নতুন শিক্ষানীতি ‘রাফালে যুদ্ধবিমানের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ’: শিবসেনা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৫৭, জুলাই ৩১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৫৮, জুলাই ৩১, ২০২০

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের উন্মোচিত নতুন শিক্ষানীতি ২০২০ রাফালে যুদ্ধবিমান কেনার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেছে শিবসেনা। তবে এই শিক্ষানীতির উপযুক্ত বাস্তবায়ন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে মহারাষ্ট্রের দলটি। বৃহস্পতিবার দলটির মুখপত্র সামনাতে শিক্ষানীতি নিয়ে এক সম্পাদকীয়তে দলটির মূল্যায়ন তুলে ধরা হয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এখবর জানিয়েছে।

সামনার সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভালো একটি কাজ করেছেন। তিনি দেশের শিক্ষানীতি পুরোপুরি বদলে দিয়েছেন। ৩৪ বছর পর এই পরিবর্তন হলো। ফ্রান্সের কাছ থেকে যুদ্ধবিমান কেনার চেয়ে এটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

এতে বলা হয়েছে, আমরা এই শিক্ষানীতি গুরুত্বপূর্ণ বলছি কারণ এখন দেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় পেয়েছে। ফলে এখন দেশে শিক্ষামন্ত্রী থাকবেন। শিক্ষাখাতে কোনও ব্যক্তির অভিজ্ঞতা যদি থাকে তাহলে তাকে শিক্ষামন্ত্রী হতে দিন। অনেকেরই অর্থ-বিষয়ক অভিজ্ঞতা ও স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য জানা না থাকলেও তাদের মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এগুলো খুব ভালো কাজে আসেনি।

নতুন শিক্ষানীতিতে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত এবং সম্ভব হলে অষ্টম বা এর বাইরে স্থানীয় বা মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের কথা বলা হয়েছে। ফলে হিন্দি, ইংরেজি ভাষা শিক্ষা হিসেবে থাকবে। কিন্তু তা হবে স্থানীয় বা মাতৃভাষায়। এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে

 

/এএ/

লাইভ

টপ