X
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
বিএডিসিতে অনিয়ম পর্ব-৯

চাষি নির্বাচনেও দুর্নীতি!

শাহেদ শফিক
১৩ জুলাই ২০২১, ১১:০০আপডেট : ১৩ জুলাই ২০২১, ১৫:০৩

নানা অনিয়মে চলছে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন। এ নিয়ে বাংলা ট্রিবিউন-এর ধারাবাহিক প্রতিবেদনের নবম পর্ব থাকছে আজ।

চাষি নির্বাচনেও দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি)। কোনও দরপত্র ছাড়াই চাষিদের সঙ্গে চুক্তি করে নগদে ধান বীজ ক্রয় করা হয়েছে। সরকারি বিধিবিধান না মেনে বিশেষ একটি গোষ্ঠীকে সুবিধা দিতেই এ অনিয়মের আশ্রয় নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অনিয়মের চিত্র উঠে এসেছে সরকারি এক নিরীক্ষা প্রতিবেদনে। জড়িতদের দায় নির্ধারণ করে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে তাতে।

সরকারে একটি সংস্থা ২০১৯ সালের ২৫ ডিসেম্বর থেকে ২০২০ সালের ২ জানুয়ারি পর্যন্ত বিএডিসির বিভিন্ন অর্থবছরের বার্ষিক খরচের বিবরণী, বিল-ভাউচার ও রেজিস্টার পর্যালোচনা করে এ অনিয়ম ধরতে পেরেছে।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে চাষি নির্বাচন না করে সরাসরি তাদের সঙ্গে চুক্তি করা হয়। এভাবে নগদে ধান বীজ ক্রয়ে প্রতিষ্ঠানটির ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১১ কোটি ১১ লাখ ৪৮ হাজার টাকা।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে প্রতিষ্ঠানটি ২ হাজার ৭৩৪ মেট্রেক টন ধান বীজ ক্রয় বাবদ ৫৮৮টি ভাউচারের মাধ্যমে ৩৮৮ জন চুক্তিবদ্ধ চাষির অনুকূলে এই বিপুল পরিমাণ টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। বীজ সরবরাহকারী চাষিদের উন্মুক্ত দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে নির্বাচন না করে পিপিআর ২০০৮-এর বিধি লঙ্ঘন করে সরাসরি স্থানীয়ভাবে বাছাই করা হয়েছে। এতে প্রকৃত চাষিরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

পিপিআর ২০০৮-এর বিধি ৬১ ও ৯০ মোতাবেক বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে সকল যোগ্য দরপত্রদাতার নিকট হতে দরপত্র আহ্বান করে পণ্য ও সংশ্লিষ্ট সেবা ক্রয় করতে হবে। এ ক্ষেত্রে উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতির প্রয়োগ করার কথা। কিন্তু বিএডিসি এভাবে চাষি নির্বাচন করেনি।

বিধি মোতাবেক প্রতিটি ক্রয়ের ক্ষেত্রে অনধিক ২৫ হাজার টাকা এবং বছরে অনধিক ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত সরাসরি নগদে ক্রয় করা যাবে। কিন্তু ওই বীজ কেনার ক্ষেত্রে তা মানা হয়নি। এভাবে নগদ ক্রয় করায় ওই পরিমাণ টাকা সরকারের অনিয়মিত ব্যয় হিসেবে ধরা হয়েছে।

বিএডিসি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান বলেছে, বীজ উৎপাদনের জন্য চুক্তিবদ্ধ চাষি নিয়োগের নিয়মনীতি যাচাই করে পরে বিস্তারিত জবাব দেওয়া হবে। কিন্তু এখনও সে জবাব দেওয়া হয়নি।

জানতে চাইলে বিএডিসি’র চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা অনিয়ম বা আপত্তিগুলোর জবাব চেয়েছি। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

/এফএ/আইএ/আপ-এনএইচ/
টাইমলাইন: বিএডিসিতে অনিয়ম
১৪ জুলাই ২০২১, ১২:৫৭
১৩ জুলাই ২০২১, ১১:০০
চাষি নির্বাচনেও দুর্নীতি!
১২ জুলাই ২০২১, ১৫:০০
সম্পর্কিত
সর্বশেষ খবর
‘নজরুল-সৃষ্টি ফিরে দেখা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
‘নজরুল-সৃষ্টি ফিরে দেখা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
মৌলভীবাজারে পৃথক স্থানে দুজন খুন
মৌলভীবাজারে পৃথক স্থানে দুজন খুন
ফিলিস্তিনের নিহত-নিপীড়িত সাংবাদিকদের প্রতি সংহতি প্রকাশ
ফিলিস্তিনের নিহত-নিপীড়িত সাংবাদিকদের প্রতি সংহতি প্রকাশ
অমর্ত্য-ঋদ্ধের বহিষ্কারাদেশ বাতিল না করলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি
অমর্ত্য-ঋদ্ধের বহিষ্কারাদেশ বাতিল না করলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি
সর্বাধিক পঠিত
শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণে জড়িত কর্মকর্তা
শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণে জড়িত কর্মকর্তা
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
রুশ হামলায় পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম থেকে পিছু হটলো ইউক্রেন
রুশ হামলায় পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম থেকে পিছু হটলো ইউক্রেন
ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ: স্লোভাকিয়া
ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ: স্লোভাকিয়া
শাহজালালে যাত্রীর সোনার বার হাতিয়ে নেন কাস্টম কর্মকর্তা
শাহজালালে যাত্রীর সোনার বার হাতিয়ে নেন কাস্টম কর্মকর্তা