X

সেকশনস

ভুতুড়ে বিল ঠিক করতে বিতরণ কোম্পানিকে ৭ দিনের আল্টিমেটাম

আপডেট : ২৮ জুন ২০২০, ১৮:৫৯

বিদ্যুৎ বিল এক সপ্তাহের মধ্যে ঠিক করে দিতে সব ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল। বিতরণ কোম্পানিকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। পাশাপাশি এই অতিরিক্ত বিল করার জন্য যারা দায়ী তাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।
বিদ্যুৎ বিভাগের একটি বৈঠক সূত্র জানায়, কোন কোন গ্রাহকের অতিরিক্ত বিল এসেছে তা খুঁজে বের করবে বিতরণ সংশ্লিষ্টরা। এরপর সেই গ্রাহকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে। আবার গ্রাহক নিজে যদি মনে করেন তাদের অতিরিক্ত বিল এসেছে তিনিও স্থানীয় বিতরণ কোম্পানির অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন।
তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিদ্যুৎ বিভাগের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এ সংক্রান্ত একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকের কথা উল্লেখ করে বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, বিদ্যুৎ বিলের এই ভোগান্তি নিয়ে কয়েকটি বৈঠক হয়েছে। তাতে এসব বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। যেসব বিদ্যুৎ বিল অতিরিক্ত এসেছে আগামী ৭ দিনের মধ্যে সেগুলো খুঁজে বের করতে বলা হয়েছে বিতরণ কোম্পানিগুলোকে। ৭ দিনের মধ্যেই সেগুলো সমাধান করতে হবে। এছাড়া এই যে অতিরিক্ত বিল করেছে তার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করতে হবে। এরপর শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।
বিদ্যুৎ সচিব ড. সুলতান আহমেদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা ৩০ জুন পর্যন্ত সারচার্জ ছাড়া বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার কথা বললেও যাদের ক্ষেত্রে এই অতিরিক্ত বিলের অভিযোগ পাওয়া যাবে তাদের ক্ষেত্রে আমরা জরিমানা করবো না। বিতরণ কোম্পানিগুলোকে দ্রুততার সঙ্গে এই অতিরিক্ত বিল সমন্বয় করে দিতে বলা হয়েছে। টাস্কফোর্সের কমিটিগুলো কাজ করছে। আশা করছি দ্রুতই গ্রাহক এই ভোগান্তি কাটিয়ে উঠবে। যারা এই বিল দিতে পারছেন না তারা যদি বিতরণ কোম্পানিতে যোগাযোগ করেন তাহলে তাদের বিল ঠিক করে দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগ এখানে ব্যবসা করতে বসেনি। আমরা জনগণের সেবা করছি। তাদের কোনও ভোগান্তি হলে তার দায় আমাদের। সেটির সমাধান আমাদেরই করতে হবে।
জানা যায়, এখন অতিরিক্ত বিলের সঙ্গে বিল পরিশোধের ক্ষেত্রেও বিড়ম্বনায় পড়ছে। পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের অধীনের কোনও কোনও সমিতি গ্রামে গ্রামে গিয়ে বুথ করে বিল নিচ্ছে। কিন্তু ঢাকায় করোনাভাইরাসের প্রকোপের মধ্যে বিল দেওয়া গ্রাহকের জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়াচ্ছে। বিদ্যুৎ বিল নেওয়ার জন্য ঢাকায় কোনও বুথ করা যায় কি না সে বিষয়ে চিন্তা করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।
প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের এই মহামারিতে মার্চ এবং এপ্রিল মাসে মিটার রিডাররা কোনও রিডিং নিতে পারেনি। আগের মাসগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করে গড় বিল করে দেন। কিন্তু মে মাসে এসে অনেক এলাকায় রিডিং নেওয়া হয় আবার কোথাও কোথাও নেওয়া হয়নি। কিন্তু অধিকাংশ গ্রাহক অভিযোগ করেন তাদের বিল গত কয়েক মাসের তুলনায় দুই থেকে তিন গুণ বেশি করা হয়েছে। বিতরণ কোম্পানিগুলো প্রথম দিকে তা স্বীকার না করলেও যখন এ ধরনের অসংখ্য অভিযোগ আসতে শুরু করে তখন বিষয়টি বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় অবহিত হয়। এ অবস্থায় গত সপ্তাহে এ অতিরিক্ত বিলের সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি দিতে দুটি কমিটি করে দেয়। সাতদিনের মধ্যে জড়িতদের খুঁজে বের করতে কমিটিকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন:
হঠাৎ কেন ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল?
অতিরিক্ত বিল বাতিল না করলে টাস্কফোর্স গঠন অর্থহীন
অর্থবছরের হিসাব মেলাতে বাড়তি বিলের বোঝা চাপানো হচ্ছে!

/এসএনএস/এমআর/

সম্পর্কিত

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

হেলিকপ্টারে চড়ে গার্মেন্টকর্মীর বিয়ে!

হেলিকপ্টারে চড়ে গার্মেন্টকর্মীর বিয়ে!

গৃহ নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ

গৃহ নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ

মাতারবাড়িতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩

মাতারবাড়িতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩

শেয়ার বাজারের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে

শেয়ার বাজারের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় ছাত্র অধিকার পরিষদের নিন্দা

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় ছাত্র অধিকার পরিষদের নিন্দা

মোটরসাইকেলে অটোরিকশার ধাক্কা, পুলিশ কনস্টেবল নিহত

মোটরসাইকেলে অটোরিকশার ধাক্কা, পুলিশ কনস্টেবল নিহত

ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

অনশনরত খুবির দুই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বললেন কে‌সি‌সি মেয়র

অনশনরত খুবির দুই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বললেন কে‌সি‌সি মেয়র

সর্বশেষ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

কেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

শুভ জন্মদিন নায়করাজ রাজ্জাককেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতির নির্দেশনা জারি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতির নির্দেশনা জারি

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মার্চে হচ্ছে না এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

মার্চে হচ্ছে না এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শেয়ার বাজারের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে

শেয়ার বাজারের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে

ব্যাংকের এমডি-পরিচালকদের সম্পদের বিবরণী দাখিল করতে হবে

ব্যাংকের এমডি-পরিচালকদের সম্পদের বিবরণী দাখিল করতে হবে

অর্থনীতির প্রধান ছয় সূচক এখনও ঊর্ধ্বমুখী

অর্থনীতির প্রধান ছয় সূচক এখনও ঊর্ধ্বমুখী

বাংলাদেশে সানোফি’র ব্যবসা কিনে নিচ্ছে বেক্সিমকো

বাংলাদেশে সানোফি’র ব্যবসা কিনে নিচ্ছে বেক্সিমকো

ডলার আয় করলে কার্ডে নিতে ঘোষণা দিতে হবে না

ডলার আয় করলে কার্ডে নিতে ঘোষণা দিতে হবে না

স্বল্পসুদে ২০৮৯ ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাকে ১১৩ কোটি টাকা ঋণ দিলো এসএমই ফাউন্ডেশন

স্বল্পসুদে ২০৮৯ ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাকে ১১৩ কোটি টাকা ঋণ দিলো এসএমই ফাউন্ডেশন

করোনার টিকা সংরক্ষণে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে হবে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

করোনার টিকা সংরক্ষণে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে হবে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.