কিছু দল পাকিস্তানের ভাষায় কথা বলছে: নাগরিকত্ব বিল নিয়ে মোদি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:২৫, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩৩, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে বিরোধীদের আচরণে উষ্মা প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার ক্ষমতাসীন উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি-র বৈঠকে এ নিয়ে নিজের ক্ষোভের কথা জানান তিনি। নরেন্দ্র মোদি বলেন, কিছু দল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে পাকিস্তানের ভাষায় কথা বলছে। সূত্রের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।
ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, ২০১৯ পেশ করেন। সেখানে ভোটাভুটির মাধ্যমে ইতোমধ্যেই বিলটি পাস হয়েছে। বুধবার রাজ্যসভায় এ নিয়ে ভোটাভুটির কথা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ক্ষমতাসীন উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি লোকসভার মতো রাজ্যসভায়ও বিলটি পাস করিয়ে নিতে সক্ষম হবে।

বুধবার রাজ্যসভায় বিল উত্থাপনের আগে গ্রন্থাগার ভবনে কৌশল নির্ধারণী বৈঠকে বসে বিজেপি। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময় তিনি বলেন, ‘নাগরিকত্ব বিল স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। এটি ধর্মীয় নিপীড়ন থেকে পালিয়ে আসা মানুষদের স্থায়ীত্ব তথা স্বস্তি দেবে।’

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল, সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী, তথ্যপ্রযুক্তি ও আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং মহিলা ও শিশু উন্নয়নমন্ত্রী স্মৃতি ইরানীসহ বিজেপি-র শীর্ষস্থানীয় নেতারা এই বৈঠকে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, লোকসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের। সেখানে এ বিলের পক্ষে পড়েছে ৩১১ ভোট। ৮০টি ভোট পড়েছে বিলের বিরুদ্ধে। তবে রাজ্যসভায় বিজেপি জোটের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই। বর্তমান পরিস্থিতিতে সেখানে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে প্রয়োজন ১২১ ভোট। তবে এনডিএ-র পক্ষে রয়েছেন ১১৬ জন। অবশ্য ভোটাভুটিতে নিজেদের পক্ষে আরও ১৪ জনকে নিয়ে আসার ব্যাপারে আশাবাদী বিজেপি। সেক্ষেত্রে ভোটাভুটিতে ১৩০ জনের সমর্থন পাবে তারা; যা প্রয়োজনের চেয়ে বেশি।

/এমপি/

লাইভ

টপ