আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদকের পদত্যাগ, দায়িত্ব পেলেন প্রথম নারী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:৫৪, জুন ০২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৮:২৯, জুন ০২, ২০২০

উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন বাংলা সংবাদপত্র আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদক অনির্বাণ চট্টোপাধ্যায় পদত্যাগ করেছেন। গত শনিবার রাতে তিনি পদত্যাগ করার পর রবিবার নতুন ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক নিয়োগ দিয়েছে ভারতের কলকাতাভিত্তিক সংবাদপত্রটির ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ। সোমবার পত্রিকাটির প্রিন্টার্স লাইনে প্রথমবারের মতো নারী সম্পাদক হিসেবে ছাপা হয়েছে ঈশানী দত্ত রায়-এর নাম। জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

১৯২২ সালের ১৩ মার্চ চালু হয় আনন্দবাজার পত্রিকা। বিভিন্ন সময়ে নানা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি পত্রিকাটির সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। চার বছর আগে সম্পাদকের দায়িত্ব নেন অনির্বাণ চট্টোপাধ্যায়। করোনা সংক্রমণে মৃত্যু নিয়ে ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশের অভিযোগে গত এপ্রিলে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়। এর জেরে সম্প্রতি তাকে তলব করে কলকাতা পুলিশ। এ নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই পদত্যাগ করেন তিনি।

রবিবার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পান ঈশানী দত্ত রায়। ভারতের বেথুন কলেজ ও প্রেসিডেন্সির স্নাতক ঈশানী ১৯৯৬ সালে আনন্দবাজার পত্রিকায় যোগ দেন। পড়াশোনার জন্য কিছুদিন বিরতি দিয়ে ২০০৪ সালে আবারও পত্রিকার কাজে যোগ দেন তিনি। তখন থেকে টানা পত্রিকাটির বিভিন্ন দায়িত্ব পালন শেষে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্ব নিলেন তিনি।

সোমবার পত্রিকাটির দ্বিতীয় পাতায় প্রিন্টার্স লাইনে ভারতের প্রেস অ্যান্ড রেজিস্ট্রিশন অব বুক অ্যাক্টস (পিআরবি) এর কথা উল্লেখ করে লেখা হয়েছে, ‘পিআরবি অ্যাক্ট অনুযায়ী সংবাদ নির্বাচনের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক- ঈশানী দত্ত রায়’। অনেকেই মনে করছেন মামলার জেরে নিজেদের দায় এড়াতে পত্রিকাটির মালিক পক্ষ প্রিন্টার্স লাইনে ‘পিআরবি অ্যাক্ট অনুযায়ী’ কথাটি উল্লেখ করেছেন।

/জেজে/বিএ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ