পরিবেশবাদীদের অ্যাকাউন্ট বাতিল করেছে ফেসবুক

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:১৬, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩৭, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০

পরিবেশবাদী বেশ কিছু সংস্থা ও ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট বাতিল করে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। নিজেদের প্লাটফর্মে জলবায়ু বিজ্ঞান সংক্রান্ত ভূয়া তথ্যের প্রবাহ ঠেকানোর ঘোষণা দেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে এই পদক্ষেপ নিয়েছে ফেসবুক। অ্যাকাউন্ট বাতিল হওয়া সংস্থাগুলোর মধ্যে রয়েছে গ্রিনপিস ইউএসএ, ক্লাইমেট হকস ভোট এবং রেইনফরেস্ট অ্যাকশন নেটওয়ার্ক। অ্যাকটিভিস্টরা বলছেন, বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদের অধিকার হরণের অভিযোগে আদিবাসী, জলবায়ু ও সামাজিক ন্যায়বিচারের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু ব্যক্তির অ্যাকাউন্টও বাতিল করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

যেসব ব্যক্তি ও সংস্থার অ্যাকাউন্ট ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বাতিল করেছে সেগুলো গত বছরের মে মাস থেকে কেকেআর অ্যান্ড কো নামে একটি মার্কিন বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রচার চালাচ্ছিল। প্রতিষ্ঠানটি কানাডার উত্তর ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় ৬৭০ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি উপকূলীয় গ্যাস নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ওই নির্মাণ কাজের বিরুদ্ধেই সরব হয় এসব ব্যক্তি ও সংস্থা।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বাতিল হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন দিলি নিকাল নামের এক অ্যাকটিভিস্ট। তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে চরম সহিংসতার ভিডিও, উগ্র ডানপন্থী মতাদর্শ এবং উইসনকনসিনের কেনোসায় মিলিশিয়াদের সহিংসতার আহ্বান থাকতে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কেবল একটি অনলাইন পিটিশন পোস্ট করার কারণে আমাদের নিষিদ্ধ করা হয়েছে আর স্থায়ীভাবে সরিয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে।’

বাতিল হওয়া বেশকিছু অ্যাকাউন্ট পরে পুনর্বহাল করা হয়েছে। যদিও এখনও বেশ কিছু বাতিল রয়েছে। তবে এই বিষয়ে কোনও পূর্ণাঙ্গ ব্যাখ্যা দেয়নি ফেসবুক। তবে ফেসবুকের এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘ভুলক্রমে আমাদের সিস্টেম এসব অ্যাকাউন্ট ও কন্টেন্ট মুছে দেয়। পরে সেগুলো ফিরিয়ে আনা হয়েছে আর প্রোফাইল চিহ্নিত করার কোনও সীমাবদ্ধতা আমরা তুলে নিয়েছি।’

তবে সপ্তাহখানেক আগে জলবায়ু বিজ্ঞান নিয়ে ভুল তথ্য প্রবাহ ঠেকানোর ঘোষণা দেয় ফেসবুক। এক বিবৃতিতে কোম্পানিটি জানায়, ‘আমরা জলবায়ু সংক্রান্ত ভুল তথ্য মোকাবিলায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ