X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

চাঁদপুর ঘাটে যাত্রীর ঢল, লঞ্চ চলাচল বন্ধ 

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২১, ১৪:৫১

চাঁদপুর ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশে লঞ্চ ছাড়া বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। রবিবার (১ আগস্ট) সকাল ৬টা থেকে শুরু হয়ে ১১টা পর্যন্ত চাঁদপুর টার্মিনাল থেকে যাত্রী নিয়ে ৯টি লঞ্চ ছেড়ে যায়। অতিরিক্ত যাত্রীর চাপে কয়েকটি লঞ্চে স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা যায়নি। সকাল ৯টার পর চাঁদপুর ঘাটে যাত্রীদের ভিড় বাড়ে। তবে লঞ্চ সংকট এবং সময়সীমা শেষ হওয়ায় লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। বেলা ১১টার পর চাঁদপুর ঘাট থেকে লঞ্চ ছেড়ে যাওয়া বন্ধ ঘোষণা করে বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ।

চাঁদপুর বন্দর কর্মকর্তা কায়সারুল ইসলাম বলেন, নির্দেশনা অনুযায়ী রাত থেকে লঞ্চ চলাচলের কথা থাকলেও যাত্রী না হওয়ায় রাতে চাঁদপুর থেকে কোনও লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। তবে সকাল ৫টার পর থেকে ১১টা পর্যন্ত চাঁদপুর লঞ্চঘাট থেকে ৯টি লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। সকাল থেকে ৯টা পর্যন্ত পরিস্থিতি কিছুটা ভালো ছিল। কিন্তু এরপর যাত্রীদের চাপ বেড়ে যাওয়ায় তাদের কোনোভাবেই বিধি-নিষেধ মানানো যায়নি। লঞ্চের ক্রাইসিস থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়। সর্বশেষ ১১টায় সোনারতরী-২ লঞ্চটি ছেড়ে যায়। এরপর চাঁদপুর থেকে আর কোনও লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। একটি লঞ্চ আছে। তবে যে পরিমাণ যাত্রী ঘাটে আছে- এ লঞ্চটি চালালে সকল যাত্রীই তাতে উঠবে। এতে করে ওভারলোডেড হয়ে দুর্ঘটনার আশঙ্কা তৈরি হবে। এ কারণে ১১টার পর আর কোনও লঞ্চ না ছাড়ার নির্দেশনা দিয়েছি। তাছাড়া সরকারি নির্দেশনাও এরকমই।

তিনি বলেন, হঠাৎ লঞ্চ চলাচলের ঘোষণা আসায় সব লঞ্চের স্টাফরা পুরোপুরি প্রস্তুত ছিল না। যে কারণে সব লঞ্চ চালানো সম্ভব হয়নি।

ঘাট ঘুরে দেখা গেছে, চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রীর চাপ রয়েছে। যে কারণে অনেক যাত্রীকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লঞ্চঘাটে অপেক্ষা করতে হয়। তবে অন্যবারের তুলনায় লঞ্চঘাটে এবার প্রশাসন কঠোর অবস্থানে রয়েছে। সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিআইডব্লিউটিএ, পুলিশ ও কোস্টগার্ড সদস্যরা ঘাটে অবস্থান নেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘাট থেকে প্রত্যেকটি লঞ্চ ছেড়ে গেছে বলে দাবি করেছে লঞ্চ মালিক কর্তৃপক্ষ। যদিও শেষ পর্যন্ত যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মানানো যায়নি। লঞ্চ কম হওয়ায় কয়েকটি লঞ্চেই যাত্রীরা ঠাসাঠাসি করে উঠেছেন।

এর আগে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহম্মদ মেজবাহ্ উদ্দিন চৌধুরী জানান, শুধু একদিনের জন্য লঞ্চ চলাচলের অনুমতি দিয়েছে সরকার। এ সময় লঞ্চগুলো গার্মেন্টস শ্রমিকদের পরিবহনের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেবে।

তিনি আরও বলেছিলেন, শনিবার (৩১ জুলাই) রাত থেকে সুবিধাজনক সময়ে স্ব স্ব ঘাট থেকে লঞ্চগুলো ছাড়বে। এ বিষয়ে মালিকরাই প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেবেন। রবিবার (১ আগস্ট) বেলা ১২টার মধ্যে যেন সদরঘাটে এসে পৌঁছাতে পারে সে অনুযায়ী লঞ্চগুলো ছাড়া হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

গণমাধ্যম নিয়ে যা বললেন নওফেল

গণমাধ্যম নিয়ে যা বললেন নওফেল

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

উপজেলা চেয়ারম্যানকে বরখাস্তের আদেশ অবৈধ ঘোষণা

উপজেলা চেয়ারম্যানকে বরখাস্তের আদেশ অবৈধ ঘোষণা

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৩০

বঙ্গোপসাগরের কক্সবাজার উপকূল থেকে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ পাঁচজনকে আটক করেছে র‍্যাব-১৫। এ সময় পাচার কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রলার জব্দ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে গভীর সমুদ্র এলাকা থেকে ইয়াবাসহ তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতারা হলেন-রশিদ উল্লাহ, আমানত করিম, নাছির উদ্দিন ও ছৈয়দুর রহমান।

র‍্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে গভীর সমুদ্র এলাকায় কক্সবাজার র‍্যাব-১৫ উপ অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার তানভীর হাসান ও মেজর শেখ মোহাম্মদ ইউসূফের নেতৃত্বে একটি মাছ ধরার ট্রলার চিহ্নিত করা হয়। তারপর ধাওয়া করে সেই ট্রলারে সাড়ে চার লাখ ইয়াবা পাওয়া যায়।

তানভীর হাসান বলেন, গত এক সপ্তাহ আগে থেকে ইয়াবা পাচারকারী চক্রের ওপর নজর রাখছিল র‍্যাব। সেই চক্রের একটি চালান আসার খবরে গভীর সমুদ্রে অভিযান চালানো হয়। অভিযান চালিয়ে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

উখিয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’, নিহত ১

উখিয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’, নিহত ১

টেকনাফে ১০ কোটি টাকার আইস উদ্ধার

টেকনাফে ১০ কোটি টাকার আইস উদ্ধার

এক জালেই ১৫ মণ লাল কোরাল

এক জালেই ১৫ মণ লাল কোরাল

সিনহা হত্যা: গোয়েন্দা সংস্থার তদন্ত প্রতিবেদন চায় আসামিপক্ষ

সিনহা হত্যা: গোয়েন্দা সংস্থার তদন্ত প্রতিবেদন চায় আসামিপক্ষ

অন্যজনের সঙ্গে স্ত্রীর প্রেমের অভিযোগে স্বামীর 'আত্মহত্যা'

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৩৩

কুমিল্লায় অন্যজনের সঙ্গে স্ত্রীর প্রেমের সম্পর্ক থাকার অভিযোগে ক্ষোভ-অভিমানে এমরান হোসেন মুন্না (২৯) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। গত বুধবার সন্ধ্যায় নগরীর বারপাড়া এলাকায় নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচণার অভিযোগ এনে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন মুন্নার বাবা মো. মতিউর রহমান।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লা কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউটে (বর্তমানে সরকারি সিটি কলেজ) পড়তেন মুন্না ও তার স্ত্রী। দুই জন এক বছরের সিনিয়র-জুনিয়র। এ সময় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর ২০১৮ সালের ২৫ জানুয়ারি বিয়ে হয়। বিয়ের বছর খানেক পর থেকেই পারিবারিক জীবনে টানাপড়েন শুরু হয়। ঢাকায় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতেন তার স্ত্রী। এই সুবাদে বেশিরভাগ সময় ঢাকাতেই থাকতেন। কুমিল্লায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি শুরু করেন মুন্না। পরে চাকরি ছেড়ে কুমিল্লাতে ঠিকাদারি ব্যবসা শুরু করেন। দিন দিন তাদের সম্পর্কে ফাটল ধরে।

মুন্নার পরিবারের অভিযোগ, ঢাকায় একজনের সঙ্গে ওই নারীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর থেকে মুন্নাকে বিভিন্নভাবে মানসিক নির্যাতন করতেন তিনি। চাহিদা মতো টাকা দিতে না পারার অভিযোগে মুন্নাকে মরে যাওয়ার কথাও বলতেন। এতে আরও মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন মুন্না। গত বুধবার আত্মহত্যার প্রস্তুতি নিয়ে স্ত্রীকে ছবি পাঠান। এরপর নিজ কক্ষে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন মুন্না। পরিবারের লোকজন টের পেয়ে দরজা ভেঙে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল বাদ জোহর জানাজার পর তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনয়ারুল আজিম জানান, মুন্নার পরিবার আত্মহত্যার প্ররোচণার মামলা করেছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

বই ছেড়ে সংসার জীবনে ৩০ শতাংশ ছাত্রী 

বই ছেড়ে সংসার জীবনে ৩০ শতাংশ ছাত্রী 

কুবির বাস স্টাফকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালো ‘অ্যাম্বুলেন্স সিন্ডিকেট’ 

কুবির বাস স্টাফকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালো ‘অ্যাম্বুলেন্স সিন্ডিকেট’ 

ফেসবুক লাইভে এসে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

ফেসবুক লাইভে এসে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

কুমিল্লায় হচ্ছে ১১০০ উপানুষ্ঠানিক প্রাথমিক বিদ্যালয়

কুমিল্লায় হচ্ছে ১১০০ উপানুষ্ঠানিক প্রাথমিক বিদ্যালয়

ছাত্রাবাস থেকে পাবিপ্রবি ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৯

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) এক ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম তাহমিদুর রহমান জামিল (২২)। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শাহীবাগ এলাকার বজলার রহমানের ছেলে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে পাবনা শহরের একটি ছাত্রাবাস থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় কক্ষ থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, শহরের শালগাড়িয়া মেরিল বাইপাস এলাকার সাফল্য ছাত্রাবাসে থাকতেন জামিল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর তার কোনও সাড়া-শব্দ পাননি সহপাঠীরা। পরে কক্ষের দরজা খুলে তাকে ফ্যানের হুকের সঙ্গে ব্যাগের বেল্ট গলায় পেঁচানো অবস্থায় ঝুলতে দেখে থানায় খবর দেন তারা। পরে পুলিশ পৌঁছে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

তিনি আরও জানান, জামিলের কক্ষ থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে ‘বাবা-মা ক্ষমা করো, গুড বাই’ এ রকম কিছু কথা লেখা রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মাধ্যমে পরিবারের কাছে তার লাশ হস্তান্তর করা হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়, আরএমপির ৬ সদস্য বরখাস্ত

মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়, আরএমপির ৬ সদস্য বরখাস্ত

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির ৩ শীর্ষ নেতার আত্মসমর্পণ

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির ৩ শীর্ষ নেতার আত্মসমর্পণ

হাটে টোল বেশি নেওয়ায় লাখ টাকা জরিমানা

হাটে টোল বেশি নেওয়ায় লাখ টাকা জরিমানা

সাবেক প্রধান শিক্ষককে হত্যার আসামি গ্রেফতার

সাবেক প্রধান শিক্ষককে হত্যার আসামি গ্রেফতার

বসতঘরে মিললো ১৬ বিষধর সাপ

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:২৯

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার কাঠালবাড়িয়া গ্রামের একটি মাটির বসতঘর থেকে ১৬টি বিষধর কেউটে সাপ ও ১৪টি ডিম পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের কাঠালবাড়িয়া গ্রামের বিনয় রঞ্জন মন্ডলের বাড়ির দেওয়াল খুঁড়ে এগুলো উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের পর সাপগুলো মেরে ফেলা হয়েছে এবং ডিম নষ্ট করা হয়েছে।

বিনয় রঞ্জন জানান, বৃহস্পতিবার মাটির ঘরের দেওয়াল থেকে একটি কেউটে সাপের বাচ্চা বের হতে দেখে স্থানীয়রা। তারা কেউটের বাচ্চাটিকে লাঠির আঘাতে মেরে ফেলে। এরপর দেওয়াল ভেঙে একে একে ১৬টি কেউটের বাচ্চা উদ্ধার করা হয়। সেখানে আরও ১৪টি কেউটের ডিম পাওয়া যায়।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর একই ঘরের খাটের নিচ থেকে সাড়ে চার হাত লম্বা একটি কেউটে সাপ দেখতে পাওয়া যায়। পরে সেটাকে মেরে ফেলেন বাড়ির মালিক।

মুন্সীগঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মোড়ল বলেন, বিনয় রঞ্জনের মাটির বসতঘরের দেওয়াল খুঁড়ে ১৬টি বিষধর কেউটে সাপ ও ১৪টি ডিম পাওয়া গেছে। এর আগেও তার ঘরে সাপ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় গ্রামবাসীর মাঝে সাপ আতঙ্ক বিরাজ করছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

প্রাইভেট পড়তে গিয়ে নিখোঁজ, পরদিন মিললো স্কুলছাত্রীর লাশ

প্রাইভেট পড়তে গিয়ে নিখোঁজ, পরদিন মিললো স্কুলছাত্রীর লাশ

সাঁতরে মসজিদে যাওয়া সেই ইমাম পেলেন নৌকা ও নগদ টাকা   

সাঁতরে মসজিদে যাওয়া সেই ইমাম পেলেন নৌকা ও নগদ টাকা   

ভোটে হারায় রাস্তা বন্ধ করে দিলেন মেম্বার প্রার্থী

ভোটে হারায় রাস্তা বন্ধ করে দিলেন মেম্বার প্রার্থী

পানিবন্দি সাতক্ষীরার অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

পানিবন্দি সাতক্ষীরার অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

যাত্রীবাহী গাড়িতে গুলি: ২৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৪

বান্দরবানে যাত্রীবা‌হী চাঁদের গাড়িতে গুলি ছোড়ার ঘটনায় ২৩ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩‌ সে‌প্টেম্বর) রাঙামাটির রাজস্থলীর গাইদ্যা ইউনিয়নের য়চিং খই (৩৩) বা‌দী হয়ে বান্দরবান সদর থানায় এ মামলা করেন।

মামলার আসামিদের মধ্যে রয়েছেন—পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য ও জেএসএস নেতা কেএসমং মার্মা‌ (৬০), রাজস্থলীর কিনাধন তংচঙ্গ্যার ছে‌লে গর্জন ত্রিপুরা ও রাঙামাটি চন্দ্রঘোনার মংনুচিং মারমা (৫০)। 

য়চিং খই ব‌লেন, ‘গত ১৭ সেপ্টেম্বর এলাকার ক‌য়েকজন মিলে বান্দরবানের রুমাতে বেড়া‌তে যাই। পরের‌ দিন (১৮ সেপ্টেম্বর) আমরা বান্দরবান থেকে রাঙামা‌টির রাজস্থলীর নিজ বা‌ড়ি‌তে ফেরার পথে বান্দরবানের কুহালংয়ের গলাচিপা এলাকায় হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি ছোড়ে সন্ত্রাসীরা। তা‌দের গু‌লি‌তে আমা‌দের গা‌ড়ির চাকা ফে‌টে যায় এবং এ‌তে ছয়জন গু‌লি‌বিদ্ধ হ‌য়। গা‌ড়ি‌টি মেরামত কর‌তে ৫০ হাজার টাকা ব্যয় হয়েছে।’

যাত্রীবাহী গাড়িটিতে সন্ত্রাসীদের ৪০-৫০ রাউন্ড গুলিবর্ষণ

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী ব‌লেন, যাত্রীবা‌হী চাঁদের গাড়িতে গুলির ঘটনায় ২৩ জনকে আসামি করে একটি মামলা হয়েছে। তদন্ত ক‌রে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়কসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়কসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির ৩ শীর্ষ নেতার আত্মসমর্পণ

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির ৩ শীর্ষ নেতার আত্মসমর্পণ

প্রবাসীর স্ত্রীকে ৭ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রবাসীর স্ত্রীকে ৭ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গণমাধ্যম নিয়ে যা বললেন নওফেল

গণমাধ্যম নিয়ে যা বললেন নওফেল

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

উপজেলা চেয়ারম্যানকে বরখাস্তের আদেশ অবৈধ ঘোষণা

উপজেলা চেয়ারম্যানকে বরখাস্তের আদেশ অবৈধ ঘোষণা

সব শিক্ষার্থীর ২ বছরের বেতন মওকুফ করলো বিদ্যালয়টি

সব শিক্ষার্থীর ২ বছরের বেতন মওকুফ করলো বিদ্যালয়টি

দুই বছরের কাজ চার বছরেও হয়নি, ৩৪টি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণে অনিশ্চয়তা

দুই বছরের কাজ চার বছরেও হয়নি, ৩৪টি বিদ্যালয় ভবন নির্মাণে অনিশ্চয়তা

চাঁদপুরে ৩ কলেজ শিক্ষার্থীর করোনা শনাক্ত

চাঁদপুরে ৩ কলেজ শিক্ষার্থীর করোনা শনাক্ত

অবশেষে রাঙামাটিতে চালু হলো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট

অবশেষে রাঙামাটিতে চালু হলো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট

আসামি বহনকারী মাইক্রোবাসে বিস্ফোরণ,  ৪ পুলিশ দগ্ধ

আসামি বহনকারী মাইক্রোবাসে বিস্ফোরণ, ৪ পুলিশ দগ্ধ

সর্বশেষ

বাড্ডায় ১০ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২

বাড্ডায় ১০ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব

বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব

© 2021 Bangla Tribune