুযোগ তরুণ খেলোয়াড়দের জন্য। তারপরও মুশফিক ভাই, সাকিব ভাই নেই, তাদের আমরা মিস করব।’

শ্রীলঙ্কায় তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলে এসে বিশ্রাম নিয়েছিলেন তামিম। তবে খেলেননি আফগানিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে তিনটি টেস্ট। গত মার্চের পর সাদা পোশাকে খেলতে নামছেন বাংলাদেশের সেরা ওপেনার। পাকিস্তানে যাওয়ার আগে বিসিএলের প্রথম রাউন্ডে খেলে গেছেন রেকর্ড ৩৩৪ রানের ইনিংস।

দীর্ঘদিন পর টেস্টে তামিমের ফেরাকে স্বস্তিদায়ক মনে করছেন মুমিনুল, ‘তামিম ভাই বিশ্বমানের খেলোয়াড়। অনেক দিন পর ফিরলেও আমার মনে হয় না খুব বেশি সমস্যা হবে তার। বিসিএলে ভালো একটা ইনিংস খেলে এসেছেন। আশা করি এখানে আত্মবিশ্বাস নিয়েই খেলতে পারবেন।’

/আরআই/কেআর/

লাইভ

টপ