X
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৫ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

জামায়াতের আরও দুই নেতাকর্মী ৪ দিনের রিমান্ডে

আপডেট : ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:০২

রাজধানীর ভাটারা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে দায়ের করা মামলায় জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির ও শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আ.ন.ম. শামসুল ইসলাম এবং জামায়াতে ইসলামের কর্মী মো. ইমাম হোসেনের চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাসের আদালত এ আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এ দিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের পরিদর্শক কাজী ওয়াজেদ আলী আসামিদের আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত প্রত্যেকের ৪ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) ভোরে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানার এলাকা থেকে তাদের এ দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এর আগে মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বেগম মাহমুদা আক্তারের আদালত একই মামলায় জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ারসহ ৯ জনের ৪ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ভাটারা থানায় জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ারসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা করে পুলিশ। মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে অনেককে।

ডিএমপির গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আটক করা হয়। তারা গোপন বৈঠকে রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছিল।’

তাদের রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনার বৈঠক থেকে আলামত হিসেবে কিছু বই আমরা জব্দ করি। তাদের জিজ্ঞসাবাদ চলছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি, কেন বৈঠকে মিলিত হয়েছেন। আমরা ধারণা করছি, তারা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও নাশকতার পরিকল্পনার উদ্দেশ্যে মিলিত হয়েছিলেন। রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড করার জন্য এটা তাদের গোপন বৈঠক ছিল।’

 

/এমএইচজে/আইএ/

সম্পর্কিত

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

মুফতি যুবায়েরের সন্ধান চায় তার পরিবার

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:০৯

‘নিখোঁজ’ মুফতি যুবায়ের আহমাদের সন্ধানের দাবিতে সংবাদ সম্বেলন করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। আজ সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সংবাদ সম্মেলনে মুফতি যুবায়েরের স্ত্রীসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দিনাজপুরের বাসিন্দা মুফতি যুবায়ের আহমাদ ঢাকার একটি মাদ্রাসার অধ্যক্ষ। তিনি নিজে উত্তরবঙ্গে বেশ কিছু মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেছেন। করোনাকালে এসব মাদ্রাসা বন্ধ হওয়ার পর নতুন করে সেগুলো কীভাবে চালু করা যায় সে বিষয়ে আলোচনার জন্য এলাকায় গিয়েছিলেন তিনি।

পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়, সেসব মাদ্রাসা পরিদর্শন শেষে গত ১৭ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টায় সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে একটি ফ্লাইটে ঢাকায় এসে পৌঁছান। ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেমে তিনি তার স্ত্রীকে কল করে জানান যে, তার আসতে কিছুটা দেরি হতে পারে। এরপর থেকেই তার ফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে বলে অভিযোগ পরিবারের।

পরিবারের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, তারা ইতিমধ্যে আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তা চেয়েছেন। তারা প্রথমে তুরাগ থানায় অভিযোগ করতে গেলে সেখান থেকে বিমানবন্দর থানায় পাঠানো হয়। বিমানবন্দর থানা থেকে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টার আগে কোনও রিপোর্ট হবে না। ২৪ ঘণ্টা পর গেলে থাকা থেকে জানানো হয়, ভালো করে খোঁজ করতে থাকেন।

পরিবারের দাবি, মুফতি যুবায়ের আহমাদ কোনও রাজনৈতিক দল, মত, বিশৃঙ্খলা বা রাষ্ট্রবিরোধী কাজের সাথে জড়িত নন। তার কোনও বক্তব্যে কিংবা লেখায় কোনও প্রকার উস্কানিমূলক, দেশ বা সরকার বিরোধী কোনও কিছু খুঁজে পাওয়া যাবে না।

এসব বিষয় উল্লেখ করে মুফতি যুবায়েরের স্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি আকুল আবেদন জানাচ্ছি যে, তিনি যেন আমার নিরপরাধ স্বামীকে খুঁজে বের করতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে বিশেষ নির্দেশ দেন। আমরা পারিবারিকভাবে অনেক দুশ্চিন্তার মধ্যে আছি।

/জেডএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

বছরের পর বছর কাটে স্বজনদের অপেক্ষায়

বছরের পর বছর কাটে স্বজনদের অপেক্ষায়

মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ 

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৫৪

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ করেছে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদেরের পরিবার। পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ আদায় ও জানমাল রক্ষার্থে ৬ দফা দাবি জানায় পরিবারটি।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি তুলে ধরেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য নুরতাজ আরা ঐশী। এ সময় পরিবারের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেম্মলনে বলা হয়, ডিএনসিসির মেয়র ও কর্মকর্তারা ক্ষমতার অপব্যবহার করে কলমিলতা বাজারের সম্পদ দখল করে রেখেছেন। এছাড়া নির্মাণাধীন ভাসানটেক প্রকল্প অবৈধভাবে বন্ধ করে ভাঙচুর করেছেন মেয়র আতিক ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের লোকজন। এতে পাঁচ কোটি টাকার সম্পদ ধ্বংস হয়েছে।

নুরতাজ আরা ঐশী বলেন, ‌‌‘কলমিলতা বাজারের মালিক ডিএনসিসি নয়। বেআইনিভাবে দখল করায় হাইকোর্ট ওই সম্পত্তির ক্ষতিপূরণ দিতে ডিএনসিসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।’ ক্ষতিপূরণ দুই মাসের মধ্যে পরিশোধে হাইকোর্টের নির্দেশনা থাকলেও তা মানছেন না মেয়র আতিক।’

এছাড়া লালমাটিয়ার দুটি ফ্ল্যাট এবং সাভারে কলমা মৌজায় ৯ বিঘা জমি মেয়র আতিক তার বাহিনী দিয়ে দখল করে রেখেছেন বলে অভিযোগ করেন নুরতাজ আরা ঐশী। তিনি বলেন, ‌‘পরিবারটিকে চাপে রাখতে মেয়র আতিক এমনটা করছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে কলমিলতা বাজারের ক্ষতিপূরণ দিতে সংশ্লিষ্টদের যথাযথ নির্দেশ; ভাসানটেক প্রকল্প ব্যর্থ করার দায়ে সংশ্লিষ্টদের শাস্তি নিশ্চিতে বিচারপতির নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠনসহ শহীদ পরিবারের সদস্যদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়।

 

/জেডএ/আইএ/

সম্পর্কিত

ঢাকায় শুরু হলো রোহিঙ্গাদের শিল্প ও সংস্কৃতি বিষয়ক প্রদর্শনী

ঢাকায় শুরু হলো রোহিঙ্গাদের শিল্প ও সংস্কৃতি বিষয়ক প্রদর্শনী

ব্র্যাকের হাত ধরে স্বাস্থ্যবিধি শিখছে মানুষ

ব্র্যাকের হাত ধরে স্বাস্থ্যবিধি শিখছে মানুষ

প্রকল্পের রেল গেট কিপারদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি

প্রকল্পের রেল গেট কিপারদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি

জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি স্কপের

জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি স্কপের

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:০৫

স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাড়িচালক আব্দুল মালেক ওরফে মালেক ড্রাইভারের বিরুদ্ধে দায়ের করা অস্ত্র আইনের মামলায় দুই ধারায় ১৫ বছর করে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই সাজা একইসঙ্গে হওয়ায় তাকে ১৫ বছর কারাভোগ করতে হবে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালত এ রায় দেন।

রায় ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে আদালতের বারান্দায় ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

মালেকের মা আয়েশা বেগমের দাবি, তার ছেলে নির্দোষ। তাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। বাসায় কোনও কিছুই পাওয়া যায়নি।

মালেকের বোন বলেন, ‘আমার ভাই নির্দোষ। তাকে ফাঁসানো হয়েছে। ভাইয়ের সঙ্গে আমাকেও এরেস্ট করে নিয়ে যান। আমিও নির্দোষ ভাইয়ের সঙ্গে জেল খাটবো। আমার আর সহ্য হয় না। বাবা নেই; এই ভাই আমাদের বড়।’

এ দিন রায় ঘোষণার পর আদালতের এজলাসে থেকে মালেককে বের করার সময় সাংবাদিকদের উদ্দেশ করে মালেক বলেন, ‘আমাকে বাসা থেকে ধরে নিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। সব সাক্ষী মিথ্যা। কোনও অস্ত্র আমার কাছে ছিল না। মিথ্যা মামলায় আমাকে কারাভোগ করতে হবে।’

এর আগে ১৩ সেপ্টেম্বর ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালত রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তুরাগ থানাধীন কামারপাড়াস্থ ৪২ নম্বর বামনেরটেক হাজী কমপ্লেক্সের তৃতীয় তলার বাসা থেকে আব্দুল মালেককে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন, পাঁচ রাউন্ড গুলি, দেড় লাখ বাংলাদেশি জাল নোট, একটি ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয় বলে জানায় র‌্যাব। এ ঘটনায় র‌্যাব-১ এর পুলিশ পরিদর্শক আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে মামলা দুটি দায়ের করেন।

 

/এমএইচজে/আইএ/

সম্পর্কিত

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৩৩

চাঁদপুরে মিষ্টিবিক্রেতা নারায়ণ চন্দ্রকে হত্যা করে চুলের বস্তায় ভরে ডাস্টবিনে ফেলে দেয় একই এলাকার সেলুন কারিগর রাজু চন্দ্র শীল।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মালিবাগে পুলিশের সিআইডি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান সংস্থাটির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর চাঁদপুর শহরের বিপণীবাগ মার্কেটের পৌর পানির পাম্পের স্টাফ রুমে নারায়ণ চন্দ্র ঘোষের বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত নারায়ণ চন্দ্র ঘোষ স্থানীয় বাজারে দই-মিষ্টি বিক্রি করতেন।

সেলুনে যেভাবে হত্যা করা হয় নারায়ণ চন্দ্রকে

বিপণীবাগ বাজারের নৈশপ্রহরী ইসমাইল বকাউলের বরাত দিয়ে মুক্তাধর বলেন, গত ১৫ সেপ্টেম্বর ওই বাজারের টিপটপ সেলুনের কর্মচারী রাজুকে পানি দিয়ে দোকান পরিষ্কার করতে দেখা যায়। রাজুর কাছে দোকান পরিষ্কারের কারণ জানতে চাইলে তিনি নৈশ প্রহরী ইসমাইলকে বলেন, ধর্মীয় উৎসব থাকার কারণে তিনি দোকান পরিষ্কার করে পুরনো জামা-কাপড়সহ অন্যান্য ময়লা জিনিসপত্র বস্তায় করে নিয়ে যাচ্ছেন। রাজু ওই বস্তাটি বিপণীবাগ মার্কেটের পশ্চিম পাশে শরিফ স্টিল ও পানির পাম্পের স্টাফ রুমের পূর্ব পাশে গলির ভেতরে ফেলে দেন। ওই বস্তা ফেলে রাজু আবারও দোকানে ফিরে আসেন। এরপর রাজু পানি দিয়ে ওই সেলুন পরিষ্কার করতে থাকেন। ১৬ সেপ্টেম্বর সেলুন থেকে ডাস্টবিন পর্যন্ত রক্তের দাগ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে সেলুনের মালিক শ্রীকৃষ্ণকে ডেকে আনলে তিনি দোকান খুলে সেলুনের মেঝেতে রক্তমাখা পানি দেখতে পান। এছাড়াও সেলুনের দেয়ালে, চেয়ারের কভারে, মেঝেতে ও বালতির মধ্যে রক্তের দাগ দেখা যায়। ওই ঘটনার পর পালিয়ে যান রাজু চন্দ্র শীল।

ঘটনাটি বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হলে তা সিআইডির নজরে আসে। পরে সিআইডি তদন্ত শুরু করে। রাজুকে ধরতে বিভিন্ন জায়গায় চালানো হয় অভিযান। পরে সিলেট শহর থেকে অভিযুক্ত রাজুকে সিআইডি গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রাজু সিআইডিকে জানায়,  টাকা লেনদেনের কারণে তিনি নারায়ণকে হত্যা করেছেন। তবে কত টাকার লেনদেন ছিল সে বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি।

/এআরআর/এমএস/

সম্পর্কিত

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৪

ঢাকা ওয়াসা কর্তৃপক্ষ গত দুই বছরে সুপেয় পানি পাওয়ার লক্ষ্যে দূষণের কবলে পড়া অঞ্চলগুলোতে কি কাজ করেছে, কি করছে এবং তাদের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী ২ নভেম্বরের মধ্যে তাদেরকে ওই কর্মপরিকল্পনা দাখিল করতে হবে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মো. তানভীর আহমেদ।

প্রসঙ্গত, এর আগে এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে ২০১৮ সালের ৬ নভেম্বর হাইকোর্ট ঢাকা ওয়াসার পানি পরীক্ষার জন্য প্রতিষ্ঠানের নাম উল্লেখ করে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করার আদেশ দেন।

২০১৯ সালের ১৮ এপ্রিল স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিবকে আহ্বায়ক করে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়।

কমিটির সদস্যরা হলেন – আইসিডিডিআরবি’র জ্যেষ্ঠ বিজ্ঞানী মনিরুল আলম, বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক এ বি এম বদরুজ্জামান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান সাবিতা রিজওয়ানা রহমান।

/বিআই/এমএস/

সম্পর্কিত

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন ড্রাইভার মালেকের স্বজনরা

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

মিষ্টিবিক্রেতাকে খুন করে সেলুনের কারিগর

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

সুপেয় পানি নিশ্চিতে ওয়াসার কর্মপরিকল্পনা দেখতে চায় হাইকোর্ট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

১৬৫০ উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগে হাইকোর্টের রায় বহাল

ফাঁসানো হয়েছে, দাবি ড্রাইভার মালেকের

ফাঁসানো হয়েছে, দাবি ড্রাইভার মালেকের

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ড্রাইভার মালেকের ১৫ বছরের সাজা

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ড্রাইভার মালেকের ১৫ বছরের সাজা

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মালেকের বিরুদ্ধে মামলার রায় আজ

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মালেকের বিরুদ্ধে মামলার রায় আজ

কনস্টেবল নিয়োগে জালিয়াতির নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি টিআইবি’র

কনস্টেবল নিয়োগে জালিয়াতির নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি টিআইবি’র

সিটি ইউনিভার্সিটিকে সাড়ে ৬২ লাখ টাকা জরিমানা

সিটি ইউনিভার্সিটিকে সাড়ে ৬২ লাখ টাকা জরিমানা

সর্বশেষ

ভোট কেন্দ্রের বাইরে ককটেল হামলায় আহত ৪

ভোট কেন্দ্রের বাইরে ককটেল হামলায় আহত ৪

মুফতি যুবায়েরের সন্ধান চায় তার পরিবার

মুফতি যুবায়েরের সন্ধান চায় তার পরিবার

রাশিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুক হামলা, নিহত ৮

রাশিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুক হামলা, নিহত ৮

মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ 

মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ 

ধারাবাহিক নাটকে ক্রিকেটার জাভেদ ওমর

ধারাবাহিক নাটকে ক্রিকেটার জাভেদ ওমর

© 2021 Bangla Tribune