সেকশনস

ধুলায় নাকাল ঢাকা, পড়ে আছে রোড সুইপার ট্রাক

আপডেট : ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৮:৫৫

রিয়েলটাইম এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সে গত শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) ঢাকার বাতাস ছিল ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’। ধুলার দূষণে বিশ্বের শীর্ষ শহরগুলোর মধ্যে ঘুরেফিরে ঢাকার নাম আসবেই। বাতাসের মান তলানিতে থাকলেও এ নিয়ে মাথাব্যথা নেই দুই সিটি করপোরেশনের। উল্টো, ধুলাবালি কমাতে সংস্থা দুটির কাছে থাকা ৬টি অত্যাধুনিক রোড সুইপার ট্রাক ফেলে রাখা হয়েছে।

নগর পরিকল্পনাবিদরা বলছেন, প্রযুক্তি থাকলেও তা ব্যবহার না করা দায়িত্বের চরম অবহেলা। এর জন্য সিটি করপোরেশনের বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। পাশাপাশি ধুলা দূষণের জন্য শহরে রেড অ্যালার্ট জারিও আবশ্যক হয়ে পড়েছে।

ঢাকার মাত্রাতিরিক্ত ধুলা-দূষণের পেছনে দায়ী করা হচ্ছে নির্মাণকাজ, সড়ক খোঁড়াখুঁড়ি ও বর্জ্যের অব্যবস্থাপনাকেই। পরিস্থিতির উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য কোনও পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না। অথচ এর জন্য শত কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। নতুন করে প্রকল্পও নেওয়া হচ্ছে। এগুলো আদৌ সফল হবে কি না তা নিয়েও পরিবেশবিদদের শঙ্কা রয়েছে।

জানা গেছে, ২০০৯ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ঢাকার বাতাসের মানোন্নয়নে ৮০২ কোটি টাকা ব্যয়ে সিটি করপোরেশনের মাধ্যমে নির্মল বায়ু ও টেকসই পরিবেশ (কেইস) শীর্ষক একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছিল পরিবেশ অধিদফতর। পুরো টাকাই খরচ হয়েছে। কিন্তু বাতাসের মান উন্নয়ন তো দূরের কথা, ১২ বছরে দূষণ আরও বেড়েছে। এ অবস্থায় নতুন করে আরও সাত হাজার কোটি টাকার প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে। দেশের পরিবেশের মানোন্নয়নে যা এ যাবতকালের সবচেয়ে বড় প্রকল্প হবে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ুমন্ত্রী।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, বিশেষজ্ঞদের মতামত, বাস্তবতা ও টেকনিক্যাল বিষয়গুলোকে গুরুত্ব না দিয়ে বাস্তবায়ন করার চেষ্টা হলে আগের মতো এ প্রকল্পও ভেস্তে যাবে।

এ প্রসঙ্গে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেছেন, দেশের সার্বিক পরিবেশের গুণগত মান উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় ‘বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্টাল সাসটেইনেবিলিটি অ্যান্ড ট্রান্সফরমেশন (বেস্ট)’ নামের একটি বড় আকারের প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে। প্রকল্পটি দেশের বায়ু ও পানির মান এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনাসহ পরিবেশের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

তিনি আরও বলেছেন, পরিবেশ অধিদফতর এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর সক্ষমতা বাড়াতেও সহায়তা করবে এ প্রকল্প। প্রকল্পটি সমন্বিত পদ্ধতিতে পরিবেশ দূষণ সমস্যার সমাধান করবে বলেও জানান তিনি।

আগে দেখা যেত, ধুলার দূষণ কমাতে দিনে দু’বেলা বিশেষ গাড়ি দিয়ে নগরীর প্রধান সড়কগুলোতে পানি ছিটানো হতো। পাশাপাশি সড়ক খোঁড়াখুঁড়ির বিষয়েও কড়াকড়ি ছিল সিটি করপোরেশনের। কিন্তু গতবছর ও এখন পর্যন্ত এমন কোনও কর্মকাণ্ড দেখা যায়নি। এ জন্য সংস্থা দুটির কোনও কর্মসূচিও নেই। ফলে ধুলার হাত থেকেই রেহাই নেই নগরবাসীর।

এদিকে রাজপথের ময়লা-আবর্জনা, ধুলোবালি পরিষ্কার ও পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে দেশের ১২টি সিটি করপোরেশনকে ২০টি রোড সুইপার ট্রাক দিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন তিনটি করে ৬টি সুইপার ট্রাক পেয়েছে। প্রতিটি গাড়ি দিনে প্রায় ৩০ কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করতে পারবে বলে জানানো হয়। গতবছরের ৩০ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম গাড়িগুলো সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করলেও এখন পর্যন্ত রাস্তায় নামেনি সেগুলো।

দুই সিটি করপোরেশনের দাবি, ধুলা নিয়ন্ত্রণে পানি ছিটানো এবং রোড সুইপারের মাধ্যমে ধুলাবালি টেনে নেওয়ার কাজ নিয়মিত চলছে। পাশাপাশি অপরিকল্পিত খোঁড়াখুঁড়ি বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এমন কার্যক্রম চোখে পড়ছে না বলে দাবি নগরবাসীর। তারা বলছেন, নগরভবনের মাঠে ধুলা পরিষ্কারের অত্যাধুনিক যন্ত্রগুলো ফেলে রাখা হয়েছে।

খিলগাঁওয়ের বাসিন্দা ইয়াসিন আরাফাত বলেন, ‘করোনার কারণে এখন নিয়মিত মাস্ক পরা হয়। এর পরেও রাতে বাসায় ফিরলে দেখা যায় ধুলার কারণে নাকেমুখে ধুলা জমে আছে। জামা-কাপড়ও কালো হয়ে যায়। ধুলার কারণে অনেক সময় চোখ মেলেও হাঁটা যায় না।’

আজিমপুরের বাসিন্দা গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, ‘ধুলার কারণে ঢাকার অনেক রাস্তাকে মনে হবে মাটির রাস্তা। সিটি করপোরেশনকে অবশ্যই দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে।’

পরিবেশ অধিদফতরের তথ্যমতে, বায়ুদূষণের স্কোর ৫০-এর নিচে থাকার অর্থ হলো বাতাসের মান ভালো। স্কোর ৫১ থেকে ১০০ হলে বাতাসের মান গ্রহণযোগ্য বলে ধরে নেওয়া হয়। তবে এ অবস্থায় শিশু, বয়স্ক ও যাদের শ্বাসকষ্ট আছে তাদের বাইরে বেশি সময় না থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। ১৫১ থেকে ২০০ এর মধ্যে স্কোর থাকার অর্থ হলো সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যের ওপরও এর খারাপ প্রভাব পড়বে। আর সূচক ২০১ থেকে ৩০০-এর মধ্যে থাকার অর্থ হলো প্রত্যেকেই মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়বে। এমনটা হলে ধরে নেওয়া হয় ওই এলাকায় স্বাস্থ্যসংক্রান্ত জরুরি অবস্থা চলছে।

ঢাকায় তেমনই জরুরি অবস্থা চলছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞ ও স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের ডিন অধ্যাপক কামরুজ্জামান মজুমদার। তিনি জানান, এই সূচক একাধারে তিনদিন থাকলে এবং প্রতিদিন এর স্থায়িত্ব ৩ ঘণ্টার বেশি হলে সেখানে স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা জারি করা অবশ্যক। গত ৯, ১০ ও ১১ জানুয়ারি ঢাকার বায়ুর মানের সূচক ৩০০ অতিক্রম করেছিল।

এই বায়ু বিশেষজ্ঞ আরও বলেন, ‘ঢাকায় যে পরিমাণ ধুলা বেড়েছে তাতে যেকোনও সময় জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় জরুরি অবস্থা জারির জন্য বলতে পারেন হাইকোর্ট। গতবছরও ধুলা নিয়ন্ত্রণে পানি ছিটাতে হাইকোর্ট থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তা ঠিকমতো পালন করেনি সিটি করপোরেশন।’

তিনি বলেন, ‘সিটি করপোরেশন এখনও দায়সারা ভাব নিয়ে আছে। তারা আরেকটু আন্তরিক ও দায়িত্বশীল হলে এ অবস্থা হতো না।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এ বি এম আমিনুল্লাহ নুরী বলেন, ‘ধুলার নিয়ন্ত্রণে আমরা নিয়মিত কাজ করছি। পানি ছিটানোর পাশাপাশি নিয়মিত অভিযান চলছে। ধুলো সৃষ্টিকারী ঠিকাদার ও ভবন নির্মাণকারীদের বিরুদ্ধেও অভিযান চলছে। সেইসঙ্গে সমন্বয়হীন খোঁড়াখুঁড়ি রোধে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে। আগামী সপ্তাহ থেকে আমরা আরও কঠোর হবো।’

উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা ধুলা দূষণে পরিকল্পনা নিয়েছি। বিভিন্ন স্থানে নিয়মিত পানি ছিটানো হচ্ছে। অতিরিক্ত খোঁড়াখুঁড়ি করতে দেওয়া হচ্ছে না। নিয়মিত মনিটরিং হচ্ছে।’

 

 

 
 
/এফএ/

সম্পর্কিত

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

এবারের নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন ৫ জয়িতা

এবারের নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন ৫ জয়িতা

কত বাধা পেরিয়ে এলো ৭ মার্চের ভাষণ!

কত বাধা পেরিয়ে এলো ৭ মার্চের ভাষণ!

‘কানে শুনতে হলে কার্টুনিস্ট কিশোরকে যন্ত্র ব্যবহার করতে হবে’

‘কানে শুনতে হলে কার্টুনিস্ট কিশোরকে যন্ত্র ব্যবহার করতে হবে’

কক্সবাজার সৈকতে বঙ্গবন্ধু

কক্সবাজার সৈকতে বঙ্গবন্ধু

৭ মার্চের ভাষণ ঐতিহাসিক দলিল হয়ে উঠলো যেভাবে

৭ মার্চের ভাষণ ঐতিহাসিক দলিল হয়ে উঠলো যেভাবে

সর্বশেষ

ডিআইইউ’র শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নশিপ ও প্রশিক্ষণ দেবে রাইজআপ ল্যাবস

ডিআইইউ’র শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নশিপ ও প্রশিক্ষণ দেবে রাইজআপ ল্যাবস

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনুদান পেতে তথ্য দেওয়ার সময় বাড়ছে

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনুদান পেতে তথ্য দেওয়ার সময় বাড়ছে

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

সুকণ্ঠী আলম আরা মিনুর সুরে...

সুকণ্ঠী আলম আরা মিনুর সুরে...

মিয়ানমারে রাতভর তল্লাশি, সকাল হতেই রাস্তায় হাজার হাজার বিক্ষোভকারী

মিয়ানমারে রাতভর তল্লাশি, সকাল হতেই রাস্তায় হাজার হাজার বিক্ষোভকারী

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

বাংলাদেশে আসছে না আফগানিস্তান

বাংলাদেশে আসছে না আফগানিস্তান

১৪ মার্চ আকাশ তরী ও শ্বেত বলাকার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

১৪ মার্চ আকাশ তরী ও শ্বেত বলাকার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন ৫ জয়িতা

এবারের নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন ৫ জয়িতা

ডার্বির আগে ব্যবধান কমিয়ে রাখলো বার্সা

ডার্বির আগে ব্যবধান কমিয়ে রাখলো বার্সা

হুথিদের ৫টি ড্রোন ধ্বংসের দাবি সৌদি জোটের

হুথিদের ৫টি ড্রোন ধ্বংসের দাবি সৌদি জোটের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

‘কানে শুনতে হলে কার্টুনিস্ট কিশোরকে যন্ত্র ব্যবহার করতে হবে’

‘কানে শুনতে হলে কার্টুনিস্ট কিশোরকে যন্ত্র ব্যবহার করতে হবে’

উদীচীর অনুষ্ঠানে বোমা হামলা: ২২ বছর পরও বিচারের দাবিতে সমাবেশ!

উদীচীর অনুষ্ঠানে বোমা হামলা: ২২ বছর পরও বিচারের দাবিতে সমাবেশ!

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধন চায় সম্পাদক পরিষদ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধন চায় সম্পাদক পরিষদ

আমদানি কমিয়ে নিজস্ব জ্বালানির অনুসন্ধান ও ব্যবহার বাড়াতে হবে

আমদানি কমিয়ে নিজস্ব জ্বালানির অনুসন্ধান ও ব্যবহার বাড়াতে হবে

ধর্ষণ মামলার তথ্য চেয়েছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন

ধর্ষণ মামলার তথ্য চেয়েছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন

উবারে যুক্ত হবেন নারী চালকরাও

উবারে যুক্ত হবেন নারী চালকরাও

‘৪১তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন হয়নি’

‘৪১তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন হয়নি’


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.