X
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

বিএনপির আন্দোলনের বর্তমান প্রয়াসও নিষ্ফল হবে: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৮

১৩ বছর ধরে বিএনপির আন্দোলনের ‘নিষ্ফল আহ্বান যেমনি ব্যর্থ হয়েছে, বর্তমান প্রয়াসও তেমন নিষ্ফল হবে’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) নিজ বাসভবনে ব্রিফিংয়ে এমন মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের আইন-আদালতের তোয়াক্কা না করে মনগড়া কথা বলাই বিএনপির স্বভাব। ভাবনায় এবং চর্চায় বিএনপির একমুখী দর্শন তাদের রাজনৈতিক অস্তিত্বের শেকড়কে দিন দিন দুর্বল করে দিচ্ছে।

‘সরকার বেগম জিয়াকে ভয়ে বিদেশ যেতে দিচ্ছে না’—বিএনপি মহাসচিবের এমন অভিযোগের ব্যাপারে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকৃতপক্ষে বিএনপিই বেগম জিয়ার চিকিৎসা চায় কিনা, তা নিয়ে জনমনে সন্দেহ আছে। যারা তাদের নেত্রীর মুক্তির জন্য একটি মিছিলও করতে পারে না, তাদের মুখে মায়াকান্না মানায় না। 

শেখ হাসিনা সরকার বেগম জিয়া কিংবা ‘ক্ষয়িষ্ণু বিএনপি’কে ভয় পায় না জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বরং তার (খালেদা জিয়া) বয়স এবং স্বাস্থ্যের ওপর নজর দিয়ে সাজা স্থগিত করেছে চতুর্থবারের মতো। এ উদারতা একমাত্র শেখ হাসিনাই দেখিয়েছেন।’ বিএনপি শেখ হাসিনার উদারতাকে দুর্বলতা ভাবলে ভুল করবে বলেও হুঁশিয়ার করেন সেতুমন্ত্রী।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সংবিধান সম্মতভাবেই পরবর্তী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, নিরপেক্ষ এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশে। নির্বাচন ও নির্বাচনি পরিবেশ বিনষ্টের জন্য বিএনপি প্রস্তুতি শুরু করেছে। 

এর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিআরটিসির কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। সভায় মন্ত্রী বলেন, লকডাউনের পরে আবারও পরিবহনে যাত্রীদের চাপ বেড়েছে, এ অবস্থায় যাত্রী সাধারণের চলাচলে সুবিধার কথা বিবেচনায় নিয়ে ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে রাজধানীর উত্তরায় চক্রাকার বাস সেবা পুনরায় চালু করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়ার পর ধানমন্ডি এলাকায়ও চক্রাকার বাস সেবা পুনরায় চালুর প্রস্তুতি রয়েছে বলেও জানান তিনি। 

বিআরটিসির মতো সেবা প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতি যাতে বাসা বাঁধতে না পারে; সেদিকে কঠোর নজর দেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, দুর্নীতির বিষয়ে শেখ হাসিনা সরকার জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করেছে। সুতরাং যেকোনও মূল্যে বিআরটিসিকে সুনামের ধারায় ফিরিয়ে আনতে হবে। বিগত সরকারের সময়ে বিআরটিসি ‘দুর্নীতির আখড়া’ ছিল বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

এ সময় নিজ মন্ত্রণালয়ে তদন্তের জন্য দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়েও তদন্ত করতে পারেন। এতে সরকারের পক্ষ থেকে কোনও বাধা দেওয়া হবে না। কোনও দুর্নীতি থাকলে ব্যবস্থা নিন।

দুর্নীতিবাজদের প্রতি প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, জীবনকে উপভোগ করতে কত টাকা, কত সম্পদ দরকার? মৃত্যুর পরে তো এ সম্পদ সঙ্গে নিতে পারবেন না। তখন এসব সম্পদের কী হবে?

লোভ লালসায় যারা বেপরোয়া, তারা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতি করে যাচ্ছে। তাই প্রত্যেক সেক্টরেই সতর্ক থাকার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

/পিএইচসি/ইউএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

মন্দিরে যারা হামলা করেছে তারা মুক্তিযুদ্ধের শত্রু: ওবায়দুল কাদের

মন্দিরে যারা হামলা করেছে তারা মুক্তিযুদ্ধের শত্রু: ওবায়দুল কাদের

কোনও ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর হামলা বরদাস্ত করা হবে না: ওবায়দুল কাদের

কোনও ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর হামলা বরদাস্ত করা হবে না: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতা উসকে দিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতা উসকে দিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শনিবার শুরু

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শনিবার শুরু

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০০

উগ্র সম্প্রদায়ের কেউ দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা-হাঙ্গামা বাধানোর চক্রান্ত করছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী। তিনি বলেন,  কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে মূর্তির পায়ের নিচে পবিত্র কোরআন রেখে যারা ঘোলাপানিতে মাছ শিকার করতে চায় তাদের খুঁজে বের করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা সরকারের দায়িত্ব।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) বিকালে কোরআন অবমাননাকারীদের বিচারের দাবিতে  বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নিত্যপয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের  ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদ জানিয়ে সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী বলেন,  কোনও কারণ ছাড়াই বার বার নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির কারণে জনজীবন চরম দুর্বিষহ হয়ে উঠছে। সরকার সিন্ডিকেটের কাছে মাথা নত করেছে। তিনি অবিলম্বে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণ করার দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে একটি  মিছিল বায়তুল মোকাররম উত্তর গেইট, পল্টন মোড় ও বিজয়নগর মোড়ে পৌঁছলে পুলিশ মিছিলের গতি রোধ করে। সেখানে মিছিল শেষ হয়।

সংগঠনের ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন  মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা নেছার উদ্দিন,  শরীফুল ইসলাম রিয়াদ, মাওলানা আরিফুল ইসলাম, ডা. শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

/সিএ/এমআর/

সম্পর্কিত

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৫৭

বিএনপির নেতাদের মধ্যে বিভেদ ও বিভাজন এবং আওয়ামী লীগ রাজনীতিতে নেই বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। তার দাবি, রাজনীতিতে একমাত্র সোচ্চার জাতীয় পার্টি।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) দলের চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে গাজীপুর মহানগর ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এ কথা বলেন।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, নিবন্ধিত প্রায় ৪০টি দলের মধ্যে মাত্র আওয়ামী লীগ, বিএনপি এবং জাতীয় পার্টি সক্রিয় আছে। বাকি দলগুলো সাইনবোর্ড বা নেতা সর্বস্ব রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। বিএনপি নেত্রী মুচলেকা দিয়ে জেল থেকে বের হয়ে রাজনীতির মাঠে নেই। আবার তাদের আরেক নেতা দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে বিদেশে। বাকী নেতাদের মধ্যে বিভেদ ও বিভাজনের অভাব নেই। আবার আওয়ামী লীগ সরকার পরিচালনা ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে ব্যস্ত। রাজনীতির মাঠেও আওয়ামী লীগ নেই বললেই চলে। কিন্তু গণমানুষের দাবি আদায়ে রাজনীতিতে সোচ্চার আছে শুধু জাতীয় পার্টি।’

কাদের দাবি করেন, ৩১ বছর রাষ্ট্র ক্ষমতার বাইরে থেকেও জাতীয় পার্টি রাজনীতিতে টিকে আছে। নানা অপবাদ ও ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে জাতীয় পার্টি এগিয়ে চলছে। দেশের মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মকাণ্ডে রাজনীতি নিয়ে হতাশাগ্রস্ত। দেশের মানুষ আগামী দিনে জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র পরিচালনায় দেখতে চায়।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী গণতান্ত্রিক চর্চা সম্ভব নয়। বর্তমান সংবিধান গণতান্ত্রিক চর্চার সাথে সাংঘর্ষিক। গণতন্ত্র চর্চা করতে হলে সংবিধানের অনেক ধারা সংশোধন করতে হবে। সংবিধানের ৭০ ধারার কারণে সরকার দলীয় কোনও সংসদ সদস্য সরকারের কোনও সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করতে পারে না। এতে এক ব্যক্তির হাতে সকল ক্ষমতা কেন্দ্রীভূত হয়েছে। দেশের নির্বাহী বিভাগ, আইন সভা ও রাষ্ট্রপতির মাধ্যমে বিচার বিভাগের প্রায় ৯০ ভাগই সরকার প্রধানের নিয়ন্ত্রণে। তাই সরকার প্রধান যা চাইবেন, তার বাইরে কিছুই সম্ভব নয়।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন নিশ্চিত করতে সংবিধান অনুযায়ী আইন করতে হবে। আইন না করে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হচ্ছে, ফুটবল খেলায় একটি দলের পক্ষ থেকে রেফারি নিয়োগ দেওয়ার মতো। আইন করে, উপযুক্ত ব্যক্তিদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করে সংবিধান অনুযায়ী সকল ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনকে দিতে হবে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন- জাতীয় পার্টি মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহিদুর রহমান টেপা, অ্যাডভোকেট শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভুঁইয়া, অনুষ্ঠানে সভপতিত্ব করেন চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা এমএম নিয়াজ উদ্দিন।

/এসটিএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৫২

আগামী নভেম্বর থেকে দল পুনর্গঠনের কাজে সারাদেশের জেলা সফর শুরু করবেন জাতীয় পার্টি মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু। শনিবার (১৬ অক্টোবর) দলের চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে গাজীপুর মহানগর ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় চুন্নু এ কথা জানান।

সভায় মুজিবুল হক বলেন, দেশের কোটি কোটি বেকারদের জন্য কারও মাথা ব্যথা নেই। বিএনপি হাওয়া ভবন আর খাওয়া ভবন করে রাজনীতি থেকে ছিটকে পড়েছে। আর আওয়ামী লীগের উন্নয়নের ধাক্কায় মানুষের জীবন ওষ্ঠাগত।

চুন্নু বলেন, দেশ ও দেশের মানুষের কথা মাথায় রেখেই জাতীয় পার্টির রাজনীতি। জাতীয় পার্টি আগামী দিনে গণমানুষের কল্যাণে কর্মসূচি ঘোষণা করে মাঠে থাকবে। দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণে জাতীয় পার্টি কাজ করবে। গণমানুষের আস্থা নিয়েই জাতীয় পার্টি আগামী দিনে সরকার পরিচালনা করবে।

/এসটিএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৪৯

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সম্পর্কে মন্তব্যের কারণে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড. মুরাদ হাসানকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের। তিনি বলেন, ‘সরকারের একজন প্রতিমন্ত্রী হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে কটূক্তি করে এবং রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম পরিবর্তন করার ঘোষণা দিয়ে গর্হিত কাজ করেছেন। এজন্য তাকে ক্ষমা চাইতে হবে।’

শনিবার (১৬ অক্টোবর) দলের চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে গাজীপুর মহানগর ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এ কথা বলেন।

জিএম কাদের আরও বলেন, ‘২০১১ সালে পঞ্চদশ সংশোধনী করেছে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার। তাতেও রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম সমুন্নত আছে। তাই কটূক্তি করে  প্রতিমন্ত্রী আওয়ামী লীগের দলীয় শৃঙ্খলাও ভঙ্গ করেছেন। তাকে অবশ্যই ক্ষমা চাইতে হবে, তা না হলে দেশের মানুষ একদিন এর বিচার করবে।’

তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণার সঙ্গে সকল ধর্মের অধিকার সাংবিধানিকভাবেই নিশ্চিত করেছিলেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম পরিবর্তন করার সাহস আর ক্ষমতা কারও নেই।’

/এসটিএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

সরকার মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে: আ স ম রব

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩০

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি সভাপতি আ স ম রব বলেছেন, ‘সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনার নামে রাষ্ট্রের মৌলিক কাঠামো বিনষ্ট করে, গণতন্ত্র হত্যা করে,  ভোটাধিকারকে প্রহসনে পরিণত করে  মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। সরকারের অপশাসনের কারণে বাঙালি জাতীয়তাবাদ চরম ঝুঁকিতে পড়ছে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট হচ্ছে, সমাজে হিংসা প্রতিহিংসা নিষ্ঠুরতা বিস্তার লাভ করছে।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) বিকালে  জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জেএসডি ঢাকা মহানগর সমন্বয় কমিটি আয়োজিত মানববন্ধন -সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলে রব এসব কথা বলেন।

রব বলেন, ‘ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করার জন্য বর্তমান সরকার বাঙালি জাতীয়তাবাদ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা দুটোকেই পরিত্যাগ করেছে। এখন রাষ্ট্রের একমাত্র পথ হচ্ছে গণজাগরণের মাধ্যমে জাতীয় নৈতিক শক্তির পুনরুজ্জীবন করা। এই পুনরুজ্জীবিত শক্তিই জাতীয় সরকার গঠন করবে। বিদ্যমান সংকট নিরসনের একমাত্র বিকল্প  জাতীয় সরকার গঠন করা।’

ঢাকা মহানগর কমিটির সমন্বয়ক কামাল উদ্দিন পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে বিক্ষোভে আরও বক্তব্য রাখেন- সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. ছানোয়ার হোসন তালুকদার, সা কা ম আনিসুর রহমান খান কামাল, তানিয়া রব, অ্যাড. কে এম জাবির, অ্যাড. সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলা প্রমুখ।

/এসটিএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

‘বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিরোধ, আ.লীগ রাজনীতিতে নেই’ 

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

নভেম্বর থেকে জেলা সফর শুরু করবেন জাপা মহাসচিব

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে: জিএম কাদের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মন্দিরে যারা হামলা করেছে তারা মুক্তিযুদ্ধের শত্রু: ওবায়দুল কাদের

মন্দিরে যারা হামলা করেছে তারা মুক্তিযুদ্ধের শত্রু: ওবায়দুল কাদের

কোনও ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর হামলা বরদাস্ত করা হবে না: ওবায়দুল কাদের

কোনও ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর হামলা বরদাস্ত করা হবে না: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতা উসকে দিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতা উসকে দিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শনিবার শুরু

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শনিবার শুরু

নাসিরনগরে নৌকার দুই প্রার্থী বদলে দিয়েছে আ. লীগ

নাসিরনগরে নৌকার দুই প্রার্থী বদলে দিয়েছে আ. লীগ

'নির্বাচনকে সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী সম্প্রীতি বিনষ্টের পাঁয়তারা করছে'

'নির্বাচনকে সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী সম্প্রীতি বিনষ্টের পাঁয়তারা করছে'

নৌকা পেলো ‘বিতর্কিত’ অনেকে, তৃণমূলের ক্ষোভ

নৌকা পেলো ‘বিতর্কিত’ অনেকে, তৃণমূলের ক্ষোভ

নির্বাচন বর্জন বিএনপির জন্য আত্মঘাতী হবে: ওবায়দুল কাদের

নির্বাচন বর্জন বিএনপির জন্য আত্মঘাতী হবে: ওবায়দুল কাদের

চট্টগ্রাম বিভাগের ইউপির আ. লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

চট্টগ্রাম বিভাগের ইউপির আ. লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

সরকার পতনের দিবাস্বপ্ন বিএনপির রঙিন খোয়াবে পরিণত হবে: ওবায়দুল কাদের

সরকার পতনের দিবাস্বপ্ন বিএনপির রঙিন খোয়াবে পরিণত হবে: ওবায়দুল কাদের

সর্বশেষ

বাসা থেকে ডেকে নিয়ে এক ব্যক্তিকে হত্যা

বাসা থেকে ডেকে নিয়ে এক ব্যক্তিকে হত্যা

প্রতি আসনে লড়বেন ১১ শিক্ষার্থী

শুরু হচ্ছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষাপ্রতি আসনে লড়বেন ১১ শিক্ষার্থী

ভ্যাপসা গরমের পর বৃষ্টিতে স্বস্তি

ভ্যাপসা গরমের পর বৃষ্টিতে স্বস্তি

টিকার লাইনে দাঁড়ানো নারীর চেইন ছিনতাই, আটক ৫

টিকার লাইনে দাঁড়ানো নারীর চেইন ছিনতাই, আটক ৫

ওমান-পাপুয়া নিউগিনি যা, বাংলাদেশও তাই!

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপওমান-পাপুয়া নিউগিনি যা, বাংলাদেশও তাই!

© 2021 Bangla Tribune