X
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

কমিশন বাণিজ্য বীমা খাতে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে: আমিনুর রহমান

আপডেট : ২৮ মার্চ ২০১৬, ২১:২৮

মো. আমিনুর রহমান সারাবিশ্বে বীমাখাত জনপ্রিয় হলেও ভালো নেই বাংলাদেশের বীমাখাত। অসম প্রতিযোগিতা, কমিশন বাণিজ্য, প্রতারণা ও দুর্নীতির কারণে সাধারণ মানুষ এই খাতের সেবা নেওয়া থেকে দূরে। এর ফলে যে উদ্দেশ্যে বীমাখাতের সৃষ্টি হয়েছে, তা ব্যর্থ হতে চলেছে। এই যখন অবস্থা, তখন নিয়ম না মানার প্রতিযোগিতায় নেমে পড়েছে বীমা কোম্পানিগুলো। বর্তমানে বীমাখাতে চলছে এক ধরনের নৈরাজ্য।  বীমা খাতের এমন চিত্র তুলে ধরেছেন মার্কেন্টাইল ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আমিনুর রহমান। মতিঝিলে মার্কেন্টাইল ইন্সুরেন্স কোম্পানির প্রধান কার্যালয়ে বাংলা ট্রিবিউনকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। 

বাংলা ট্রিবিউন: বীমা খাতের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে বলুন।

মো. আমিনুর রহমান: আগের যেকোনও সময়ের চেয়ে বীমা খাতের অবস্থা ভালো বলা চলে। কারণ, দেশের বীমা কোম্পানিগুলোর অভিভাবক বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) গঠনেরর পর বীমা খাতে  কিছুটা শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে।

বাংলা ট্রিবিউন: আপনি বলছেন কিছুটা শৃঙ্খলা ফিরেছে, তাহলে বিশৃঙ্খলাটা  কোথায়?

মো. আমিনুর রহমান: আইডিআরএ কাজ শুরু করার আগে বীমা খাতে চরম বিশৃঙ্খলা ছিল। আইডিআরএ গঠন হওয়ার পর অনেকগুলো দিক ভালো হয়েছে। তবে, কমিশন বাণিজ্য নিয়ে বর্তমানে এক ধরনের বিশৃঙ্খলা বিরাজ করছে।

বাংলা ট্রিবিউন: কমিশন দেওয়ার ক্ষেত্রে বা নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও নিয়ম বা নীতি আছে কি না?

মো. আমিনুর রহমান: কমিশন নিয়ে বীমা শিল্পের কোম্পানিগুলোর মধ্যে এক ধরনের অসম প্রতিযোগিতা বিরাজ করছে। আইডিআরএ এর পরিমাণ নির্ধারণ করে  দিয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী ১৫ শতাংশের বেশি হারে কমিশন দেওয়া যাবে না। কিন্তু অধিকাংশ কোম্পানি এই নিয়ম মানছে না।

বাংলা ট্রিবিউন: কমিশন বেশি দিলে তো কোম্পানিরই লোকসান হওয়ার কথা। তাহলে দিচ্ছে কেন?

মো. আমিনুর রহমান:  প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে গিয়ে অনেক কোম্পানি অনৈতিকভাবে নির্ধারিত হারের চেয়ে বেশি কমিশন দিচ্ছে। এতে পুরো খাতের শৃঙ্খলা নষ্ট হয়ে পড়ছে। এক ধরনের নৈরাজ্য দেখা দিয়েছে।

বাংলা ট্রিবিউন: নৈরাজ্য থেকে পরিত্রাণের পথ কী?

মো. আমিনুর রহমান: আগে বীমা খাতের সবাইকে বিষয়টি অনুধাবন করতে হবে। তার পর সবাই মিলে এই নৈরাজ্য দুর করতে হবে। বিশেষ করে কমিশনের ক্ষেত্রে আইডিআরএ-এর বেঁধে দেওয়া ১৫ শতাংশের মধ্যে থাকতে পারলে সব কোম্পানি আবার ঘুরে দাঁড়াবে। বীমা খাত পরিচ্ছন্ন একটি খাত হিসাবে পরিগণিত হবে এবং এই শিল্প লাভজনক শিল্পে পরিণত হবে।

 

বাংলা ট্রিবিউন: বীমা কোম্পানিগুলো দুনীতি করার সুযোগ পায় কিভাবে?

মো. আমিনুর রহমান: আইডিআরএ নিয়ম করেছে, প্রিমিয়াম নেওয়ার সময় ক্যাশ টাকা নেওয়া যাবে না। কিন্তু অধিকাংশ কোম্পানি এই নিয়ম মানে না। বরং ক্যাশ নেওয়াতে সাচ্ছন্দ্যবোধ করে। এতে  গ্রাহক কম টাকার প্রিমিয়াম দিয়ে বেশি টাকা ভাউচার বা রশিদ নেন। পলিসি বাড়াতে কোম্পানিগুলো নির্ধারিত হারের চেয়ে কম টাকায় পলিসি করে দেন। যদিও চেক বা পে-অডারে লেনদেন করলে অনিয়ম অনেকাংশ কমে যাবে।

বাংলা ট্রিবিউন: কি কারণে বীমা খাত জনপ্রিয় করা যাচ্ছে না?

মো. আমিনুর রহমান: মুষ্টিমেয় কিছু বীমাপতির জন্যই বীমা খাত এখনও অজনপ্রিয়। কারণ, কিছু কিছু কোম্পানি কম টাকার প্রিমিয়াম নেওয়ার কারণে দাবি পূরণ করে না। অনেকে দাবি পূরণের ক্ষেত্রে বিলম্ব করে। গ্রাহকদের ভোগান্তি করে। বিশেষ করে জীবনবীমার অনেক মাঠ কর্মী আছেন, যারা প্রিমিয়ামের টাকা কোম্পানিতে জমা না দিয়ে পালিয়ে যান।

বাংলা ট্রিবিউনের প্রতিবেদকের সঙ্গে একান্ত আলাপে মো. আমিনুর রহমান.

বাংলা ট্রিবিউন: বীমার কাছে মানুষের যাওয়া উচিত, নাকি মানুষের কাছে বীমার আসা উচিত?

মো. আমিনুর রহমান: এখনও এই খাতে প্রতারণার ঘটনা ঘটছে। সে কারণে বীমার কাছে মানুষ আসবে এমনটি নয়, তবে কোম্পানি ভালো হলে সেখানে মানুষের আসা উচিত।   

বাংলা ট্রিবিউন: বীমা খাতে বর্তমানে অনিয়ম কমছে, না বাড়ছে?

মো. আমিনুর রহমান: এখন বিভিন্ন কোম্পানির অনলাইন লেনদেন হওয়ার কারণে অনিয়ম বা দুর্নীতি কিছুটা কমেছে। এছাড়া, কোম্পানিগুলো বিভিন্ন ধরনের মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করেছে। এর ফলে প্রতারণার পরিমাণ এখন কমে এসেছে।   

বাংলা ট্রিবিউন: ঢাকায় এখন বীমা মেলা হচ্ছে এর প্রভাব কি পড়বে এই খাতের ওপর?

মো. আমিনুর রহমান: ঢাকায় যে বীমা মেলা হলো, এটার ফলে মানুষ বীমার প্রতি আগ্রহী হচ্ছে। বীমা খাতের জন্য এটা একটা ভাল উদ্যোগ। ঢাকা শহরের মতো জেলা শহরে বা উপজেলা শহরেও বীমা মেলা হলে এই খাত  ধীরে ধীরে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। দুই দিনব্যাপী ঢাকায় যে বীমা মেলা করা হলো তা, বিভিন্ন শহরে করা গেলে জনসচেতনতা বাড়বে।

বাংলা ট্রিবিউন: বীমা খাতকে জনপ্রিয় করার ক্ষেত্রে আপনার পরামর্শ কী?

মো. আমিনুর রহমান: যেকোনও পলিসির মেয়াদ পুর্ণ হলে গ্রামেগঞ্জে গিয়ে যদি কোম্পানিগুলো গ্রাহকের টাকা গ্রাহকের হাতে দিয়ে আসে তাহলে, এই খাত মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। বিশেষ করে ‘ভ্রাম্যমাণ দাবি নিষ্পত্তি ইউনিট’ গঠন করে হাঁটেবাজারে, পাড়ায়-মহল্লায় গিয়ে দাবি মেটালে সাধারণ মানুষ নিজেরাই এর প্রচার করবে।  

বাংলা ট্রিবিউন: বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের টাকা চুরির প্রভাব এই খাতে পড়বে কি না?

মো. আমিনুর রহমান: না, রিজার্ভ চুরির পরও বীমা খাতে কোনও বিরূপ প্রভাব পড়বে না। কারণ, বীমা খাতে আগে থেকেই গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণা বা টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। বীমা খাতের গ্রাহকেরা অতীতেও প্রতারিত হয়েছেন, এখনও হচ্ছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের টাকা চুরির ঘটনা এই প্রথম ঘটেছে।

বাংলা ট্রিবিউন: বীমার আওতা বাড়ানোর ব্যাপারে কোন পদ্ধতি অনুসরণ করা উচিত বলে আপনি মনে করেন?

মো. আমিনুর রহমান:  ইউনিয়ন পর্যায়ে গ্রামগঞ্জে যারা ব্যবসা-বাণিজ্য করেন, তাদের সবাইকে বীমার আওতায় আনার সুযোগ রয়েছে। ক্ষুদ্র বীমার মাধ্যমে মুদির দোকানদার বা ক্ষুদে দোকানদারকে যদি ট্রেড লাইসেন্স করা বাধ্যতামুলক করা হয় এবং প্রত্যেক ট্রেড লাইসেন্সের বিপরীতে যদি বীমা করা বাধ্যতামুলক করা হয়, তাহলে দ্রুত এই খাত প্রসার লাভ করবে।

বাংলা ট্রিবিউন:  ছোটবড় সব ব্যবসায়ীকে বীমার আওতায় আনার ব্যাপারে বীমা খাতের শীর্ষ কর্মকর্তাদের কোনও প্রস্তাব আছে কি?

মো. আমিনুর রহমান: বীমা খাতের এমডিদের পক্ষ থেকে একাধিকবার এই ধরনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। শিল্প-কলকারখানার জন্য ফায়ার ইন্সুরেন্স করা বাধ্যতামুলক হলেও সাধারণ দোকানদারদের জন্য তা বাধ্যতামূলক করা হয়নি।

/এমএনএইচ/

সম্পর্কিত

হাতিরঝিল নিয়ে মিস প্ল্যান হয়েছে: মেয়র আতিক

হাতিরঝিল নিয়ে মিস প্ল্যান হয়েছে: মেয়র আতিক

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২০:১৮


করোনাভাইরাসের ভয়াবহ প্রকোপ ঠেকাতে সরকার আরোপিত কঠোর বিধিনিষেধের কারণে ২০২২ সালের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে।

আজ শনিবার (২৪ জুলাই) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর এ সংক্রান্ত অফিস আদেশ জারি করে।

আদেশে জানানো হয়, ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তুক বোর্ড (এনসিটিবি) প্রণীত অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম গত ১৪ জুন থেকে চলমান। ইতোমধ্যে গ্রেডভিত্তিক চতুর্থ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ করা হয়েছে। কোভিড-১৯ জনিত সংক্রমণ রোধে সররকার আরোপিত বিধিনিষেধের কারণ এ অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত থাকবে।

/এসএমএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

‘অন্য দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট দেয়, আর আমাদের দেশে অপমান’

‘অন্য দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট দেয়, আর আমাদের দেশে অপমান’

ভিকারুননিসার উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতির সরেজমিন তদন্তে ইইডি

ভিকারুননিসার উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতির সরেজমিন তদন্তে ইইডি

প্রাথমিকে অনলাইন বদলি কবে?

প্রাথমিকে অনলাইন বদলি কবে?

লকডাউন অমান্য: রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮৩ জন

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২০:১৮

কঠোর লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় আজ শনিবার রাজধানীতে ৩৮৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় ঢাকা মহানগর পুলিশ-ডিএমপির জনসংযোগ ও গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কঠোর লকডাউনের দুদিনে ঢাকায় মোট গ্রেফতার হলেন ৭৮৬ জন।

উপ-কমিশনার জানান, লকডাউন অমান্য করে করে অহেতুক ঘোরাফেরা করার দায়ে দ্বিতীয় দিনে ৩৮৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এছাড়াও মোবাইল কোর্টে ১৩৭ জনকে ৯৫ হাজার ২৩০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অপরদিকে, ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগ ৪৪১টি গাড়িকে ১০ লাখ ৮৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে।

প্রসঙ্গত, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

/এআরআর/এমএস/

সম্পর্কিত

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

কামরাঙ্গীরচরে বাসা থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার

কামরাঙ্গীরচরে বাসা থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার

কঠোর লকডাউনের প্রথম দিন ঢাকায় গ্রেফতার চারশতাধিক

কঠোর লকডাউনের প্রথম দিন ঢাকায় গ্রেফতার চারশতাধিক

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২০:১১

রাজধানীর কমলাপুরে বিআরটিসি ডিপোর ভেতরে পার্কিং করা একটি বাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে বাসটি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে অগ্নিকাণ্ডের কারণ এখনও জানা যায়নি।

আজ শনিবার (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কমলাপুরের বিআরটিসি ডিপোর ভেতরে একটি বিআরটিসি বাসে আগুনে ধরে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে ২০ মিনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে জানা যায়নি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

/এআরআর/ইউএস/

সম্পর্কিত

‘অন্য দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট দেয়, আর আমাদের দেশে অপমান’

‘অন্য দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট দেয়, আর আমাদের দেশে অপমান’

রেমিট্যান্স ভালো পাচ্ছি স্বাস্থ্যসেবার কারণে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

রেমিট্যান্স ভালো পাচ্ছি স্বাস্থ্যসেবার কারণে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

কামরাঙ্গীরচরে বাসা থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার

কামরাঙ্গীরচরে বাসা থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার

ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে স্পিকার ও মন্ত্রীদের শোক

ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে স্পিকার ও মন্ত্রীদের শোক

৫ দিনে করোনায় ১ হাজার মানুষের মৃত্যু

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২০:০৩

ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হয় গত ২১ জুলাই। ঈদের আগের নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৩০ থেকে প্রায় ৪০ হাজার হলেও ঈদের ছুটিতে সেটা কমে আসে। আর নমুনা পরীক্ষার সঙ্গে সঙ্গে কমতে থাকে রোগী শনাক্তের সংখ্যাও। কিন্তু থেমে ছিল না সংক্রমণ। কম নমুনা পরীক্ষায় রোগী শনাক্তের হার ছিল ঊর্ধ্বমুখী। আর সেই সঙ্গে থেমে ছিল না মৃত্যুও। যদিও ঈদের দিন থেকে মৃত্যু কমে এসেছিল ২০০-এর নিচে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর এই ১৯৫ জনের মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে গত দেড় বছরের মহামারিকালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সরকারি হিসেবে মৃত্যু ১৯ হাজার ছাড়লো।

অধিদফতর শনিবার (২৪ জুলাই) জানাচ্ছে, করোনাতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মোট মারা গেলেন ১৯ হাজার ৪৬ জন।

গত ১৯ জুলাই মহামারিকালে একদিনে সর্বোচ্চ ২৩১ জনের মৃত্যু দেখে বাংলাদেশ। তার মধ্যে দিয়ে করোনাতে মৃত্যু ১৮ হাজার ছাড়িয়ে যায়। সে হিসেবে ১৮ হাজার থেকে ১৯ হাজার মৃত্যু ছাড়াতে সময় নিলো মাত্র পাঁচদিন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২০ জুলাইতে মারা যান ২০০ জন, ২১ জুলাইতে ১৭৩ জন, ২২ জুলাইতে ১৮৭ জন, ২৩ জুলাইতে ১৬৬ জন আর আজ ২৪ জুলাইতে মারা গেছেন ১৯৫ জন। সে হিসেবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সর্বশেষ এক হাজার মৃত্যু হয়েছে মাত্র পাঁচ দিনে।

গত বছরের ৮ মার্চে প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্তের ঘোষণা দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। তার ঠিক ১০ দিন পর ১৮ মার্চে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয় বলেও জানায় সরকারি এই সংস্থা। সে থেকে দেড় বছরের কিছু সময় পর এসে এই করোনা মহামারিতে দেশে সরকারি হিসেবে ১৯ হাজার মানুষের প্রাণ গেল।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

ঢাকায় একদিনে ১০৪ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ঢাকায় একদিনে ১০৪ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

প্রবাসী চিকিৎসকদের উপহারের ২৫০ ভেন্টিলেটর আসছে রাতে

প্রবাসী চিকিৎসকদের উপহারের ২৫০ ভেন্টিলেটর আসছে রাতে

ঢাকায় একদিনে সর্বোচ্চ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ঢাকায় একদিনে সর্বোচ্চ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

করোনাভাইরাস

আইসিইউ ফাঁকা আছে মাত্র ৩৮টি

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:৪৯

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালগুলোতে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) সংখ্যা আরও কমেছে।

গতকাল (২৩ জুলাই) হাসপাতালগুলোতে ৪২ বেড ফাঁকা থাকার কথা জানালেও স্বাস্থ্য অধিদফতর আজ জানাচ্ছে, করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ বেড ফাঁকা রয়েছে মাত্র ৩৮টি।

ঢাকায় করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য সরকারিভাবে ১৬টি হাসপাতাল নির্ধারিত। এগুলোর মধ্যে ‑ সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতাল, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্সেস ও হাসপাতাল এবং ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা হলেও সেখানে তাদের জন্য আইসিইউ নেই।

বাকী ১৩ হাসপাতালের মধ্যে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের ১০ বেড, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের ১৬ বেড, সরকারি কর্মচারী হাসপাতালের ছয় বেড, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ২০ বেড, মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ২৪ বেড, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালর ১০ বেড আর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০ বেডের সবগুলোতে রোগী ভর্তি রয়েছেন।

অর্থাৎ, রাজধানী ঢাকার সরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে বড় সাত হাসপাতালেই আইসিইউ ফাঁকা নেই। বাকীগুলোর মধ্যে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালের ১৫ বেডের মধ্যে পাঁচটি, জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের আট বেডের মধ্যে দুইটি, টিবি হাসপাতালের ১৬ বেডের মধ্যে ১২টি, জাতীয় বক্ষব্যাধি ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের ১০ বেডের মধ্যে চারটি ও ডিএনসিসি করোনা হাসপাতালের ২১২ বেডের মধ্যে ১৪টি বেড ফাঁকা রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া রাজধানীর হাসপাতালগুলোর ৩৯৩ আইসিইউ বেডের মধ্যে মাত্র ৩৮ বেড ফাঁকা রয়েছে।

/জেএ/এমএস/

সম্পর্কিত

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত

লকডাউন অমান্য: রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮৩ জন

লকডাউন অমান্য: রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮৩ জন

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

৫ দিনে করোনায় ১ হাজার মানুষের মৃত্যু

৫ দিনে করোনায় ১ হাজার মানুষের মৃত্যু

সর্বশেষ

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে রশিতে বেঁধে পেটানোর অভিযোগ

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে রশিতে বেঁধে পেটানোর অভিযোগ

লকডাউন অমান্য: রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮৩ জন

লকডাউন অমান্য: রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮৩ জন

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

কমলাপুর বিআরটিসি ডিপোতে হঠাৎ আগুনে পুড়লো বাস

প্রতিদ্বন্দ্বী ইসরায়েলের, খেলতে না চাওয়ায় শাস্তি

প্রতিদ্বন্দ্বী ইসরায়েলের, খেলতে না চাওয়ায় শাস্তি

শরীরে ক্যামেরা নিয়ে চলবে চট্টগ্রামের ৪ থানার পুলিশ

শরীরে ক্যামেরা নিয়ে চলবে চট্টগ্রামের ৪ থানার পুলিশ

এক ক্যাটাগরিতে তিন রেকর্ড চীনের, ভারতের প্রথম পদক

এক ক্যাটাগরিতে তিন রেকর্ড চীনের, ভারতের প্রথম পদক

নিখোঁজের দুই দিন পর পর্যটকের লাশ উদ্ধার

নিখোঁজের দুই দিন পর পর্যটকের লাশ উদ্ধার

‘পিলারের সঙ্গে ফেরির ধাক্কা অস্বাভাবিক কিছু নয়’

‘পিলারের সঙ্গে ফেরির ধাক্কা অস্বাভাবিক কিছু নয়’

৫ দিনে করোনায় ১ হাজার মানুষের মৃত্যু

৫ দিনে করোনায় ১ হাজার মানুষের মৃত্যু

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হাতিরঝিল নিয়ে মিস প্ল্যান হয়েছে: মেয়র আতিক

হাতিরঝিল নিয়ে মিস প্ল্যান হয়েছে: মেয়র আতিক

© 2021 Bangla Tribune