ধর্ষণ মামলায় তিতুমীর কলেজ শিক্ষার্থী গ্রেফতার

Send
বরিশাল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:১৩, অক্টোবর ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৭, অক্টোবর ২০, ২০২০

 বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী সাজ্জাদ গাজীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সাজ্জাদ উপজেলার আমবৌলা গ্রামের খোরশেদ আলম গাজীর ছেলে এবং অনার্স শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। 
মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকালে নির্যাতনের শিকার ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। দুপুরে সাজ্জাদকে আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক কারাগারে পাঠান। এ ঘটনায় সোমবার রাতে নির্যাতনের শিকার ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সাজ্জাদকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।   

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মাহাবুব আলম খান জানান, কলেজছাত্রীর বাবা মারা যাওয়ার পরে আর্থিক অনটনের কারণে তার মা বন্দরে ঝাড়ুদারের কাজ নেন। সেই কারণে ওই বন্দরে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে দুই মেয়েসহ বসবাস করে আসছিলেন তিনি। তার মেয়ে স্থানীয় একটি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী। গত ৫/৬ মাস আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকের মাধ্যমে সাজ্জাদ গাজীর সঙ্গে তার মেয়ের পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রেমের সূত্র ধরে সাজ্জাদ বিভিন্ন সময় বাড়ি আসলে তার মেয়েকে বিয়ের কথা বলে একাধিকবার ধর্ষণ করে। সোমবার সন্ধ্যায় ঘরে ফিরে বাদী মেয়েকে ধর্ষণ করতে দেখে ফেলেন। এরপর তার ডাক চিৎকারে বাজারের লোকজন এগিয়ে এলে সাজ্জাদ পালানোর সময় স্থানীয়দের হাতে আটক হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সাজ্জাদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ওই রাতেই ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সাজ্জাদকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

আগৈলঝাড়া থানার ওসি গোলাম সরোয়ার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিতুমীর কলেজ শিক্ষার্থীর দাবি সে ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনের কর্মী। ধর্ষণের মতো ঘটনায় সে সম্পৃক্ত নয়, তাকে ফাঁসানো হয়েছে। অন্যদিকে নির্যাতনের শিকার তরুণীকে জবানবন্দি দেওয়ার জন্য আদালতে ও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর অভিযুক্ত শিক্ষার্থী সাজ্জাদকে আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান বলে জানান তিনি।

 

/টিটি/

লাইভ

টপ