X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

বাংলাদেশে ফিরতে না পেরে কলকাতায় ক্যান্সার আক্রান্ত শিশুর মৃত্যু

আপডেট : ১০ মে ২০২১, ২৩:১৬

বাংলাদেশে ফিরবার এনওসি না পেয়ে পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হলো বগুড়ার ক্যান্সার আক্রান্ত শিশু আল হাসান রফিকের। মৃত শিশুর বাবা আব্দুল লতিফ তার মৃত সন্তানের লাশ নিয়ে কবে ফিরবেন দেশে তা নিয়ে আহাজারি করছেন কলকাতায়। অন্যদিকে, এনওসি বন্ধ হওয়ায় সোমবার কলকাতার বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের সামনে বিক্ষোভ করেছেন ভারতে আটকে পড়া শতাধিক বাংলাদেশি।

আব্দুল লতিফ জানান, গত কয়েক বছর ধরে অসুস্থ সন্তানের চিকিৎসা করাতে ভারতে যাতায়াত করছি। কয়েক মাস আগেও এসেছিলাম। আমার ছেলে রফিকের পেটে টিউমার হয়েছিল। ভেলোরে চিকিৎসা চলছিল। টাকা-পয়সা শেষ হয়ে যাওয়ায় জন্য কলকাতায় ফিরে আসি। এনওসি নিয়ে দেশে ফেরার জন্য।

সন্তান হারা বাবা জানান, ৫ মে থেকে তিনি কলকাতার বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে আবেদন করছেন। কোনও লাভ হয়নি। দেশে ফেরার আশায় অসুস্থ সন্তানকে নিয়ে বেনাপোল সীমান্তের লাগোয়া ভারতের বনগাঁ আসেন। সেখানে গত রবিবার রফিক আরও অসুস্থ হয়ে পড়ায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা জানান তার মৃত্যু হয়েছে।

আব্দুল লতিফের অভিযোগ, গত কয়েকদিন ধরে কলকাতার বাংলাদেশ উপ–হাইকমিশনে দরবার করেও এনওসি পেলাম না। সন্তানকেও দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যেতে পারলাম না। আপাতত তাকে হিমঘরে রেখে দেশে ফেরার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাওয়ার চেষ্টা করছি। জানি না মৃত সন্তানের লাশ কতদিন হিমঘরে রাখতে হবে।

এদিকে, কলকাতার বাংলাদেশ উপহাইকমিশনের সামনে বিক্ষোভ দেখানো বাংলাদেশি নাগরিকরা জানান, তাদের টাকা শেষ হয়ে গেছে। কলকাতায় থাকার জায়গা নেই। এ অবস্থায় দেশে না ফিরলে খাবার না পেয়ে, অসুস্থ হয়ে মরতে হবে। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে ক্যান্সার আক্রান্ত এমন বহু মানুষও ছিলেন।

গাজিপুর থেকে ক্যান্সার আক্রান্ত মেয়েকে নিয়ে ভেলোরে এসেছিলেন ফেড্ররিক মুকুল বিশ্বাস। তিনি বাংলাদেশ হিন্দু–বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের গাজিপুর মহানগর কমিটির সভাপতি। দেশে ফেরার বিষয়ে তিনি জানান, গত এপ্রিলে ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত মেয়েকে নিয়ে ভেলোরে গিয়েছিলেন। সঙ্গে জামাই, নাতিও রয়েছে। টাকা শেষ হয়ে যাওয়ায় তিনি মেয়েকে নিয়ে বাংলাদেশে ফিরতে চেয়েছিলেন। কিন্তু কলকাতায় এসে আটকে পড়েছেন। এনওসিও দেওয়া হচ্ছে না। এমন পরিস্থিতিতে ক্যান্সার আক্রান্ত মেয়ের চিকিৎসা কীভাবে করাবেন, তা নিয়ে তিনি উদ্বেগে।

/এএ/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে

রাজধানীতে মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে

লকডাউন হচ্ছে পিরোজপুরের ৪ পৌর এলাকা

লকডাউন হচ্ছে পিরোজপুরের ৪ পৌর এলাকা

ময়মনসিংহে লকডাউনেও চলছে গণপরিবহন, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ময়মনসিংহে লকডাউনেও চলছে গণপরিবহন, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

মোদিকে চিঠি মমতার

মোদিকে চিঠি মমতার

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

যেকোনও সময় শাটডাউনের ঘোষণা: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

যেকোনও সময় শাটডাউনের ঘোষণা: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কাশ্মিরি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক, রাজ্য মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মোদির

কাশ্মিরি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক, রাজ্য মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মোদির

দল থেকে বিতাড়িত হাতি, পিষে মারলো ১৬ জনকে

দল থেকে বিতাড়িত হাতি, পিষে মারলো ১৬ জনকে

শাটডাউনে কী থাকছে?

শাটডাউনে কী থাকছে?

১ জুলাই পর্যন্ত সাতক্ষীরায় লকডাউন

১ জুলাই পর্যন্ত সাতক্ষীরায় লকডাউন

সর্বশেষ

নজরদারির দুর্বলতায় ছাপাখানায় জাল রেভিনিউ স্টাম্প তৈরি

নজরদারির দুর্বলতায় ছাপাখানায় জাল রেভিনিউ স্টাম্প তৈরি

খুলনায় শনাক্ত ৫০ হাজার ছাড়ানোর দিনে ২৩ মৃত্যু

খুলনায় শনাক্ত ৫০ হাজার ছাড়ানোর দিনে ২৩ মৃত্যু

কাজের কথা বলে পাচারের চেষ্টা, নিয়ে নেতা হতো কিডনি

কাজের কথা বলে পাচারের চেষ্টা, নিয়ে নেতা হতো কিডনি

মাদকাসক্তদের ৮০ ভাগই কিশোর

মাদকাসক্তদের ৮০ ভাগই কিশোর

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

নির্যাতন থেকে বাঁচতে ভাড়াটে খুনি দিয়ে ছেলেকে হত্যা

নির্যাতন থেকে বাঁচতে ভাড়াটে খুনি দিয়ে ছেলেকে হত্যা

নতুন করে বেড়েছে ১০ পণ্যের দাম

নতুন করে বেড়েছে ১০ পণ্যের দাম

বলিউড তারকাদের ডাকনামগুলো শুনেছেন?

বলিউড তারকাদের ডাকনামগুলো শুনেছেন?

মুলতান পিএসএলের ‘সুলতান’

মুলতান পিএসএলের ‘সুলতান’

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

মনপুরায় জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবি

মনপুরায় জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবি

রেস্টুরেন্টে ৩৭ ডলারের বিল, টিপস ১৬ হাজার

রেস্টুরেন্টে ৩৭ ডলারের বিল, টিপস ১৬ হাজার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

মোদিকে চিঠি মমতার

মোদিকে চিঠি মমতার

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

কাশ্মিরি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক, রাজ্য মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মোদির

কাশ্মিরি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক, রাজ্য মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মোদির

দল থেকে বিতাড়িত হাতি, পিষে মারলো ১৬ জনকে

দল থেকে বিতাড়িত হাতি, পিষে মারলো ১৬ জনকে

ভোটের পর খোঁজ নেই এমপির, সন্ধান চেয়ে পোস্টার

ভোটের পর খোঁজ নেই এমপির, সন্ধান চেয়ে পোস্টার

পশ্চিমবঙ্গে আটক কে এই চীনা অনুপ্রবেশকারী?

পশ্চিমবঙ্গে আটক কে এই চীনা অনুপ্রবেশকারী?

বেশি সন্তান জন্ম দিলে মিলবে ১ লাখ রুপি পুরস্কার

বেশি সন্তান জন্ম দিলে মিলবে ১ লাখ রুপি পুরস্কার

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

উদ্বাস্তুদের জন্য ‘বঙ্গভূমি’ রাজ্যের দাবি তুললেন বিজেপি বিধায়ক

উদ্বাস্তুদের জন্য ‘বঙ্গভূমি’ রাজ্যের দাবি তুললেন বিজেপি বিধায়ক

© 2021 Bangla Tribune