X
বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২
২ ভাদ্র ১৪২৯

সমিতি খুলে আড়াই কোটি টাকা নিয়ে উধাও

বগুড়া প্রতিনিধি
২৫ মে ২০২২, ২২:২২আপডেট : ২৫ মে ২০২২, ২২:২২

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে অধিক মুনাফা দেওয়ার কথা বলে দরিদ্র ও অসহায় মানুষের কাছ থেকে আড়াই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়ে গেছে ‘বাঁধবাসী একতাবদ্ধ শ্রমজীবী সমবায় সমিতি’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান। ভুক্তভোগীরা তাদের টাকাগুলো ফেরত পেতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন। এর আগে মানববন্ধন করেছেন তারা।

ভুক্তভোগীরা জানান, ২০১৪ সালে সারিয়াকান্দি পৌর এলাকার বাড়ইপাড়ায় ‘বাঁধবাসী একতাবদ্ধ শ্রমজীবী সমবায় সমিতি’ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১৮ সালে উপজেলা সমবায় অফিসের নিবন্ধন পায় প্রতিষ্ঠানটি। সমিতির সভাপতি হিসেবে খোরশেদ আলম ভাসানী, সহ-সভাপতি জহির রায়হান উকিল ও সাধারণ সম্পাদক টুকু মিয়া প্রধান দায়িত্ব পালন করেন। তারা কর্মী নিয়োগ দিয়ে অধিক মুনাফার কথা বলে সাপ্তাহিক, মাসিক ও এককালীনসহ বিভিন্নভাবে সঞ্চয় গ্রহণ করেন। তাদের কথামতো যমুনা নদীর ভাঙনে সর্বস্বান্ত ব্যক্তিরা সমিতিতে টাকা সঞ্চয় শুরু করেন। প্রায় ৬০০ সদস্য বিভিন্ন অংকের টাকা সঞ্চয় করেন। শর্ত অনুযায়ী ২০২১ সালের আগস্ট থেকে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা ছিল তাদের। কিন্তু সমিতির পরিচালক ও কর্মীরা নানা অজুহাতে সময়ক্ষেপণ করেন। সর্বশেষ গত বছরের ৩০ নভেম্বর টাকা ফেরত দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ৬০০ সদস্যের জমানো আড়াই কোটি টাকা নিয়ে কার্যালয় ও বাড়িতে তালা দিয়ে রাতের আঁধারে পালিয়ে যান সমিতির কর্মকর্তারা।

ভুক্তভোগীরা আরও জানান, টাকা ফেরত পেতে তারা বিভিন্ন দফতরে ধরনা দিয়ে আসছেন। কিন্তু কেউ টাকা উদ্ধারের তাদের সহযোগিতা করেননি। বাধ্য হয়ে ২৩ মে তিন শতাধিক সদস্য উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানববন্ধন করেন। পরে তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্মারকলিপি দেন।

সমিতির সদস্য কাকলী বেগম বলেন, ‘সমিতিতে ছয় শতাধিক সদস্য রয়েছেন। অধিক মুনাফার আশায় মাসিক, এককালীন, দৈনিক ও বিভিন্ন মেয়াদে টাকা সঞ্চয় করেছেন তারা। আমি মাসিক সঞ্চয় করেছি।’

সোলায়মান হোসেন বলেন, ‘আমাদের সঞ্চয় প্রায় আড়াই কোটি টাকা হয়েছে। মাঝেমধ্যে সমিতির সভাপতি খোরশেদ ও সাধারণ সম্পাদক টুকু সদস্যদের মাঝে কিছু ঋণ বিতরণ করেছেন। এখন সব টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছেন। আমরা তাদের বিচার চাই। আমাদের টাকা ফেরত চাই।’ 

মোরশেদা বেগম ও ফাইন মিয়াসহ কয়েকজন ভুক্তভোগী জানান, তারা ভবিষ্যতের আশায় অনেক কষ্টে খেয়ে না খেয়ে সপ্তাহের পর সপ্তাহ,
মাসের পর মাস টাকা সঞ্চয় করেছেন। কিন্তু সমিতির কর্মকর্তারা তাদের সঙ্গে প্রতারণা করে রাতের আঁধারে টাকাগুলো নিয়ে পালিয়ে গেছেন। টাকার চিন্তায় এখন তারা দিশেহারা। ভুক্তভোগীরা অবিলম্বে তাদের টাকাগুলো উদ্ধার ও প্রতারকদের গ্রেফতারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন।

সারিয়াকান্দি উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বাঁধবাসী একতাবদ্ধ শ্রমজীবী সমবায় সমিতির সঞ্চিত টাকাগুলো উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। সমিতির কর্মকর্তাদের ধরার চেষ্টা করছি আমরা।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, ‌‘আমি ভুক্তভোগীদের মামলা করার পরামর্শ দিয়েছি। মামলার পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এছাড়া ভুক্তভোগীদের ব্যাংক, বীমা ও ডাকঘরসহ সরকারি প্রতিষ্ঠানে টাকা সঞ্চয় করার পরামর্শ দিয়েছি।’

/এএম/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
পারমাণবিক ক্ষমতাধর ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো যুক্তরাষ্ট্র
পারমাণবিক ক্ষমতাধর ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো যুক্তরাষ্ট্র
অনেক মামলা ঝুলে আছে নিম্ন আদালতে
অনেক মামলা ঝুলে আছে নিম্ন আদালতে
ইউক্রেন সফরে আসছেন এরদোয়ান ও গুতেরেস
ইউক্রেন সফরে আসছেন এরদোয়ান ও গুতেরেস
গ্রিস-তুরস্ক সীমান্তের নির্জন দ্বীপে ৩৮ অভিবাসী উদ্ধার
গ্রিস-তুরস্ক সীমান্তের নির্জন দ্বীপে ৩৮ অভিবাসী উদ্ধার
এ বিভাগের সর্বশেষ
১৮ বছর ধরে জহিরুলের সরকারি চাকরিটি করছেন আরেকজন
১৮ বছর ধরে জহিরুলের সরকারি চাকরিটি করছেন আরেকজন
তেল কম দেওয়ায় ২ ফিলিং স্টেশনকে লাখ টাকা জরিমানা 
তেল কম দেওয়ায় ২ ফিলিং স্টেশনকে লাখ টাকা জরিমানা 
সৌদি দূতাবাসের কথা বলে ইউপি ভবনে নিলো আঙুলের ছাপ
সৌদি দূতাবাসের কথা বলে ইউপি ভবনে নিলো আঙুলের ছাপ
মোটা অঙ্কের টাকায় নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় পাস, মৌখিক দিতে এসে আটক
মোটা অঙ্কের টাকায় নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় পাস, মৌখিক দিতে এসে আটক
সুজি-চিনি-রং মিশিয়ে গুড় তৈরি, পাত্রে মরা কাঠবিড়ালি
সুজি-চিনি-রং মিশিয়ে গুড় তৈরি, পাত্রে মরা কাঠবিড়ালি