X
সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ

এখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২১:২৯

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটে দায়িত্বপ্রাপ্ত করোনা যোদ্ধাদের মধ্যে ৩৪ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স প্রণোদনার টাকা পেয়েছেন। এখন ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স করোনাকালে দায়িত্ব পালন করলেও প্রণোদনার বরাদ্দ থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। এ নিয়ে করোনার সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে খ্যাত চিকিৎসক ও নার্সদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল অফিস সূত্র মতে, ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটে দায়িত্বপ্রাপ্ত ৩৬২ চিকিৎসকের মধ্যে ১৪৯ জন প্রণোদনার বরাদ্দ হিসেবে মূল বেতনের সমপরিমাণ দুই মাসের টাকা পেয়েছেন। ১০২৮ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সদের মধ্যে ৩৪০ জন একই হারে প্রণোদনার টাকা পেয়েছেন। গত অর্থবছরে প্রণোদনার বরাদ্দকৃত টাকার পরিমাণ ছিল ২ কোটি ২৯ লক্ষ ৫৮ হাজার ১৪০ টাকা। এই হিসেবে ৩৪ দশমিক ৪৬ শতাংশ চিকিৎসক নার্স প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা পেয়েছেন। এখনও ২১৩ জন চিকিৎসক ও ৬৮৮ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা পাননি। এছাড়া করোনাকালে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ১৪৬ জন চিকিৎসক, ৪৫০ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স ও ৯৫ কর্মচারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এদের মধ্যে শাখাল বেগম নামে একজন সিনিয়র স্টাফ নার্স  করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

এখনও প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা না পাওয়ায় চিকিৎসক ও নার্সদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের রেসপিরেটরি মেডিসিন বিভাগের প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার আনিসুর রহমান জানান, ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করলেও সহকারী অধ্যাপক ও সহযোগী অধ্যাপক পর্যায়ের চিকিৎসকদের প্রণোদনার বরাদ্দ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এটা সম্পূর্ণ অমানবিক এবং দ্বৈতনীতির বাস্তবায়ন করা হয়েছে। দীর্ঘদিন পার হয়ে গেলেও অনেক চিকিৎসক এখনও প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা পায়নি। এ নিয়ে চিকিৎসকদের মধ্যে  ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে দাবি করে তিনি আরও জানান, যারা এখনও পায়নি এবং সহকারী অধ্যাপক ও সহযোগী অধ্যাপক পদমর্যাদার চিকিৎসকদের দ্রুতই বরাদ্দের আওতায় এনে টাকা পাওয়ার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন।

এদিকে বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল শাখার সভাপতি লুৎফর রহমান জানান, করোনা ইউনিটে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সাড়ে চারশ সিনিয়র স্টাফ নার্স করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রোগীদের সেবা করলেও এখন পর্যন্ত বেশিরভাগ নার্স প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা পায়নি। যারা এখনও টাকা পায়নি তাদের মাঝে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। চাপা ক্ষোভ নিয়ে এখনও এসব নার্সরা করোনা ইউনিটে রোগীদের সেবা করে যাচ্ছে। বিষয়টা বিবেচনায় এনে দ্রুতই এখনও যারা প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা পায়নি তাদের টাকা পাওয়ার ব্যাপারে দ্রুতই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবে এমনটাই দাবি জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাক্তার ওয়ায়েজ উদ্দিন ফরাজী বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, চলতি অর্থবছরে প্রণোদনার বরাদ্দের জন্য দ্বিতীয় দফায় ১৭৯ জন চিকিৎসক ও ৫৮০ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সের নামের তালিকা স্বাস্থ্য অধিদফতরে পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ এলে তারা প্রণোদনার টাকা পেয়ে যাবেন। তিনি আরও জানান, তৃতীয় দফায় যারা বাকি আছেন তাদের নামের তালিকা  স্বাস্থ্য অধিদফতরে পাঠানোর কাজ প্রক্রিয়াধীন। ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটে দায়িত্ব পালন করেছেন চিকিৎসক নার্স প্রত্যেকেই প্রণোদনার বরাদ্দের টাকা পাবেন এমনটাই জানিয়েছেন উপ-পরিচালক।

এদিকে জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার নজরুল ইসলাম জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসক নার্সরা করোনা রোগীদের সেবার কাজ করে থাকলেও স্বাস্থ্য অধিদফতর তাদের প্রণোদনার বরাদ্দের আওতায় আনেনি। শুধুমাত্র মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটে যারা দায়িত্ব পালন করছেন তাদেরকে এই প্রণোদনার বরাদ্দের আওতায় আনা হয়েছে।

/এমআর/

সম্পর্কিত

টানা বৃষ্টিতে নষ্টের শঙ্কায় দুবলার চরের ৩ কোটি টাকার শুঁটকি

টানা বৃষ্টিতে নষ্টের শঙ্কায় দুবলার চরের ৩ কোটি টাকার শুঁটকি

কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই জন নিহত

কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই জন নিহত

এক কেজি চাল উৎপাদনে খরচ ৩৩ টাকা, বিক্রি ৫২

এক কেজি চাল উৎপাদনে খরচ ৩৩ টাকা, বিক্রি ৫২

জামালপুর পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার চান সাংবাদিকরা

জামালপুর পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার চান সাংবাদিকরা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

টানা বৃষ্টিতে নষ্টের শঙ্কায় দুবলার চরের ৩ কোটি টাকার শুঁটকি

টানা বৃষ্টিতে নষ্টের শঙ্কায় দুবলার চরের ৩ কোটি টাকার শুঁটকি

কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই জন নিহত

কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই জন নিহত

এক কেজি চাল উৎপাদনে খরচ ৩৩ টাকা, বিক্রি ৫২

এক কেজি চাল উৎপাদনে খরচ ৩৩ টাকা, বিক্রি ৫২

জামালপুর পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার চান সাংবাদিকরা

জামালপুর পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার চান সাংবাদিকরা

পঞ্চগড়ে লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট উদ্বোধন

পঞ্চগড়ে লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট উদ্বোধন

এই মুহূর্তে বাইরে থেকে দেশে না আসাই ভালো: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এই মুহূর্তে বাইরে থেকে দেশে না আসাই ভালো: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ছাত্রলীগের ২ পক্ষের উত্তেজনায় আনন্দ মোহন কলেজের হল বন্ধ

ছাত্রলীগের ২ পক্ষের উত্তেজনায় আনন্দ মোহন কলেজের হল বন্ধ

ভোলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ জন নিহত

ভোলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ জন নিহত

ফতুল্লায় সিলিন্ডারের লিকেজ থেকে আগুন, দগ্ধ ৪

ফতুল্লায় সিলিন্ডারের লিকেজ থেকে আগুন, দগ্ধ ৪

নদ দখল করে বাড়িঘর-দোকান নির্মাণের মহোৎসব

নদ দখল করে বাড়িঘর-দোকান নির্মাণের মহোৎসব

সর্বশেষ

তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করে  শিগগিরই সংসদে উপস্থাপন

তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করে  শিগগিরই সংসদে উপস্থাপন

ডা. মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ

ডা. মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র হচ্ছেন সাবেক এমপি বদির চাচা

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র হচ্ছেন সাবেক এমপি বদির চাচা

জন্মনিবন্ধন নিয়ে চরম ভোগান্তিতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা

জন্মনিবন্ধন নিয়ে চরম ভোগান্তিতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা

ভারত বসলো টেস্টের সিংহাসনে

ভারত বসলো টেস্টের সিংহাসনে

© 2021 Bangla Tribune