X
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪
২১ ফাল্গুন ১৪৩০

সদরঘাট থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা

জবি প্রতিবেদক
১৭ নভেম্বর ২০২৩, ১৫:৪৮আপডেট : ১৭ নভেম্বর ২০২৩, ১৫:৫৭

ঘূর্ণিঝড় ‘মিধিলি’র প্রভাবে ঢাকা নদীবন্দরে ৩ নম্বর বিপদ সংকেত ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে সদরঘাট টার্মিনাল থেকে দক্ষিণাঞ্চলের সব রুটে লঞ্চসহ যাত্রীবাহী সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সকালে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগ এ নির্দেশনা দিয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়, ফলে ফিরে যেতে বাধ্য হন যাত্রীরা

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিআইডব্লিউটিএ নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের ঢাকা নদীবন্দরের যুগ্ম পরিচালক ইসমাইল হোসাইন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে সব যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। পরিবর্তী নির্দেশনা দেওয়া না পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে।

রাজধানী থেকে দক্ষিণাঞ্চলের সব গন্তব্যে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে

এদিকে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে সদরঘাটে এসে লঞ্চ না পেয়ে বিপাকে পড়েছেন দক্ষিণাঞ্চলগামী যাত্রীরা। অবরোধের কারণে অধিকাংশ যাত্রীই শুক্রবার সদরঘাট এসেছিলেন দক্ষিণাঞ্চলের নিজ গন্তব্যে যাওয়ার জন্য। লঞ্চ বন্ধ থাকায় অপেক্ষা করে অনেকেই ছুটে যাচ্ছেন সায়দাবাদ বাস টার্মিনালে। আবার অনেককে ফিরে যেতেও দেখা গেছে।

সদরঘাট এলাকার খেয়া পারাপার চলছে

ভোলাগামী যাত্রী রাকীব ফরাজী বলেন, মিরপুর-২ থেকে এই বৃষ্টির মধ্যে সদরঘাট আসলাম। এসে দেখি লঞ্চ নেই। অপেক্ষা করছিলাম যদি লঞ্চ ছাড়ে। কিন্তু সবাই বলছে ছাড়বে না। তাই এখন আবার মিরপুর চলে যাবো।

বরিশালগামী যাত্রী নূর আলম বলেন, প্রতিদিন অবরোধ-ঝামেলা, তাই শুক্রবার আসলাম বাড়ি যাবো বলে। এসে দেখি লঞ্চ যাবে না। এখন সায়দাবাদ যাবো ভাবছি।

ঝড়ো আবহাওয়ায় সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ, যাত্রীরা এসে ফিরে যাচ্ছেন সদরঘাট থেকে

লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক আছে সদরঘাট এলাকার খেয়া পারাপার অব্যাহত আছে। যাত্রী কম হলেও ওয়াইজ ঘাট ও নীলকুঠি ঘাট থেকে পারাপার করছেন খেয়া মাঝিরা। বৃষ্টির কারণে যাত্রীদের ছাতা মাথায় দিয়েই খেয়া পারাপার হতে দেখা যায়।

ছবি: নাসিরুল ইসলাম। 

/এফএস/
সম্পর্কিত
রাজধানীতে কিশোর গ্যাংয়ের ৩৩ সদস্য গ্রেফতার, কাউন্সিলররা জড়িত থাকলে ব্যবস্থা
শাহবাগ থানার জব্দ করা গাড়ির গ্যারেজে আগুন
মোহাম্মদপুরে হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযান, আটক ৩৫
সর্বশেষ খবর
বিদেশি অনুদানে পরিচালিত এনজিও ২৬১২টি
বিদেশি অনুদানে পরিচালিত এনজিও ২৬১২টি
তিন লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে গ্রাম আদালত বিল সংসদে
তিন লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে গ্রাম আদালত বিল সংসদে
রাজধানীতে কিশোর গ্যাংয়ের ৩৩ সদস্য গ্রেফতার, কাউন্সিলররা জড়িত থাকলে ব্যবস্থা
রাজধানীতে কিশোর গ্যাংয়ের ৩৩ সদস্য গ্রেফতার, কাউন্সিলররা জড়িত থাকলে ব্যবস্থা
সরকার সব ক্ষেত্রে প্রতিহিংসাপরায়ণ: মির্জা ফখরুল
হাফিজ উদ্দিন কারাগারেসরকার সব ক্ষেত্রে প্রতিহিংসাপরায়ণ: মির্জা ফখরুল
সর্বাধিক পঠিত
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
ভাইভা চলাকালে মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর পায়ে গুলি করলেন শিক্ষক
ভাইভা চলাকালে মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর পায়ে গুলি করলেন শিক্ষক
ছাত্রকে কেন গুলি করলেন মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষক?
ছাত্রকে কেন গুলি করলেন মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষক?