X
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সাতক্ষীরার এক হাসপাতালেই ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু

আপডেট : ০৭ জুলাই ২০২১, ১৫:০০

গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১১১ জন।

মৃতরা হলেন- সাতক্ষীরা পৌরসভার কামালনগর এলাকার দেলদার রহমানের ছেলে মাহাবুবার রহমান (৭০), সদরের আলিপুর এলাকার সাদ্দাম হোসেনের স্ত্রী নাজমুন নাহার (৩০), তালার খলিষখালির দুদল এলাকার ফাতেমা (৬৫), যশোরের কেশবপুরের মাগুরডাঙ্গা এলাকার প্রবিরের মেয়ে ডলি (৩৭), সদরের রামেরডাঙ্গা এলাকার ইসমাইলের ছেলে জুলফিকার আলী (৫৯), আশাশুনির বামনতলা এলাকার ওয়াজেদ আলীর ছেলে লুৎফর রহমান, দেবহাটার মিলনের স্ত্রী শাহনাজ (৩২), কলারোয়ার গোলাম রসুলের স্ত্রী রহিমা ( ৫০) ও তালার ইসলামকাটি এলাকার মুকুল দাশের ছেলে শোবিন্দ দাস। 

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে গত ৬ জুন থেকে ৬ জুলাইয়ের মধ্যে হাসপাতালটির ফ্লু কর্নার ও করোনা ইউনিটে ভর্তি হন তারা। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় ৭৫ ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৩৮৬ জন।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল কর্মকর্তা ও জেলা করোনা বিষয়ক তথ্য কর্মকর্তা ডা. জয়ন্ত কুমার সরকার বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিক্যালে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ৪০৬টি নমুনা পরীক্ষায় ১১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ২৭.৩৪ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ৬৭ জন।

তিনি আরও বলেন, এ পর্যন্ত জেলায় তিন হাজার ৫৫৩ জন ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৭৮৯ জন। বর্তমানে জেলায় করোনা রোগী আছেন এক হাজার ৪২ জন। সদর হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২১, হোম আইসোলেশনে আছে এক হাজার ৯, বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৪১৭ জন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, এসএমএস করে ডেকেছিল ‘প্রেমিক’

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, এসএমএস করে ডেকেছিল ‘প্রেমিক’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৫৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলা ও পৌর যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল করেছেন যুবদলের নেতাকর্মীরা। রবিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে আখাউড়া পৌর এলাকার তারাগন এলাকায় এই বিক্ষোভ মিছিল করা হয়।

এ সময় যুবদলের নেতাকর্মীরা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একান্ত সচিব আব্দুর রহমান সানী এবং তার বড় ভাই ভূঁইয়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কবির আহমেদ ভূঁইয়ার কুশপুত্তলিকা দাহ করেন।

জানা গেছে, পূর্ব ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুযায়ী বেলা ১১টার দিকে আখাউড়া যুবদলের নেতাকর্মীরা তারাগন মাঝার এলাকা থেকে ব্যানার ফেস্টুনসহ এই মিছিল বের করেন। পরে মিছিলটি এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বিক্ষোভ মিছিলে আখাউড়া উপজেলা যুবদল নেতা মামুন আহমেদ, জাহাঙ্গীর আলম রানা, মোবাশ্বির আহসান, এফ এ ফোরকান জানান, গত ১২ জুন আখাউড়া উপজেলা যুবদলের পকেট কমিটি অনুমোদন করা হয়। এর তিন মাস পর ১২ সেপ্টেম্বর কমিটি ফেসবুকের মাধ্যমে যুবদলের নতুন কমিটি ঘোষণা করে। তারা এ ঘটনার জন্য আব্দুর রহমান সানী এবং তার বড় ভাই কবির আহমেদ ভূঁইয়াকে দায়ী করে বলেন, ‘মোটা অংকের অর্থ বাণিজ্যের মাধ্যমে সানীর মাধ্যমে তারেক রহমানের নাম ভাঙিয়ে কবির আহমেদ ভূঁইয়া আখাউড়া উপজেলা যুবদলের নতুন কমিটি ঘোষণা করেছেন। কমিটিতে যাদের নাম আছে আখাউড়া উপজেলায় তাদের কোনও অবস্থান নেই।’ তারা অবিলম্বে আগামী সাত দিনের মধ্যে এই পকেট কমিটি বাতিলের দাবি জানান। তা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তারা।

এ সময় আব্দুর রহমান সানী এবং কবির আহমেদ ভূঁইয়াকে আখাউড়ায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন উপজেলা যুবদলের নেতারা। পরে সাংবাদিক সম্মেলনে তারা বিভিন্ন দাবি-দাওয়া পেশ করেন।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

১০ মিনিটে আদালতের কাজ শেষে কারাগারে মামুনুল-সাইফুল্লাহ 

১০ মিনিটে আদালতের কাজ শেষে কারাগারে মামুনুল-সাইফুল্লাহ 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস খুলছে ১ অক্টোবর

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩২

প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাস খুলছে। আগামী ১ অক্টোবর থেকে ছাত্রাবাসে উঠতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। তাদেরকে কলেজ কর্তৃপক্ষের কঠোর নির্দেশনা মানতে হবে। 

এমসি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সালেহ আহমদ জানান, এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে শিক্ষার্থী ছাড়া বহিরাগতদের প্রবেশ ও অবস্থান সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কোনও হোস্টেলে বহিরাগত পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে কলেজ প্রশাসন। 

তিনি আরও জানান, করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এলে শিক্ষার্থীরা ছাত্রাবাসে উঠতে পারবেন। হোস্টেলে ওঠা শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত জিনিসপত্র জীবাণুমুক্ত রাখা, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ এবং ডেঙ্গু সংক্রমণ ও এডিস মশা বিস্তাররোধে স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাইডলাইন অনুসরণসহ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর কর্তৃক আরোপিত ১০টি নির্দেশনা উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ছাত্রাবাসের ফি কমানো হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ২০২০-২১ অর্থবছরে ৫৪৪ টাকা ফি দিয়ে থাকতে পারবেন। এ ছাড়া ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য সাড়ে তিন হাজার টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধায়ক মো. জামাল উদ্দিন জানান, ছাত্রাবাস খোলার পর শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধিসহ ছাত্রাবাসের সার্বিক বিষয় কঠোর নজরদারি করা হবে। 

আরও পড়ুন—
এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পুকুরে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

পুকুরে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

পুকুরে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৭

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলায় পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার বামৈ ইউনিয়নের গোপীহাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলো—গোপীহাটি গ্রামের উজ্জল মিয়ার মেয়ে মাহি (৮) ও তিশা (৭)। 

স্থানীয়রা জানায়, রবিবার সকালে মাহি ও তিশা মায়ের সঙ্গে পুকুরে যায়। মা কাপড় ধোয়া শেষে বাড়ি ফিরে আসে। এদিকে গোসলে নেমে পানিতে ডুবে যায় তিশা। তাকে উদ্ধার করতে মাহিও ডুবে যায়। বাড়িতে ফিরে মা দেখেন, তারা বাড়ি ফেরেনি। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর দুপুরে তাদের লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা।

লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুল ইসলাম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। দুই শিশুর লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন করেছে পুলিশ।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস খুলছে ১ অক্টোবর

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস খুলছে ১ অক্টোবর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

ট্রেনের ছাদে নিয়মিত ডাকাতি করতো রিশাদরা

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:০৮

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জামালপুরগামী বেসরকারি কমিউটর ট্রেনে ডাকাতি ও দুই যাত্রীকে হত্যার ঘটনায় জড়িতরা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্য। তারা ট্রেনে নিয়মিত ডাকাতি এবং ছিনতাইয়ের কাজ করে আসছিল। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা জানান ময়মনসিংহের র‌্যাব-১৪ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার রোকনুজ্জামান। 

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ছয় জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরমধ্যে রবিবার ভোররাতে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যদের হাতে পাঁচ জন গ্রেফতার হন। পাঁচ জনের মধ্যে রয়েছেন ময়মনসিংহ সদরের আশরাফুল ইসলাম স্বাধীন (২৬) , বাগমারা এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে মাকসুদুল হক রিশাদ (২৮), একই এলাকার সাব্বির খানের ছেলে হাসান (২২), আরশাদ আলীর ছেলে রুবেল মিয়া (৩১) ও সাব্বির খানের ছেলে মোহাম্মদ (২৫)।

ট্রেনে ডাকাতির সময় হত্যার ঘটনায় মামলা


 র‌্যাব কর্মকর্তা রোকনুজ্জামান বলেন, মামলার পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ সদরের শিকারিকান্দা এলাকা থেকে আশরাফুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে লুণ্ঠিত মোবাইল উদ্ধার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যমতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে বাকি চার জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার হওয়া মোহাম্মদের দেওয়া তথ্যে ডাকাতির কাজে নিয়োজিত অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।
 
তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা জানিয়েছে ডাকাতির উদ্দেশে কমলাপুর স্টেশন থেকে চার জন এবং রিশাদ, হাসান ও স্বাধীন টঙ্গী থেকে ট্রেনে উঠে। ট্রেন গফরগাঁওয়ের ফাতেমানগর স্টেশনে পৌঁছালে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় মোহাম্মদ ও আরও এক সহযোগী। ফাতেমানগর থেকে ট্রেন ছাড়ার পর ইঞ্জিনের পরের প্রথম বগির ছাদে উঠে যাত্রীদের কাছ থেকে মোবাইলফোন এবং মানিব্যাগসহ টাকা লুট করে নেয় তারা। ডাকাতি চলাকালে নিহত নাহিদ ও সাগর মিয়া বাধা দিলে তাদের কাছে থাকা অস্ত্র দিয়ে দু’জনের মাথায় এলোপাতাড়ি আঘাত করে। ডাকাত দলের আঘাতে নাহিদ ও সাগর ছাদে লুটিয়ে পড়ে। এরপর ডাকাত দলের সদস্যরা ময়মনসিংহ রেলওয়ে স্টেশনে আসার আগেই সিগনালে ট্রেনের গতি কমে এলে নেমে পড়েন।

চলন্ত ট্রেনে ডাকাতি-হত্যা: গ্রেফতার আরও ৫

উইং কমান্ডার রোকনুজ্জামান আরও জানান, গ্রেফতার সবাই নিয়মিত ডাকাতি এবং ছিনতাইয়ের কাজে জড়িত। আর তাদের লিডার মাকসুদুল হক রিশাদ। তার নেতৃত্বে ডাকাতি এবং ছিনতাই চলতো। ডাকাতি করার সময় লুণ্ঠিত মোবাইল অল্প দামে মোহাম্মদ ও রুবেল কিনে নিয়ে বেশি দামে বিক্রি করতো। মোহাম্মদ ও রুবেল ছিল ডাকাত দলের পৃষ্ঠপোষক।

ডাকাতি এবং খুনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানান তিনি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

চলন্ত ট্রেনে ডাকাতি-হত্যা: গ্রেফতার আরও ৫

চলন্ত ট্রেনে ডাকাতি-হত্যা: গ্রেফতার আরও ৫

সেতুতে গর্ত, ঝুঁকি নিয়ে পারাপার  

সেতুতে গর্ত, ঝুঁকি নিয়ে পারাপার  

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে একদিনে আরও ৮ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে একদিনে আরও ৮ মৃত্যু

‘দুই মেয়ে ইভটিজিংয়ের শিকার হচ্ছে, রেহাই পাবো কবে?’

‘দুই মেয়ে ইভটিজিংয়ের শিকার হচ্ছে, রেহাই পাবো কবে?’

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির তিন শীর্ষ নেতার জামিন

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:০২

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় রাজশাহী বিএনপির শীর্ষ তিন নেতাকে জামিন দিয়েছেন আদালত। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ এ এইচ এম ইলিয়াস হোসাইন তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

জামিন পাওয়া নেতারা হলেন– বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক মেয়র, সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিনু; রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল এবং মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন। রবিবার দুপুরে তাদের পক্ষে আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী আলী আশরাফ মাসুম জানান, দুপুর দেড়টার দিকে নগর বিএনপির তিন শীর্ষ নেতা মহানগর আদালতে আত্মসর্মপণ করেন। বিচারক উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ২ মার্চ রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে এ মামলা করা হয়। মামলায় বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এবং এই তিন নেতার বিরুদ্ধে রাজশাহী জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসকের কাছে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন করে মহানগর আওয়ামী লীগ। জেলা প্রশাসক সেটি অনুমোদনের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠান। এরপর গত ১৬ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে মামলাটি অনুমোদিত হয়ে আসে। ৩১ মার্চ রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুসাব্বিরুল ইসলাম বাদী হয়ে এই মামলা করেন। মামলায় গত ২৬ আগস্ট উচ্চ আদালত থেকে চার সপ্তাহের আগাম জামিন পান অভিযুক্তরা।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

৪ ঘণ্টা পর পাবনা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

৪ ঘণ্টা পর পাবনা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

১১ লাখ টাকার অর্ডার নিয়ে প্রতারণা, ধামাকার ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

১১ লাখ টাকার অর্ডার নিয়ে প্রতারণা, ধামাকার ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

প্রাণ দিয়েছেন, তবু মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়েননি এএসআই পেয়ারুল

প্রাণ দিয়েছেন, তবু মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়েননি এএসআই পেয়ারুল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, এসএমএস করে ডেকেছিল ‘প্রেমিক’

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, এসএমএস করে ডেকেছিল ‘প্রেমিক’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

যশোরের ১৯ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সিলগালা

যশোরের ১৯ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সিলগালা

ভারতে গেলো আরও ১৮৬ মেট্রিক টন ইলিশ

ভারতে গেলো আরও ১৮৬ মেট্রিক টন ইলিশ

তাবলিগে আসা ১৩ মুসল্লি অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে

তাবলিগে আসা ১৩ মুসল্লি অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে

অগ্রসর হচ্ছে নিম্নচাপ ‘গুলাব’, সতর্ক অবস্থানে স্বেচ্ছাসেবকরা

অগ্রসর হচ্ছে নিম্নচাপ ‘গুলাব’, সতর্ক অবস্থানে স্বেচ্ছাসেবকরা

ব্রেক করলেই উঠে যাচ্ছে ৩২১ কোটি টাকার সড়কের কার্পেটিং

ব্রেক করলেই উঠে যাচ্ছে ৩২১ কোটি টাকার সড়কের কার্পেটিং

ইমামের বক্তব্য নিয়ে জুমা শেষে সংঘর্ষ, হাসপাতালে ২১

ইমামের বক্তব্য নিয়ে জুমা শেষে সংঘর্ষ, হাসপাতালে ২১

সর্বশেষ

এলো বলিউড ‌‘খুফিয়া’র টিজার, নেই বাংলাদেশের কেউ

এলো বলিউড ‌‘খুফিয়া’র টিজার, নেই বাংলাদেশের কেউ

ডা. সাবরিনাসহ আট জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১৮ অক্টোবর

ডা. সাবরিনাসহ আট জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১৮ অক্টোবর

আইসোলেশন কাটিয়ে শিকারে পুতিন

আইসোলেশন কাটিয়ে শিকারে পুতিন

ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ

ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ

টানা চতুর্থ দিনের মতো বরিশালে করোনায় মৃত্যু নেই

টানা চতুর্থ দিনের মতো বরিশালে করোনায় মৃত্যু নেই

© 2021 Bangla Tribune