X
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

করোনার টিকায় বয়স্কদের অগ্রাধিকার, সাধুবাদ জানালো সবাই

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৫০

১৩ জানুয়ারি সকাল থেকে ১৪ জানুয়ারি সকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৬ জন। এর মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ৯ জন। সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত মোট মারা গেছেন সাত হাজার ৮৪৯ জন। এদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব চার হাজার ৩১৭ জন। শতকরা হিসাবে যা অর্ধেকেরও বেশি।

গত ১১ জানুয়ারি স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, চলতি মাসের ২১ থেকে ২৫ তারিখের মধ্যে দেশে আসবে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন। দেশে আনার পর সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস তাদের ওয়্যারহাউজে রাখবে ভ্যাকসিন। এরপর সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের জেলা পর্যায়ে পৌঁছে দেবে।

দেশে কত মানুষকে কোন পর্যায়ে কীভাবে ভ্যাকসিন দেবে সে বিষয়েও সাংবাদিকদের জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর। ২৬ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে রেজিস্ট্রেশন। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকে জাতীয়ভাবে টিকা দেওয়া শুরু হবে। প্রথম দফায় টিকা দেওয়া হবে ৫০ লাখ মানুষকে।

এ ভ্যাকসিনের অর্ধেকই বয়স্কদের দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে সরকার। সরকারের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

গত ২৭ আগস্ট কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটি করোনার টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর কথা উল্লেখ করে।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভ্যাকসিনের মূল উদ্দেশ্য মৃত্যু ও সংক্রমণের হার কমানো। আর বয়োজ্যেষ্ঠরা যেহেতু মৃত্যু হারের শীর্ষে, তাই তাদের এই ভ্যাকসিন তালিকায় অগ্রাধিকার দেওয়ায় সরকার প্রশংসা পাবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের টিকা প্রয়োগের তালিকায় প্রথম পর্যায়ের প্রথম ধাপে মোট জনসংখ্যার আট দশমিক ৬৮ শতাংশ অর্থাৎ এক কোটি ৫০ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে।

কোভিড-১৯ টিকা বিতরণ কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সায়েন্টিফিক অ্যাডভাইজরি গ্রুপ অব এক্সপার্টস (এসএজিই)-এর নির্দেশনা এবং দেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

প্রথম মাসে সবচেয়ে বেশি টিকা বরাদ্দ থাকছে ৭৭ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য। ২৪ লাখ ১৬ হাজার ৬২৬টি টিকা পাবেন তারা। এদের আবার দুই ভাগে করা হয়েছে। ৮০ বছরের বেশি রয়েছেন ১৩ লাখ ১২ হাজার ৯৭৩ জন আর ৭৭ থেকে ৭৯ বছরের মধ্যে আছেন ১১ লাখ তিন হাজার ৬৫৩ জন।

আবার স্বল্প রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জনগোষ্ঠী (যক্ষ্মা, এইডস রোগী, ক্যানসার রোগী) ছয় লাখ ২৫ হাজার। এরাও প্রথম মাসে ভ্যাকসিন পাবেন।

৭৪ থেকে ৭৬ বছরের মধ্যে রয়েছেন নয় লাখ ৫৩ হাজার ১৫৩ জন। প্রথম পর্যায়ের দ্বিতীয় মাসে এই বয়সের সবাইকে টিকা দেওয়া হবে।

৭০ থেকে ৭৩ বছরের জনগোষ্ঠী ২০ লাখ ৬ হাজার ৮৭৯ জন। দ্বিতীয় মাসে তাদের টিকা দেওয়া হবে। ৬৭ থেকে ৬৯ বছরের জনসংখ্যা ২৪ লাখ ৭৫ হাজার এবং ৬৪ থেকে ৬৬ বছরের জনসংখ্যা ২৪ লাখ ৭৫ হাজার। পঞ্চম মাসে এরা সবাই টিকা পাবেন।

ডা. শামসুল হক বলেন, ‘কোভিডে বয়স্কদের মৃত্যুর হার অনেক বেশি। তাদের কথা চিন্তা করেই ৭৭ থেকে ৮০ বছরের ঊর্ধ্বে থাকা সবাই প্রথম মাসে টিকার আওতায় আসবেন। এটা বেশ ভালো উদ্যোগ।’

তিনি আরও জানান, ‘দ্বিতীয় রাউন্ডে ৭০ বছরের ঊর্ধ্বে থাকা সবাই ভ্যাকসিনের আওতায় চলে আসবেন। অর্থাৎ দুই মাসের মধ্যে আমাদের দেশের সত্তরোর্ধ্ব সবাই ভ্যাকসিনের আওতায় আসবেন।’

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাবলিক হেলথ কমিটির সদস্য জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. আবু জামিল ফয়সাল বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘টিকার অগ্রাধিকার তালিকায় বয়োজ্যেষ্ঠদের রাখাকে সাধুবাদ জানাই। একইসঙ্গে তাদের মধ্যে যাদের অন্যান্য জটিল রোগ রয়েছে, তারা যেন অগ্রাধিকার পান।’

/জেএ/এফএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

করোনায় মৃত্যুর সঙ্গে সূর্যের আলোর যোগসূত্র পেলেন গবেষকরা

করোনায় মৃত্যুর সঙ্গে সূর্যের আলোর যোগসূত্র পেলেন গবেষকরা

করোনায় নারীদের মৃত্যুহার বাড়ছে

করোনায় নারীদের মৃত্যুহার বাড়ছে

মহামারিতে গর্ভধারণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ ব্রাজিলের

মহামারিতে গর্ভধারণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ ব্রাজিলের

গ্রামে বাড়ছে ডায়রিয়ার প্রকোপ, হাসপাতালে রোগীর স্রোত

গ্রামে বাড়ছে ডায়রিয়ার প্রকোপ, হাসপাতালে রোগীর স্রোত

‘লকডাউন’ বাড়ছে

‘লকডাউন’ বাড়ছে

‘শ্বাসকষ্ট’ হলে ডাক পড়ে বাসদের

‘শ্বাসকষ্ট’ হলে ডাক পড়ে বাসদের

৬৮ লাখ ৫১ হাজার ডোজ টিকা দেওয়া শেষ

৬৮ লাখ ৫১ হাজার ডোজ টিকা দেওয়া শেষ

দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতালের উদ্বোধন আজ

দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতালের উদ্বোধন আজ

সর্বশেষ

মেসির জোড়া গোলে বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন

মেসির জোড়া গোলে বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন

কান ধরে ব্যবসা ছেড়ে দিতে চাই, বললেন অ্যাপেক্স এমডি

কান ধরে ব্যবসা ছেড়ে দিতে চাই, বললেন অ্যাপেক্স এমডি

২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে নিভে গেল চলচ্চিত্রের দুই নক্ষত্র

২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে নিভে গেল চলচ্চিত্রের দুই নক্ষত্র

ম্যান সিটিকে হারিয়ে চেলসি ফাইনালে

ম্যান সিটিকে হারিয়ে চেলসি ফাইনালে

দেড় শতাধিক ছবির নায়ক ওয়াসিম আর নেই

দেড় শতাধিক ছবির নায়ক ওয়াসিম আর নেই

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

অন্যমনস্কতার ভেতর বয়ে যাওয়া নিঃশব্দ মর্মর

অন্যমনস্কতার ভেতর বয়ে যাওয়া নিঃশব্দ মর্মর

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

মেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

বাঁশখালী হত্যাকাণ্ডমেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

মেক্সিকো থেকে কাদের মির্জার ছেলেকে হত্যার হুমকি!

মেক্সিকো থেকে কাদের মির্জার ছেলেকে হত্যার হুমকি!

রোহিতের ৪ হাজার, মুম্বাইয়ের সঙ্গেও পারলো না হায়দরাবাদ

রোহিতের ৪ হাজার, মুম্বাইয়ের সঙ্গেও পারলো না হায়দরাবাদ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘লকডাউন’ বাড়ছে

‘লকডাউন’ বাড়ছে

৬৮ লাখ ৫১ হাজার ডোজ টিকা দেওয়া শেষ

৬৮ লাখ ৫১ হাজার ডোজ টিকা দেওয়া শেষ

২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ জনের মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ জনের মৃত্যু

প্রথম দিনের অর্ধেক ফ্লাইট বাতিল, ভোগান্তিতে প্রবাসী কর্মীরা

প্রথম দিনের অর্ধেক ফ্লাইট বাতিল, ভোগান্তিতে প্রবাসী কর্মীরা

পরীক্ষার হার কমলেও শনাক্তের হার ঊর্ধ্বমুখী

পরীক্ষার হার কমলেও শনাক্তের হার ঊর্ধ্বমুখী

‘সাত দিনের লকডাউন হয় না’

‘সাত দিনের লকডাউন হয় না’

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune