নিউ ইয়র্কে একদিনে দুই শতাধিক মৃত্যু, তবুও কোয়ারেন্টিন নয়!

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৫৪, মার্চ ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০৭, মার্চ ২৯, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে শনিবার দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু সত্ত্বেও নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিনে রাখার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগে ট্রাম্প আভাস দিয়েছিলেন, কোভিড-১৯-এর বিস্তার কমাতে গোটা নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি ও কানেকটিকাটের কিছু অংশে কোয়ারেন্টিন আরোপ করা হতে পারে। এখন তিনি বলেছেন, নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিনে রাখার প্রয়োজন পড়বে না।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ড ওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ২৩ হাজার ৭৭৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ২২৯ জন। ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইল বলছে, আক্রান্তদের মধ্যে ৫৩ হাজার ৫১০ জন নিউ ইয়র্কের। শহরে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট প্রাণহানির সংখ্যা ৬৭২।

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা নিউ ইয়র্কে। এমন পরিস্থিতিতে শনিবার (২৮ মার্চ) সকালে সাংবাদিকদের ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, নিউ ইয়র্কে কোয়ারেন্টিন আরোপের কথা ভাবা হচ্ছে। সে সময় তিনি বলেন, ‘এখানে কোয়ারেন্টিন আরোপ করা হলে ভালো হবে, কারণ এটি হটস্পট। আমি এ নিয়ে ভাবছি।’ ট্রাম্প তখন আরও জানিয়েছিলেন, নিউ ইয়র্ক থেকে যেন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য রাজ্যে করোনা ছড়িয়ে না পড়ে তা নিশ্চিত করতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

ট্রাম্পের সেই অবস্থানের সঙ্গে একমত হননি নিউ ইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো। তার দাবি, এ ধরনের পদক্ষেপ ভ্রান্তি তৈরি করবে এবং তা আমেরিকানবিরোধী সিদ্ধান্ত। নিউ ইয়র্কে এমনিতেই কোয়ারেন্টিনমূলক পদক্ষেপ চলছে, সেখানে গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা আছে, জনগণকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর চেয়ে বেশি পদক্ষেপ নিলে তা লকডাউনের মতো অবস্থা হয়ে যাবে। এতে আর্থিক খাত অচল হয়ে পড়বে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেন কুমো।

এর পরপরই এক টুইটার পোস্টে ট্রাম্প জানান, নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিনে নেওয়ার প্রয়োজন হবে না। টুইটার পোস্টে ট্রাম্প লিখেছেন, ‘কোয়ারেন্টিনের বদলে নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি ও কানেকটিকাটে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করবে সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।’

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, হোয়াইট হাউজ করোনা ভাইরাস টাস্কফোর্সের সুপারিশ অনুযায়ী নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিনে না নেওয়ার নতুন এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ট্রাম্পের টুইটের পর একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে সিডিসি। সেখানে তিন অঙ্গরাজ্যের বাসিন্দাদের ১৪ দিনের জন্য সব ধরনের অত্যাবশ্যকীয় আভ্যন্তরীণ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সেবাদানকারী, খাদ্য সরবরাহকারীসহ জরুরি সেবা প্রদান কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিরা এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবেন না।

/এফইউ/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ