X
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন, প্রশাসন দেখে পালালেন বাবা-মা

আপডেট : ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:০২

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে ১৩ বছরের এক স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ের আয়োজন পণ্ড করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে স্কুলছাত্রীর বাবা-মা পালিয়ে যান। পরে ভাইয়ের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে অর্থদণ্ড করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামে এ অভিযান পরিচালনা করেন আজমিরীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।

জানা গেছে, উপজেলার মিয়াধন মিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর (১৩) বিয়ের আয়োজন করে পরিবার। খবর পেয়ে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিয়ে বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে। এ সময় প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে পালান মেয়ের বাবা-মা। পরে কনের বড় ভাইকে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও তার বয়স ১৮ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেওয়া হবে না মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম অভিযান পরিচালনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

এক উপ‌জেলায় ৫২৩ স্কুলছাত্রীর বি‌য়ে

এক উপ‌জেলায় ৫২৩ স্কুলছাত্রীর বি‌য়ে

বিদ্যালয় বন্ধের সুযোগে ৯২ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে, হতাশ শিক্ষকরা

বিদ্যালয় বন্ধের সুযোগে ৯২ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে, হতাশ শিক্ষকরা

ছাদের পিলারে ঝুলছিল দুই বোনের লাশ

ছাদের পিলারে ঝুলছিল দুই বোনের লাশ

একই স্কুলের ৪০ ছাত্রীর বিয়ে

একই স্কুলের ৪০ ছাত্রীর বিয়ে

স্ত্রীকে হত্যার ৩ দিন পর ‌‌‘অনুতপ্ত’ স্বামীর আহাজারি

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৯

ময়মনসিংহের নান্দাইলে স্ত্রীকে হত্যার তিন দিন পর স্বামী সাদ্দাম হোসেনকে (৪০) গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টাম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার গাঙাইল ইউনিয়নের শ্রীরামপুর এলাকার হাওর থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সাদ্দাম হোসেন উপজেলার গাংগাইল ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের হাদিস মিয়ার ছেলে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাত ১২টার দিকে সুরাশ্রম এলাকার একটি হাওর থেকে তার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তারের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নান্দাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান আকন্দ জানান, হত্যার পর থেকে সাদ্দাম হোসেন মানসিকভাবে কিছু বিপর্যস্ত হয়ে ওই হাওরে লুকিয়ে ছিল। তিন দিন পর অনুতপ্ত হয়ে দা হাতে সেই হাওরে আহাজারি ও চিৎকার করতে থাকে। পরে স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে। সাদ্দামকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে।

স্থানীয়রা জানায়, ১০ বছর আগে সাদ্দাম হোসেনের সঙ্গে নেত্রকোনার কেন্দুয়ার পাইকুড়া ইউনিয়নের সোহাগপুর গ্রামের মো. সিরাজের মেয়ে ইয়াসমিনের বিয়ে হয়। তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। প্রায়ই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া হতো। কিছুদিন আগে পারিবারিক ঝামেলা মামলা পর্যন্ত গড়ায়। কয়েকদিন আগে দুই পরিবারের মধ্যে সমাঝোতা হয়। লাশ উদ্ধারের দুই দিন আগে স্বামীর বাড়িতে ফিরে আসেন ইয়াসিমন।

ঘটনার দিন সন্ধ্যার পর বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে নির্জন জায়গা থেকে এক শিশুর কান্নার শব্দ ভেসে আসে। কান্নার শব্দ কোথা থেকে আসছে, তা খুঁজতে গিয়ে ইয়াসমিনের রক্তাক্ত লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। এ সময় লাশের পাশে বসে তার শিশুকন্যা কাঁদছিল। স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে নিহতের ভাই বকুল মিয়া বাদী হয়ে সাদ্দাম হোসেনসহ পাঁচজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

জালিয়াতি করে ৭ লাখ টাকা উত্তোলনের ঘটনায় ব্যাংক ব্যবস্থাপক প্রত্যাহার

জালিয়াতি করে ৭ লাখ টাকা উত্তোলনের ঘটনায় ব্যাংক ব্যবস্থাপক প্রত্যাহার

বিপুল পরিমাণ চোরাই ডিজেলসহ গ্রেফতার ১

বিপুল পরিমাণ চোরাই ডিজেলসহ গ্রেফতার ১

মাদ্রাসাছাত্রীকে অপহরণের দায়ে গ্রেফতার ৪

মাদ্রাসাছাত্রীকে অপহরণের দায়ে গ্রেফতার ৪

কণ্ঠশিল্পী সালমার পার্কের উদ্বোধন

কণ্ঠশিল্পী সালমার পার্কের উদ্বোধন

আজান দেওয়ার সময় ঢলে পড়লেন মুয়াজ্জিন

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৪

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে মসজিদে আজান দেওয়ার সময় মাইক সেটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বরকত উল্লাহ গাজী (৭৫) নামে এক মুয়াজ্জিনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার তারালী ইউনিয়নের রহিমপুর (পাচুলিয়া) গ্রামের মৃত মাদার গাইনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, বরকত উল্লাহ উপজেলার তারালী ইউনিয়নের রহিমপুর পাঞ্জেগানা মসজিদের মুয়াজ্জিনের দায়িত্ব পালন করতেন। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১ টার দিকে তিনি মসজিদে আজান দিতে যান। এ সময় মাইকের তার থেকে বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলেই তিনি প্রাণ হারান। 

খবর পেয়ে কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক আশিষ কুমার ঘোষ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন।

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। কারও কোনও অভিযোগ না থাকায় মৃতদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

বিদ্যালয় বন্ধের সুযোগে ৯২ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে, হতাশ শিক্ষকরা

বিদ্যালয় বন্ধের সুযোগে ৯২ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে, হতাশ শিক্ষকরা

ইভ্যালির রাসেলের বিরুদ্ধে যশোরে মামলা

ইভ্যালির রাসেলের বিরুদ্ধে যশোরে মামলা

বিল গেটসের ফাউন্ডেশন থেকে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশি তরুণী

বিল গেটসের ফাউন্ডেশন থেকে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশি তরুণী

জালিয়াতি করে ৭ লাখ টাকা উত্তোলনের ঘটনায় ব্যাংক ব্যবস্থাপক প্রত্যাহার

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪৫

সোনালী ব্যাংকের কেন্দুয়া শাখার এক নারী গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে সাত লাখ টাকা উধাওয়ের ঘটনায় ব্যবস্থাপক আরিফ আহম্মদকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। পারভিন আক্তার নামের গ্রাহকের চেক জালিয়াতি করে টাকা তোলা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) ব্যবস্থাপককে প্রত্যাহার করে সোনালী ব্যাংকের নেত্রকোনা আঞ্চলিক কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। ব্যাংকের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার শাহজালাল মিয়াকে ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

ঘটনা তদন্তে হওয়া কমিটির প্রধান করা হয়েছে সোনালী ব্যাংকের নেত্রকোনা অঞ্চলের সহকারী মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) রাসমোহন সাহাকে। কমিটির অপর সদস্যরা হলেন সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মিনহাজুল আলম ও প্রিন্সিপাল অফিসার আবু সিদ্দিক খান।

ব্যবস্থাপক আরিফ আহাম্মদকে প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্যাংকটির ময়মনসিংহ অঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মো. আবদুল মজিদ। তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, চেক জালিয়াতি করে সাত লাখ টাকা তুলে নেওয়ার ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে। আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। 

তিনি আরও জানান, তদন্তে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে জানান তিনি।

স্থানীয়রা জানান, কেন্দুয়া পৌর এলাকার বাদে আঠারোবাড়ি মহল্লার পূর্ণতা নামে এক নারী গত ৬ মাস ধরে ব্যাংকে এসে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, পেনশন ভোগীসহ অন্যান্য সহজ সরল গ্রাহকদের সঙ্গে মিশে তাদের হিসাব থেকে চেক লিখে দিয়ে টাকা তুলে দেওয়ার ক্ষেত্রে সহায়তা করে আসছেন। গত রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পূর্ণতা আক্তার (২৫) উপজেলার চিরাং ইউনিয়নের ছিলিমপুর গ্রামের পারভিন আক্তারের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে কৌশলে চেকের একটি পাতা ছিঁড়ে রেখে দেন। পরে পারভিনের স্বাক্ষর জাল করে ওই দিন দুপুরে ৭ লাখ টাকা ব্যাংক থেকে তুলে নেন। তার মোবাইলে ৭ লাখ টাকা উত্তোলনের মেসেজ যাওয়ার পর বিষয়টি টের পেয়ে পারভিন আক্তার ওই ব্যাংকের কর্মকর্তাদের শরণাপন্ন হন। পরে সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর)  স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের মধ্যস্থতায় ওই টাকা উদ্ধার করা হয়। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, এই জালিয়াতির ঘটনায় ব্যাংকের লোকজনও জড়িত আছে। অভিযুক্ত পূর্ণতা আক্তারের বাড়ি কেন্দুয়া পৌর এলাকার বাদে আঠারবাড়ি মহল্লায়। তিনি ওই এলাকার মামুন মিয়ার স্ত্রী।

এ বিষয়ে প্রত্যাহার হওয়া শাখা ব্যবস্থাপক আরিফ আহম্মদের মোবাইলফোনে একাধিকবার কল করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

কণ্ঠশিল্পী সালমার পার্কের উদ্বোধন

কণ্ঠশিল্পী সালমার পার্কের উদ্বোধন

গরিবের ৮৪ বস্তা চাল সরানোর চেষ্টা

গরিবের ৮৪ বস্তা চাল সরানোর চেষ্টা

গরিবের ৮ কোটি টাকা আত্মসাৎ, ৩ কর্মকর্তা ৬ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

গরিবের ৮ কোটি টাকা আত্মসাৎ, ৩ কর্মকর্তা ৬ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

হারিয়ে যাওয়া মেয়েকে ২৫ বছর পর ফিরে পেলেন বাবা-মা

হারিয়ে যাওয়া মেয়েকে ২৫ বছর পর ফিরে পেলেন বাবা-মা

পুলিশের পিটুনিতে জেলের মৃত্যুর অভিযোগ, পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫২

পটুয়াখালীতে নৌপুলিশ সদস্যদের মারধরে মো. সুজন মিয়া (৩০) নামের এক জেলের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পটুয়াখালী পু‌লিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ। তিনি বলেন, কোনও ব্যক্তির দায় পু‌লিশ নেবে না। ঘটনার প্রকৃত কারণ উদঘাট‌নের জন্য জেলা পু‌লিশ ও নৌ পু‌লিশের পক্ষ থে‌কে পৃথক দু‌টি তদন্ত ক‌মি‌টি গঠন করা হ‌য়ে‌ছে। তদন্ত ক‌মি‌টির রি‌পো‌র্ট পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। 

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপু‌রে কলাপাড়া উপজেলার বা‌লিয়াতলী এলাকা তেতুলিয়া নদীতে কা‌রেন্ট জাল জব্দ করার অভিযানকা‌লে নৌ পু‌লি‌শের পিটুনিতে সুজন হাওলাদার না‌মের এক জে‌লের মৃত্যুর অভি‌যোগ উঠে। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা নৌপুলিশের চার সদস্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে। 

নিহত জেলের পরিবারের অভি‌যোগ, পুলিশ সদস্যরা সুজন‌কে পিটিয়ে হত্যা করেছে।  

প্রত্যক্ষদর্শী এক জেলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন , নৌপুলিশের সদস্যরা ট্রলারযো‌গে জেলেদের অনেকক্ষণ ধাওয়া করলে জেলেরা তাদের ট্রলারটি তীরে ভিড়িয়ে চার জন দৌ‌ড়ে পালিয়ে যান। এসময় ট্রলারে থাকা সুজনকে পুলিশ সদস্যরা ধরে ফেলে এবং অনেক মারধর করে। এক পর্যায়ে ট্রলারে রাখা জালের ওপর সুজন অচেতন হয়ে পড়ে যান। এ সময় পুলিশ পিটিয়ে সুজনকে হত্যা করেছে এমন খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশ সদস্যদের ট্রলারসহ অবরুদ্ধ করে রাখেন। অপরদিকে অচেতন সুজনকে প্রথমে স্থানীয় বাবলাতলা বাজারে নিয়ে যান স্থানীয়রা। ওই বাজারের এক পল্লী চিকিৎসক দেখে জানান সুজন জীবিত নেই। স্বজনরা সেখান থেকে তাকে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কম‌প্লে‌ক্সে নি‌য়ে গে‌লে দা‌য়িত্বরত চি‌কিৎসক সুজন‌কে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশের মারধরে জেলের মৃত্যুর কথা শুনে ক্ষোভ প্রকাশ করেন স্থানীয়রা বালিয়াতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এবিএম হুমায়ুন কবির বলেন, স্থানীয় মানুষ পুলিশ সদস্যদের অবরুদ্ধ করে রেখেছিল। পরে কলাপাড়া ও মহিপুর থে‌কে ২০ থে‌কে ২৫ জন পুলিশ এসে‌ স্থানীয়দের শান্ত করে পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে নিয়ে যায়। 

পটুয়াখালী পু‌লিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, স্থানীয় অনেক লোকজন জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেছেন। সেখানে কলাপাড়া সা‌র্কেলসহ ম‌হিপুর থানার ওসির নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে পুলিশ সদস্যরা কাজ করছেন। যদিও বিষয়‌টি নৌপুলিশের, সেখানে জেলা পুলিশের কোনও সদস্যদের সঙ্গে কিছু হয়নি। তারপরেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখ‌তে আমরা সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

 

/টিটি/ 

সম্পর্কিত

রিমান্ডে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন এহসানের রাগীবসহ ৪ ভাই

রিমান্ডে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন এহসানের রাগীবসহ ৪ ভাই

খালি হচ্ছে বরিশালের করোনা ওয়ার্ড

খালি হচ্ছে বরিশালের করোনা ওয়ার্ড

পিটুনিতে জেলের মৃত্যু, ৪ পুলিশকে আটকে রাখলো জনতা

পিটুনিতে জেলের মৃত্যু, ৪ পুলিশকে আটকে রাখলো জনতা

ববি ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:১১

একটি চক্রের বিরুদ্ধে নানা ধরনের প্রতারণা এবং অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেছেন পঞ্চগড়ের কয়েক গ্রামের মানুষ। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সদর উপজেলার অমরখানা ইউনিয়নের কাজীরহাট বাজার সড়কে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

মানববন্ধনে সাবেক ইউপি সদস্য ফুলু মিঞা, পান ব্যবসায়ী আব্দুল কুদ্দুস, আব্দুল করিম, আলমসহ জাকির মাস্টার, তহসিলদার আব্দুল মান্নান, ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিনসহ শতাধিক মানুষ অংশ নেন।

পুলিশ, এলাকাবাসী ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, অমরখানা ইউনিয়নের সোনারবান গ্রামের আফরোজা আকতার ববি, তার স্বামী মো. সফিকুল ইসলাম রিপন, মেয়ে আফসানা মিমি রিংকীসহ একটি চক্র নানা ধরনের প্রতারণার এই অভিযোগ উঠেছে। তাদের বিরুদ্ধে অপহরণের পর মারধর, মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে মুক্তিপণ আদায়, মাদক ব্যবসা, অসামাজিক কার্যকলাপ, প্রলোভন দেখিয়ে মানুষকে ফাঁদে ফেলে অর্থ আদায়, মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানিসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। সর্বশেষ গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে তারা সদর উপজেলার ভূষিভিটা এলাকার ভ্যান চালক মো. এনামুল হককে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে এবং মারপিট করে। ৫০ হাজার টাকা দিলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানায়। অসহায় ভ্যান চালক ১০ হাজার টাকা দিতে রাজি হলে তাকে বাড়িতে ফোন করে টাকা আনার সুযোগ দেয় প্রতারক চক্রটি। বিষয়টি এনামুলের পরিবারের লোকেরা পুলিশকে জানালে গত ১৯ সেপ্টেম্বর ভোর রাতে অমরখানা বোর্ড বাজার এলাকা থেকে মুক্তিপণের টাকাসহ পুলিশ ববিকে আটক করে এবং এনামুলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় ওইদিনই ভিকটিম এনামুল বাদী হয়ে পঞ্চগড় সদর থানায় প্রতারক ববি, তার স্বামী সফিকুল ইসলাম রিপন ও মেয়ে মিমির বিরুদ্ধে অপহরণ, অবরুদ্ধ করে মারপিট এবং মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ ববির মেয়েকে গ্রেফতার করে। পরে পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে বিচারক দুজনকে জেলহাজতে পাঠান।

অমরখানা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য ফুলু মিঞা বলেন, ‘আফরোজা আকতার ববি এলাকায় একজন মাদক ব্যবসায়ী। এলাকার সাধারণ মানুষকে বিভিন্নভাবে ফাঁদে ফেলে অর্থ আদায়সহ বিভিন্ন অনৈতিক কাজ করে আসছেন। আমরা তার বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে গণআবেদন করেছি। আশা করি প্রশাসন এই প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।’

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল লতিফ মিঞা বলেন, ‘ওই প্রতারক চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় অনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছে। স্থানীয়দের অভিযোগ ও মামলা দায়েরের পর অভিযুক্তদের মধ্যে দুজনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

বেশি লাভের আশায় আগাম আলু চাষে ব্যস্ত কৃষক

বেশি লাভের আশায় আগাম আলু চাষে ব্যস্ত কৃষক

এক উপ‌জেলায় ৫২৩ স্কুলছাত্রীর বি‌য়ে

এক উপ‌জেলায় ৫২৩ স্কুলছাত্রীর বি‌য়ে

ভ্রমণ বিলে অসঙ্গতি, কমিশনারকে সতর্ক পুলিশ সদর দফতরের

ভ্রমণ বিলে অসঙ্গতি, কমিশনারকে সতর্ক পুলিশ সদর দফতরের

৯ প্রার্থীর পাঁচজনই হারালেন জামানত

৯ প্রার্থীর পাঁচজনই হারালেন জামানত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এক উপ‌জেলায় ৫২৩ স্কুলছাত্রীর বি‌য়ে

এক উপ‌জেলায় ৫২৩ স্কুলছাত্রীর বি‌য়ে

বিদ্যালয় বন্ধের সুযোগে ৯২ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে, হতাশ শিক্ষকরা

বিদ্যালয় বন্ধের সুযোগে ৯২ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে, হতাশ শিক্ষকরা

ছাদের পিলারে ঝুলছিল দুই বোনের লাশ

ছাদের পিলারে ঝুলছিল দুই বোনের লাশ

একই স্কুলের ৪০ ছাত্রীর বিয়ে

একই স্কুলের ৪০ ছাত্রীর বিয়ে

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

পরিমাপে কম দেওয়ায় দুই ফিলিং স্টেশনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা

পরিমাপে কম দেওয়ায় দুই ফিলিং স্টেশনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা

বিয়েবাড়িতে ছবি তোলা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ১৫

বিয়েবাড়িতে ছবি তোলা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ১৫

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

সুনামগঞ্জ থেকে আন্তজেলা বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণা

সুনামগঞ্জ থেকে আন্তজেলা বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণা

সর্বশেষ

স্ত্রীকে হত্যার ৩ দিন পর ‌‌‘অনুতপ্ত’ স্বামীর আহাজারি

স্ত্রীকে হত্যার ৩ দিন পর ‌‌‘অনুতপ্ত’ স্বামীর আহাজারি

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আজান দেওয়ার সময় ঢলে পড়লেন মুয়াজ্জিন

আজান দেওয়ার সময় ঢলে পড়লেন মুয়াজ্জিন

কুয়েত ও সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক

কুয়েত ও সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক

সঞ্চয়পত্র বিক্রির বিপরীতে ব্যাংকের কমিশন তলানিতে

সঞ্চয়পত্র বিক্রির বিপরীতে ব্যাংকের কমিশন তলানিতে

© 2021 Bangla Tribune