X
শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪
১০ শ্রাবণ ১৪৩১

জাতীয় নির্বাচন নিয়ে অনেক চাপ ছিল: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
১৪ জানুয়ারি ২০২৪, ১৫:৪৬আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২৪, ১৭:১৬

অনেক চাপের মধ্যেই দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে উল্লেখ করে নবনিযুক্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘নির্বাচন নিয়ে বহু চাপ... গভীর চাপ, মধ্যম চাপ— নানা ধরনের চাপ ছিল। নানা চাপ উৎরে নির্বাচন হয়ে গেছে। সুতরাং আমরা কারও কোনও চাপ কখনও অনুভব করি না। বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন পারসেপশন থাকে। আমরা সেগুলোকে ভ্যালু করি। তবে দিন শেষে সবাই আমরা একযোগে কাজ করবো।’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পেয়ে টানা চতুর্থবার সরকার গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। নতুন মন্ত্রিসভায় প্রথমবারের মতো পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়ে রবিবার (১৪ জানুয়ারি) প্রথমবারের মতো দফতরে আসেন আগের মেয়াদের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।

নতুন সরকারের সঙ্গে সবাই কাজ করবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরাও সবার সহযোগিতা নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। ৫২ বছরের পথচলায় সবাই আমাদের উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে কাজ করেছে এবং সবার সহযোগিতায় স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে।’

নির্বাচন নিয়ে পশ্চিমা কয়েকটি দেশের নেতিবাচক মন্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন দেশের নানা পারসেপশন, ন্যারেটিভ থাকে। কিন্তু দিন শেষে সবাই একসঙ্গে কাজ করবো, এটাই হচ্ছে মূল বিষয়। সবাই আমাদের উন্নয়ন সহযোগী। সবাইকে সঙ্গে নিয়েই আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। তবে সবার সঙ্গে বন্ধুত্বের পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের কনসার্নগুলোকে আমরা মূল্য দেবো। আমরা কোনও চাপ অনুভব করছি না।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা পূর্ব-পশ্চিম সবার সহযোগিতায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। গত ৫২ বছরে আমাদের যে অর্জন তাতে উন্নয়ন সহযোগীদের সহযোগিতা ছিল।’

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০০৯ সালে ছয় মাসের জন্য পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে কাজ করেছেন ড. হাছান মাহমুদ।

/এসএসজেড/ইউএস/এমওএফ/
সম্পর্কিত
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
পাঁচ দিন পর খুললো অফিস-আদালত
চীন আশা করে বাংলাদেশে দ্রুত স্থিতিশীলতা ফিরে আসবে
সর্বশেষ খবর
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
জুমার নামাজ ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
জুমার নামাজ ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
সর্বাধিক পঠিত
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা