X
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

নিলামে বিক্রি হলো বিশ্বের সবচেয়ে দামি স্বর্ণমুদ্রা

আপডেট : ০৯ জুন ২০২১, ১৯:২৫
image

যুক্তরাষ্ট্রে একটি নিলামে এক কোটি ৮৮ লাখ ডলারের বেশি দামে বিক্রি হয়েছে ২০ ডলার মূল্যের একটি স্বর্ণমুদ্রা। ১৯৩৩ সালে ফ্রাঙ্কলিন রুজভেল্ট যখন আমেরিকাকে গোল্ড স্টান্ডার্ড থেকে বের করে নিয়ে যান তারপর থেকে এই কয়েন আর কখনওই ইস্যু করা হয়নি। মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কের সুথিবি’স নিলামে স্বর্ণমুদ্রাটি বিক্রি হয়। এটিই সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রি হওয়া কয়েন। এর আগে ২০১৩ সালে ১৭৯৪ সালের একটি রুপার মুদ্রা বিক্রি হয় এক কোটি ডলারে। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি’র প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

২০ ডলারের স্বর্ণমুদ্রাটির নকশা করেন আমেরিকান স্থপতি অগাস্টাস সেইন্ট গউডেনস। সুথিবি’স নিলাম কর্তৃপক্ষ এটি সম্পর্কে বলেছে, বাজারে সার্কুলেশনের উদ্দেশে তৈরি করা যুক্তরাষ্ট্রের সর্বশেষ কয়েন হওয়ায় এটি বিশ্বের সবচেয়ে আকাঙ্ক্ষিত মুদ্রাগুলোর একটি। তাদের ধারণা ছিলো এটি এক থেকে দেড় কোটি ডলারে বিক্রি হবে।

শেষ পর্যন্ত সবচেয়ে দামী মুদ্রা হিসেবে বিক্রি হওয়া কয়েনটির একপাশে লেডি লিবার্টির ছবি আর অন্যপাশে আমেরিকান ঈগলের ছবি রয়েছে। ডাবল ঈগল নামে পরিচিত মুদ্রাটি ১৯৩৩ সালে সার্কুলেশনের জন্য তৈরি করা হলেও এটি কখনওই বৈধভাবে ব্যবহারের অনুমোদন পায়নি।

ওই বছর মহামন্দার কবল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি রক্ষা করার উদ্দেশে প্রেসিডেন্ট রুজভেল্ট গোল্ড স্টান্ডার্ড থেকে আমেরিকাকে প্রত্যাহার করে নেন। স্মিথসোনিয়ান ইনস্টিটিউশনকে দেওয়া দুইটি ছাড়া বাকি সব কয়েন ধ্বংসের নির্দেশ দেওয়া হয়।

তবে ১৯৩৭ সালের দিকে বাজারে কয়েকটি মুদ্রা দেখা যাওয়ায় এনিয়ে তদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। ওই তদন্তের মাধ্যমে ১৯৪৪ সালে সিদ্ধান্তে পৌঁছানো হয় যে এসব কয়েন মার্কিন সরকারের কাছ থেকে চুরি করা হয়েছে আর এগুলো নিজের কাছে রাখা অবৈধ।

সুথিবি’স নিলামের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওই তদন্ত শেষ হওয়ার আগে এগুলোর মধ্যে একটি কয়েন কিনে নেওয়া হয় আর ভুলক্রমে রফতানি লাইসেন্স পেয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত কয়েনটির স্থান হয় মিসরের রাজা ফারুকের মুদ্রা সংগ্রহশালায়। ১৯৫৪ সালে সুথিবি’স মুদ্রাটি নিলামে ওঠানোর চেষ্টা করলে মার্কিন রাজস্ব বিভাগ এটি প্রত্যাহার করে নিতে সক্ষম হয়।

এরপর ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত কয়েনটির অবস্থান ছিলো অজানা। ওই সময় নিউ ইয়র্কের একটি হোটেল থেকে কয়েনটি জব্দ করে গোয়েন্দা সংস্থা। পাঁচ বছরের আইনি লড়াই শেষে সিদ্ধান্ত হয় কয়েনটি বেসরকারি মালিকানায় যেতে পারবে। এটি ছাড়া অন্য যেসব ডবল ঈগল কয়েন দেখা গেছে, সেগুলো মার্কিন সরকারের সম্পত্তি বলে গণ্য হবে বলেও সিদ্ধান্ত আসে।

সেই কারণে মঙ্গলবার বিক্রি হওয়া ১৯৩৩ সালের ডবল ঈগল কয়েনটি বৈধভাবে বিক্রি হতে পারা একমাত্র কয়েন। ২০০২ সালেও কয়েনটি ওই সময়ের রেকর্ড গড়া দাম ৭৫ লাখ ৯০ হাজার ডলারে কিনে নেন ডিজাইনার স্টুয়ার্ট ওয়েটজম্যান।

/জেজে/

সম্পর্কিত

যুক্তরাষ্ট্রে ধসে পড়লো ১২ তলা ভবন, বহু হতাহতের আশঙ্কা

যুক্তরাষ্ট্রে ধসে পড়লো ১২ তলা ভবন, বহু হতাহতের আশঙ্কা

ল্যাবে তৈরি হলো ‘বুকের দুধ’!

ল্যাবে তৈরি হলো ‘বুকের দুধ’!

সফটওয়্যার মুঘল জন ম্যাকএ্যাফির মরদেহ উদ্ধার

সফটওয়্যার মুঘল জন ম্যাকএ্যাফির মরদেহ উদ্ধার

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পরিদর্শন করবেন কমলা হ্যারিস

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পরিদর্শন করবেন কমলা হ্যারিস

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ছাড়লেন ওয়ারেন বাফেট

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ছাড়লেন ওয়ারেন বাফেট

ইরানের রাষ্ট্রীয় দুটি নিউজ ওয়েবসাইট জব্দ করলো যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের রাষ্ট্রীয় দুটি নিউজ ওয়েবসাইট জব্দ করলো যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি মোকাবিলায় বড় হুমকি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ফাউচি

যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি মোকাবিলায় বড় হুমকি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ফাউচি

হোয়াটসঅ্যাপে শপ ফিচার আনছে ফেসবুক

হোয়াটসঅ্যাপে শপ ফিচার আনছে ফেসবুক

বেলারুশের ওপর যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানডাসহ ইইউ’র নিষেধাজ্ঞা

বেলারুশের ওপর যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানডাসহ ইইউ’র নিষেধাজ্ঞা

করোনায় আক্রান্তদের গুয়ানতানামো পাঠাতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প

করোনায় আক্রান্তদের গুয়ানতানামো পাঠাতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প

আফগানিস্তান থেকে সামরিক উপস্থিতি প্রত্যাহার নিয়ে যা বললো পেন্টাগন

আফগানিস্তান থেকে সামরিক উপস্থিতি প্রত্যাহার নিয়ে যা বললো পেন্টাগন

সর্বশেষ

গ্রেফতারের সময় মারা গেলেন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সমালোচক

গ্রেফতারের সময় মারা গেলেন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সমালোচক

নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে শুরু হলো অনলাইন গার্লস ইনোভেশন বুটক্যাম্প

নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে শুরু হলো অনলাইন গার্লস ইনোভেশন বুটক্যাম্প

লকডাউন নয়, শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

লকডাউন নয়, শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ফ্রি চিকিৎসা পাচ্ছেন করোনা রোগীরা

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ফ্রি চিকিৎসা পাচ্ছেন করোনা রোগীরা

শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

শুধু লকডাউনে কাজ হবে? 

শুধু লকডাউনে কাজ হবে? 

হেঁচকি এবার বন্ধ হবেই!

হেঁচকি এবার বন্ধ হবেই!

মেজাজ হারিয়ে শাস্তি পেলেন মাহমুদউল্লাহ

মেজাজ হারিয়ে শাস্তি পেলেন মাহমুদউল্লাহ

ই-ভ্যালি নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে কী আছে?

ই-ভ্যালি নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে কী আছে?

১০ ই-কমার্সে কার্ড ব্যবহার স্থগিত করলো তিন ব্যাংক

১০ ই-কমার্সে কার্ড ব্যবহার স্থগিত করলো তিন ব্যাংক

অরিত্রীর আত্মহত্যা মামলা: সাক্ষ্যগ্রহণ ৪ জুলাই

অরিত্রীর আত্মহত্যা মামলা: সাক্ষ্যগ্রহণ ৪ জুলাই

শিক্ষায় ৪২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে ইইউ

শিক্ষায় ৪২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে ইইউ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে ধসে পড়লো ১২ তলা ভবন, বহু হতাহতের আশঙ্কা

যুক্তরাষ্ট্রে ধসে পড়লো ১২ তলা ভবন, বহু হতাহতের আশঙ্কা

ল্যাবে তৈরি হলো ‘বুকের দুধ’!

ল্যাবে তৈরি হলো ‘বুকের দুধ’!

সফটওয়্যার মুঘল জন ম্যাকএ্যাফির মরদেহ উদ্ধার

সফটওয়্যার মুঘল জন ম্যাকএ্যাফির মরদেহ উদ্ধার

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পরিদর্শন করবেন কমলা হ্যারিস

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পরিদর্শন করবেন কমলা হ্যারিস

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ছাড়লেন ওয়ারেন বাফেট

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ছাড়লেন ওয়ারেন বাফেট

ইরানের রাষ্ট্রীয় দুটি নিউজ ওয়েবসাইট জব্দ করলো যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের রাষ্ট্রীয় দুটি নিউজ ওয়েবসাইট জব্দ করলো যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি মোকাবিলায় বড় হুমকি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ফাউচি

যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি মোকাবিলায় বড় হুমকি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ফাউচি

হোয়াটসঅ্যাপে শপ ফিচার আনছে ফেসবুক

হোয়াটসঅ্যাপে শপ ফিচার আনছে ফেসবুক

বেলারুশের ওপর যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানডাসহ ইইউ’র নিষেধাজ্ঞা

বেলারুশের ওপর যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানডাসহ ইইউ’র নিষেধাজ্ঞা

© 2021 Bangla Tribune