X
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

রোহিঙ্গা শিবিরে তাহসান

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ১৭:২০

বিশ্ব শরণার্থী দিবস উপলক্ষে গতকাল (২০ জুন) কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরে গিয়েছিলেন সংগীত-অভিনয়শিল্পী তাহসান খান।

পাশাপাশি তিনি কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ইউএনএইচসিআরের সহায়তায় আইসিইউ (ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট বা নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) রোগীদের জন্য নির্মিত একটি ল্যাবরেটরি উদ্বোধন করেন।

তাহসান ইউএনএইচসিআরের বাংলাদেশে শুভেচ্ছাদূত। আর এ কারণেই তার এই ভ্রমণ বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাহসান বলেন, ‘এই আইসিইউটি কক্সবাজারের প্রথম। যা এক বছর আগে তৈরি হয়েছিল। শুধু এই এক বছরেই এটি অনেকের জীবন বাঁচিয়েছে। আজকের এই ল্যাবরেটরি সেবা যোগ করার মাধ্যমে আরো অনেক রোহিঙ্গা এবং স্থানীয় জনগণের জীবন রক্ষাকারী চিকিৎসা নিশ্চিত করা যাবে। এটি সারা বিশ্বের জন্যই একটি দারুণ উদাহরণ।’

জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশনার বলছে, বাংলাদেশ সারাবিশ্বকে দেখিয়েছে এক ইতিবাচক দৃষ্টান্ত। বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের প্রায় ৪ বছর ধরে শুধু আশ্রয়ই দেয়নি, এর সাথে জাতীয় কোভিড-১৯ কার্যক্রম ও টিকাদান কর্মসূচিতেও তাদের যুক্ত করা হয়েছে।

এদিকে, রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্য অবস্থা ছাড়াও তাহসান কথা বলেন তাদের সংস্কৃতি ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রম নিয়ে।

এ শিল্পী জানান, সেখানে চলচ্চিত্র ও সংগীত নিয়ে কাজ করছে একঝাঁক তরুণ। রোহিঙ্গাদের জন্য তৈরি হয়েছে ‌‘ওমর’স ফিল্ম স্কুল’।
সেখানে তারা গান, মিউজিক, ফটোগ্রাফি, ফিল্মের মাধ্যমে নিজস্ব সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য তুলে ধরছে।

/এম/

সম্পর্কিত

দেখা যাবে তাহসান-স্পর্শিয়ার থ্রিলার ‘ছক’

দেখা যাবে তাহসান-স্পর্শিয়ার থ্রিলার ‘ছক’

সারপ্রাইজ লাইভে এসে যা বললেন তাহসান-মিথিলা (ভিডিও)

সারপ্রাইজ লাইভে এসে যা বললেন তাহসান-মিথিলা (ভিডিও)

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

তাহসানের আগেই সারপ্রাইজ দিলেন জন!

তাহসানের আগেই সারপ্রাইজ দিলেন জন!

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২৩:৩১

দেশ বরেণ্য গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীরের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছে সংগীতের বড় মোর্চা ‘সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ’।

আজ (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় রাজধানীর খিলগাঁওয়ের তালতলা কবরস্থানে সংগঠনটি তাকে সশ্রদ্ধ বিদায় জানায়। এসময় উপস্থিত ছিলেন গীতিকবি সংঘ, মিউজিক কমপোজার্স সোসাইটি, সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ নিয়ে গঠিত নতুন এ সংগঠনটির নেতা ও নির্বাহী সদস্যরা।

ছিলেন সুরস্রষ্টা ও সংগীত পরিচালক মানাম আহমেদ, গীতিকবি আসিফ ইকবাল, সুরস্রষ্টা, সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী বাপ্পা মজুমদার, গীতিকবি জুলফিকার রাসেল এবং গীতিকবি ও কণ্ঠশিল্পী জয় শাহরিয়ার।

শ্রদ্ধাজ্ঞাপন শেষে মানাম আহমেদ বলেন, ‌‘ভিড় থাকায় করোনার মধ্যে আমরা শহীদ মিনারে যাইনি। যখন একেবারে ভিড় কম হয় সেসময়টা বেছে নিয়েছি। মাগরিবের নামাজের পর আমরা কবরস্থানে গিয়েছিলাম। শ্রদ্ধা নিবেদন ও উনার রুহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করেছি।’

মোনাজাতটি পরিচালনা করেন আসিফ ইকবাল।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৫ জুলাই মধ্যরাত থেকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন ফকির আলমগীর। ১৮ জুলাই চিকিৎসকেরা তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেয়। শুক্রবার (২৩ জুলাই) রাত ১০টা ৫৬ মিনিটে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

জানা গেছে, এর আগে ১৪ জুলাই ফকির আলমগীরের করোনাভাইরাস পজিটিভ ফল আসে। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

ফকির আলমগীর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম শিল্পী। তারও আগে থেকে তিনি শ্রমজীবী মানুষের জন্য গণসংগীত করে আসছিলেন। স্বাধীনতার পর পাশ্চাত্য সংগীতের সঙ্গে দেশজ সুরের মেলবন্ধন ঘটিয়ে বাংলা পপ গানের বিকাশে ভূমিকা রেখেছেন ফকির আলমগীর। 

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তার কণ্ঠের বেশ কয়েকটি গান দারুণ জনপ্রিয়তা পায়। এরমধ্যে ‘ও সখিনা’ গানটি এখনও মানুষের মুখে মুখে ফেরে। ১৯৮২ সালের বিটিভির ‘আনন্দমেলা’ অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারের পর দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলে। কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি গানটির সুরও করেছেন ফকির আলমগীর। 

তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা, গণসংগীত চর্চার আরেক সংগঠন গণসংগীতশিল্পী পরিষদের সাবেক সভাপতি। 

সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে সরকার তাকে একুশে পদক দিয়ে সম্মানিত করে।

/এম/

সম্পর্কিত

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা 

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা 

শেষ জন্মদিনে যে কথা দিয়েছিলেন অসহায়দের...

শেষ জন্মদিনে যে কথা দিয়েছিলেন অসহায়দের...

আর ‘সিনেমা’ বানাবে না জাজ, নতুন লক্ষ্য ওটিটি প্ল্যাটফর্ম

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৭:৫২

যুগের হাওয়ায় এবার যুক্ত হচ্ছে অভিযুক্ত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। দীর্ঘদিন কার্যক্রম স্থবির থাকার পর আবারও তারা সরব হয়েছে। তবে সেটি প্রেক্ষাগৃহের বাইরে! 

জানা যায়, দ্রুতই ওটিটি প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। সঙ্গে সিনেমা আর না বানানোর ঘোষণাও দিলেন আলোচিত প্রযোজক আজিজ।

এরমধ্যে নতুন চারটি ওয়েব সিরিজ নির্মাণে হাত দিয়েছে তারা। এছাড়া মুক্তির অপেক্ষা থাকা ও নির্মিতব্য আরও তিনটি চলচ্চিত্র আসবে ওটিটিতে।

ওয়েব সিরিজ ও ফিল্ম নির্মাণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রযোজক আবদুল আজিজ নিজেই।

ওয়েব সিরিজগুলোর নাম ‘অনুতাপ’, ‘পাপ’, ‘বারুদ’ ও ‘খোঁজ’। এরমধ্যে ‘অনুতাপ’ পরিচালনা করছেন সঞ্জয় সমদ্দার। ছবিগুলোর মধ্যে আছে ‘জ্বীন’, ‘এম.আর ৯’ ও ‘মাসুদ রানা’।

জাজ জানায়, জাজের ৩টি সিনেমা করোনার কারণে মুক্তি দিতে পারছে না। এগুলো বিগ বাজেটের। ২-৩ কোটি টাকার ওপর এগুলোর বাজেট। এত টাকা কোনোমতেই ৫০ হল থেকে উঠে আসবে না। তাই, জাজ এখন থেকে ওটিটির জন্য ওয়েব সিরিজ ও ওয়েব ফিল্ম বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চলতি জুলাই থেকেই নতুন করে অফিস সাজিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ফিরিয়ে আনা হয়েছে অনেক পুরনো কর্মীকে।

এমনকি ওয়েব সিরিজগুলোর জন্য বেছে নেওয়া হচ্ছে জাজের পুরনো শিল্পীদের। তালিকায় আছেন নুসরাত ফারিয়া, পূজা চেরি, সিয়াম, রোশানের মতো তরুণ তারকারা।

দেশ ও বিদেশে আত্মগোপনে থেকে পুরো বিষয়টি দেখভাল করছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আবদুল আজিজ। ফেসবুকের মাধ্যমে তিনি বলেন, ‘জাজ আর নতুন কোনও সিনেমা বানাচ্ছে না। কারণ তিনটি ছবি এরমধ্যে আটকে আছে। এখন থেকে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য ওয়েব সিরিজ ও ওয়েব ফিল্ম বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। ওয়েবের ক্ষেত্রেও জাজ তার পুরনো সুনামের সাথে কাজ করার চেষ্টা করবে।’  

জনতা ব্যাংকের ১ হাজার ৭০৮ কোটি টাকার ঋণখেলাপি মামলায় লম্বা সময় ধরে ধরাছোঁয়ার বাইরে আছেন এই প্রযোজক।

/এম/এমএম/

সম্পর্কিত

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

স্বামীর পর্নোগ্রাফি নিয়ে সাফাই গাইলেন শিল্পা!

স্বামীর পর্নোগ্রাফি নিয়ে সাফাই গাইলেন শিল্পা!

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

তালতলায় চিরনিন্দ্রায় শায়িত ফকির আলমগীর

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২১:২৮

হাসপাতালের মর্গ থেকে নির্ধারিত কবরস্থানের দূরত্ব যতোই হোক, সেটা অবধারিত। পরিকল্পনায় মাঝে ছিলো, খিলগাঁওয়ের পল্লীমা সংসদে প্রথম জানাজার বিরতি। কারণ, সেখানেই এই কিংবদন্তির নাগরিক তথা সংগীত জীবনের শুরু ও শেষ।

তবে শুক্রবার (২৩ জুলাই) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে এই সূচিতে খানিক পরিবর্তন এনেছেন পরিবারের সদস্যরা। কারণ, সরকার তথা শীর্ষরা চাইছিলেন সবার প্রিয় ফকির আলমগীরকে শেষ শ্রদ্ধা কিংবা বিদায়ের আনুষ্ঠানিকতা যথাযথ করতে। সিদ্ধান্ত হলো, শনিবার বেলা ১২টায় এই সূর্যসন্তানকে বিদায় জানানো হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে।

শনিবার ঠিক সকাল সাড়ে ১১টা থেকে শুরু হলো ঝিরঝির বৃষ্টি। যথাসময়ে এলেন জাতীয় পতাকা গায়ে জড়িয়ে, নিথর ফকির আলমগীর। গাড়ি থেকে বেদিতে আসার আর পথে ভিজলেন তিনিও। ভিজলো তার জন্য আগত শতাধিক বন্ধু-স্বজন-ভক্ত-মিডিয়া ও রাজনৈতিক নেতা-কর্মী। বিস্ময়, এতো এতো মুখের ভিড়ে উল্লেখ কিংবা অনুল্লেখযোগ্য কোনও সংগীতশিল্পীকে চোখে পড়েনি! হতে পারে প্রতিবেদকের বিভ্রম! তবে অন্যদের কাছেও খোঁজ মিলেছে, না সংগীতের কেউ আসেনি এদিন!

তবে এসেছেন রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অনেকেই। এরমধ্যে রয়েছেন গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মো. আখতারুজ্জামান, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সদস্যরাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সদস্যরা।

সরাসরি না এলেও গভীর শোক ও ফুলেল শ্রদ্ধার্ঘ্য পাঠিয়েছেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রীসহ অনেক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান। শুধু দেখা যায়নি সংগীতাঙ্গনের তেমন কোনও ব্যক্তিকে!  

ফকির আলমগীরের সহধর্মিণী সুরাইয়া আলমগীরের অবশ্য এসব নিয়ে আক্ষেপ বা ক্ষোভ নেই। বরং তিনি নাম ধরে ধরেই কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন বৃষ্টিতে ভিজে যারা এসেছেন। বলেছেন কিছু কষ্ট আর প্রত্যাশার কথাও। 

বললেন, ‘এই শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে আর ফকির আলমগীরের কণ্ঠে মুখরিত হবে না। তার মতো বিপ্লবী কণ্ঠে উদ্ভাসিত হবে না এই প্রান্তর। তিনি চলে গেছেন সব বন্ধন ছিন্ন করে। যে গণসংগীতের মশাল এতোদিন বয়ে চলেছেন ফকির আলমগীর, সেটি যেন এই প্রজন্ম রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব নেয় সেই প্রত্যাশা করছি। যেন এই ধারার সংগীতের মাধ্যমে মেহনতি মানুষের কথা বার বার উচ্চারিত হয়।’

সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে সুরাইয়া আলমগীর বলেন, ‘ফকির আলমগীর ছিলেন গণমানুষের শিল্পী। তিনি যেমন সাধারণ লোকের জন্য শত শত গান করেছেন, তেমনি মুক্তিযুদ্ধের সময় তার গান বীর যোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত করেছে। শোষণ, অন্যায়-অবিচারের কথা তিনি গানে গানে বলেছেন, তার মতো এমন বলিষ্ঠ কণ্ঠযোদ্ধাকে যেন পাঠ্য বইয়ে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। যেন নতুন প্রজন্ম তার মতো একজন আদর্শ শিল্পীকে চিনতে পারে।’

জানান, স্বাধীনতা পদক প্রাপ্তির জন্য ফকির আলমগীরের ভেতর একটা আফসোস ছিলো। মরণোত্তর হলেও সেটা যেন তাকে দেওয়া হয়, প্রধানমন্ত্রীর প্রতি সেই অনুরোধ জানালেন ফকির পত্নী সুরাইয়া। 

বেলা ১টা বাজার আগেই মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় খিলগাঁও মাটির মসজিদে। সেখানে জোহরের নামাজের পর দ্বিতীয় জানাজা শেষে তালতলা কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়। 

এর আগে সকাল ১১টায় খিলগাঁও পল্লীমা সংসদের মাঠে ফকির আলমগীরকে ‘গার্ড অব অনার’ দেয়া হয়।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) রাত ১০টা ৫৬ মিনিটের দিকে প্রাণ হারান নন্দিত গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৫ জুলাই মধ্যরাত থেকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন ফকির আলমগীর। ১৮ জুলাই চিকিৎসকেরা তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেয়। 

জানা গেছে, ১৪ জুলাই ফকির আলমগীরের করোনাভাইরাস পজিটিভ ফল আসে। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

ফকির আলমগীর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম শিল্পী। তারও আগে থেকে তিনি শ্রমজীবী মানুষের জন্য গণসংগীত করে আসছিলেন। স্বাধীনতার পর পাশ্চাত্য সংগীতের সঙ্গে দেশজ সুরের মেলবন্ধন ঘটিয়ে বাংলা পপ গানের বিকাশে ভূমিকা রেখেছেন ফকির আলমগীর। 

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তার কণ্ঠের বেশ কয়েকটি গান দারুণ জনপ্রিয়তা পায়। এরমধ্যে ‘ও সখিনা’ গানটি এখনও মানুষের মুখে মুখে ফেরে। ১৯৮২ সালের বিটিভির ‘আনন্দমেলা’ অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারের পর দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলে। কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি গানটির সুরও করেছেন ফকির আলমগীর। 

তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা, গণসংগীত চর্চার আরেক সংগঠন গণসংগীতশিল্পী পরিষদের সাবেক সভাপতি। 

সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে সরকার তাকে একুশে পদক দিয়ে সম্মানিত করে।

ছবি: সাজ্জাদ হোসেন

/এমএম/

সম্পর্কিত

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা 

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা 

শেষ জন্মদিনে যে কথা দিয়েছিলেন অসহায়দের...

শেষ জন্মদিনে যে কথা দিয়েছিলেন অসহায়দের...

স্বামীর পর্নোগ্রাফি নিয়ে সাফাই গাইলেন শিল্পা!

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৩:৫৩

স্বামী রাজ কুন্দ্রের ঘটনায় কদিন আগেই স্যোশাল মিডিয়ায় বেশ অভিমানী স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন শিল্পা শেঠি। বলেছিলেন পেছন ফিরে তাকানো বা ভবিষ্যৎ নিয়ে ভয় পাওয়ার পাত্রী নন তিনি। 

আজ শনিবার (২৪ জুলাই) আবার হঠাৎ সুর বদলে পক্ষ নিলেন স্বামীর। পর্নোগ্রাফির মামলায় আটক রাজ কুন্দ্রের বানানো ছবিগুলোকে পর্নোগ্রাফিক বলতে নারাজ তিনি। বললেন, ‘ওগুলো ইরোটিকা, পর্নো ছবি নয়। ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আরও ভুরি অশ্লীল কনটেন্ট আছে।’

শুক্রবার বিকালে শিল্পা ও রাজের বাড়িতে টানা ৬ ঘণ্টা তল্লাশি চালায় মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ। তল্লাশির সময় কয়েকটি ইলেকট্রনিক ডিভাইস জব্দ করে পুলিশ। এরপরই শিল্পার বক্তব্য নেয় তারা। তখনই শিল্পা বলেন এসব কথা।

যদিও রাজের ভিডিওচিত্র বানানোর সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততা বরাবরই অস্বীকার করে আসছেন শিল্পা, তথাপি তিনি এগুলোকে মোটেও পর্নোগ্রাফিক বলছেন না। তার মতে এগুলো হলো ইরোটিকা তথা যৌন উদ্দীপক শিল্প।

অন্যদিকে, রাজ কুন্দ্রও তার ‍বিরুদ্ধে আনা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে চলেছেন। এমনকি তিনি তার গ্রেফতারের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করেছেন ভারতের হাইকোর্টে। মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, তারা এবার রাজের ভিডিও বাণিজ্যের সঙ্গে শিল্পা শেঠির ব্যাংক হিসাবের সম্পর্ক আছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখবে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

/এফএ/এমএম/

সম্পর্কিত

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

আর ‘সিনেমা’ বানাবে না জাজ, নতুন লক্ষ্য ওটিটি প্ল্যাটফর্ম

আর ‘সিনেমা’ বানাবে না জাজ, নতুন লক্ষ্য ওটিটি প্ল্যাটফর্ম

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৫:০৭

ঝুম বৃষ্টি উপেক্ষা করে পূর্বনির্ধারিত সময়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গেলেন গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর। একইভাবে তাকে শেষ শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাতে কিংবা একনজর দেখার আশায় ভিড় জমিয়েছেন অসংখ্য ভক্ত-স্বজন।

শনিবার (২৪ জুলাই) বেলা ঠিক ১২টায় ফকির আলমগীরের নিথর দেহ বহন করা অ্যাম্বুলেন্সটি এসে থামে শহীদ মিনারের কৃষ্ণচূড়া গাছের নিচে। তারও আগেই উপস্থিত অনেকেই। কারও হাতে ফুলের তোড়া, কারও মাথায় ছাতা। শহীদ মিনারের বেদিতে ফকির আলমগীরের জন্য সব গুছিয়ে রেখেছিল সম্মিলত সাংস্কৃতিক জোট।

ছবি: সাজ্জাদ হোসাইন ফকির আলমগীর শহীদ মিনারে পৌঁছানোর পর চলমান বৃষ্টির গতি যেন আরও বাড়লো। বললেন সেখানে আগত ফকির ভক্ত হক ফারুক।

ফকির আলমগীরের ছেলে মাশুক আলমগীর রাজীব বলেন, ‘বাবাকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ১টা পর্যন্ত এখানে রাখা হবে। এরপর বাদ জোহর তালতলা কবরস্থানে দাফন করা হবে।’ 

এর আগে শনিবার বেলা ১১টার দিকে খিলগাঁওয়ের পল্লীমা সংসদে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) রাত ১০টা ৫৬ মিনিটের দিকে প্রাণ হারান নন্দিত গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৫ জুলাই মধ্যরাত থেকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন ফকির আলমগীর। ১৮ জুলাই চিকিৎসকেরা তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেয়। 

জানা গেছে, ১৪ জুলাই ফকির আলমগীরের করোনাভাইরাস পজিটিভ ফল আসে। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

ফকির আলমগীর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম শিল্পী। তারও আগে থেকে তিনি শ্রমজীবী মানুষের জন্য গণসংগীত করে আসছিলেন। স্বাধীনতার পর পাশ্চাত্য সংগীতের সঙ্গে দেশজ সুরের মেলবন্ধন ঘটিয়ে বাংলা পপ গানের বিকাশে ভূমিকা রেখেছেন ফকির আলমগীর। 

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তার কণ্ঠের বেশ কয়েকটি গান দারুণ জনপ্রিয়তা পায়। এরমধ্যে ‘ও সখিনা’ গানটি এখনও মানুষের মুখে মুখে ফেরে। ১৯৮২ সালের বিটিভির ‘আনন্দমেলা’ অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারের পর দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলে। কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি গানটির সুরও করেছেন ফকির আলমগীর। 

ছবি: সাজ্জাদ হোসাইন তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা, গণসংগীত চর্চার আরেক সংগঠন গণসংগীতশিল্পী পরিষদের সাবেক সভাপতি। 

সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে সরকার তাকে একুশে পদক দিয়ে সম্মানিত করে।


 

 

/এমএম/

সম্পর্কিত

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

বৃষ্টিতে ভিজে এলেন তিনি, ছাতা নিয়েও আসেনি কেউ...

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা 

শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা 

শেষ জন্মদিনে যে কথা দিয়েছিলেন অসহায়দের...

শেষ জন্মদিনে যে কথা দিয়েছিলেন অসহায়দের...

সর্বশেষ

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

সিরিয়ায় হামলায় তুর্কি সেনা নিহত, আঙ্কারার হুঁশিয়ারি

সিরিয়ায় হামলায় তুর্কি সেনা নিহত, আঙ্কারার হুঁশিয়ারি

লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল দেশে দেশে

লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল দেশে দেশে

ভূমধ্যসাগরে ৫৭৬ অভিবাসন প্রত্যাশী উদ্ধার

ভূমধ্যসাগরে ৫৭৬ অভিবাসন প্রত্যাশী উদ্ধার

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

১৫৫ কিলোমিটার বেগে চীনে আঘাত হানছে টাইফুন 'ইন-ফা'

১৫৫ কিলোমিটার বেগে চীনে আঘাত হানছে টাইফুন 'ইন-ফা'

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ময়মনসিংহে ৪৩৫টি মামলা

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ময়মনসিংহে ৪৩৫টি মামলা

মাছটি বিক্রি হলো সাড়ে ৪ লাখ টাকায়

মাছটি বিক্রি হলো সাড়ে ৪ লাখ টাকায়

শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৭০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার

শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৭০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

খেলায় লাল কার্ড দেখানো নিয়ে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

খেলায় লাল কার্ড দেখানো নিয়ে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দেখা যাবে তাহসান-স্পর্শিয়ার থ্রিলার ‘ছক’

দেখা যাবে তাহসান-স্পর্শিয়ার থ্রিলার ‘ছক’

সারপ্রাইজ লাইভে এসে যা বললেন তাহসান-মিথিলা (ভিডিও)

সারপ্রাইজ লাইভে এসে যা বললেন তাহসান-মিথিলা (ভিডিও)

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

তাহসানের আগেই সারপ্রাইজ দিলেন জন!

তাহসানের আগেই সারপ্রাইজ দিলেন জন!

অন্তর্জালে তাহসান-মিথিলার ‘শনিবার সারপ্রাইজ’ রহস্য!

অন্তর্জালে তাহসান-মিথিলার ‘শনিবার সারপ্রাইজ’ রহস্য!

নতুন কাজে পাওয়া যাবে না তাহসানকে!

নতুন কাজে পাওয়া যাবে না তাহসানকে!

© 2021 Bangla Tribune