X
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
১২ আশ্বিন ১৪২৯

বিদেশে যেতে প্রতারিত হয়ে নিজেই হয়ে ওঠে প্রতারক

রিয়াদ তালুকদার
২৩ জুলাই ২০২২, ১৫:৩২আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২২, ১৭:৩১

প্রায় সাত বছর আগে মধ্যপ্রাচ্যে যাওয়ার জন্য দালালকে টাকা দিয়ে প্রতারিত হয় মো. শাফায়াত হোসেন (২৭)। সেই ক্ষোভ থেকে পরবর্তী সময়ে বিদেশ গমনেচ্ছুদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল সে। গত পাঁচ বছর ধরে বিদেশ যাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় শতাধিক মানুষের কাছ থেকে অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এই যুবক। এত বড় কর্মযজ্ঞ চালাতে তার কোনও অফিস ছিল না। শুধু মুখের কথাতেই মানুষকে পটিয়ে অর্থ আত্মসাৎ করতো সে। গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাব কর্মকর্তাদের এসব তথ্য জানিয়েছে শাফায়াত।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) রাজধানীর সবুজবাগ থেকে শাফায়াতকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ২৩টি পাসপোর্ট, দুইটি মোবাইল ফোন ও সিম কার্ড।

র‌্যাব বলছে, শাফায়াতের জনশক্তি রফতানির কোনও লাইসেন্স ছিল না। বিভিন্ন এজেন্সির নাম ব্যবহার করে মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিতো। প্রতারণার টাকায় রাজধানীতে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতো। কেউ যেন তার প্রতারণা আঁচ না পারে সে জন্য দুই থেকে তিন মাস পরপর বাসা পরিবর্তন করতো। সবশেষ সবুজবাগে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতো সে।

অভিযান সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা জানান, সে দীর্ঘদিন ধরে জনশক্তি রফতানির নামে বিদেশ গমনেচ্ছুদের কাছ থেকে অর্ধ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে। ভুক্তভোগীরা টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য যোগাযোগের চেষ্টা করলে সে যোগাযোগ বন্ধ রাখতো। প্রথমে ভুক্তভোগীদের ইউরোপে উচ্চ বেতনে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে পাসপোর্ট এবং প্রাথমিক খরচ বাবদ এক লাখ টাকা নিতো। পরে আরও বিভিন্ন খরচ দেখিয়ে ধাপে ধাপে টাকা আদায় করতো।

র‌্যাব ৩-এর স্টাফ অফিসার (অপস ও ইন্ট শাখা) পুলিশ সুপার বীণা রানী দাস বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘রাজধানীর সবুজবাগ এলাকায় একটি প্রতারক চক্র মধ্যপ্রাচ্য হয়ে ইউরোপে পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশ গমনেচ্ছুদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিয়ে তাদের সর্বশান্ত করে আসছিল। এমন কিছু সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৩ গোয়েন্দা নজরদারি ও ছায়া তদন্ত শুরু করে। পরে জানা যায়, প্রতারক শাফায়াত কোনও জনশক্তি রফতানি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত নয়। যারা তার ফাঁদে পা দিতো, তাদের বিদেশ পাঠানোর কথা বলে দফায় দফায় টাকা নিতো। পাসপোর্ট নিয়ে ভুয়া ভিসা (যা কম্পিউটারের মাধ্যমে নিজেই বানাতো) দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতো। তার বিরুদ্ধে পল্টন থানায় মামলা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, পাঁচ বছর ধরে এ ধরনের প্রতারণামূলক কাজ চালিয়ে আসছিল সে। নিজে বিদেশ যেতে না পারায় প্রতারিত হয়ে টাকা খোয়ানোর কারণে ক্ষোভ ও হতাশা থেকে বিদেশ গমনেচ্ছুদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল শাফায়েত।

/আরকে/ইউএস/
সম্পর্কিত
নির্বাচনের খরচ তোলার জন্য অভিনব প্রতারণা ইউপি চেয়ারম্যানের!
নির্বাচনের খরচ তোলার জন্য অভিনব প্রতারণা ইউপি চেয়ারম্যানের!
নোঙর করা জাহাজ নিজের বলে হাতিয়েছেন শত কোটি টাকা
নোঙর করা জাহাজ নিজের বলে হাতিয়েছেন শত কোটি টাকা
‘মানবাধিকার কর্মকর্তা’ পরিচয় দিয়ে ইউএনওর হাতে এক ব্যক্তি আটক
‘মানবাধিকার কর্মকর্তা’ পরিচয় দিয়ে ইউএনওর হাতে এক ব্যক্তি আটক
প্রতারকদের টার্গেট এবার ভিসা ও মাস্টার কার্ড
প্রতারকদের টার্গেট এবার ভিসা ও মাস্টার কার্ড
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
দুবাইয়ে সিরিজ জয় বাংলাদেশের
দুবাইয়ে সিরিজ জয় বাংলাদেশের
ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডে শেষ হলো রাশিয়ার বিতর্কিত গণভোট
ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডে শেষ হলো রাশিয়ার বিতর্কিত গণভোট
আ.লীগ নেতাকে ‘হত্যাকারী’ কিশোর আত্মহত্যা করেছে, দাবি পুলিশের
আ.লীগ নেতাকে ‘হত্যাকারী’ কিশোর আত্মহত্যা করেছে, দাবি পুলিশের
একসঙ্গে এত লাশ কখনও দেখেনি মাড়েয়া গ্রামের মানুষ
একসঙ্গে এত লাশ কখনও দেখেনি মাড়েয়া গ্রামের মানুষ
এ বিভাগের সর্বশেষ
নির্বাচনের খরচ তোলার জন্য অভিনব প্রতারণা ইউপি চেয়ারম্যানের!
নির্বাচনের খরচ তোলার জন্য অভিনব প্রতারণা ইউপি চেয়ারম্যানের!
প্রতারকদের টার্গেট এবার ভিসা ও মাস্টার কার্ড
প্রতারকদের টার্গেট এবার ভিসা ও মাস্টার কার্ড
কমমূল্যে গাড়ি বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে কোটি কোটি টাকার প্রতারণা
কমমূল্যে গাড়ি বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে কোটি কোটি টাকার প্রতারণা
পার্সেল প্রতারণার আন্তর্জাতিক ফাঁদ!
পার্সেল প্রতারণার আন্তর্জাতিক ফাঁদ!
হিজড়া সেজে পরিবহনে চাঁদা তুলতো তারা
হিজড়া সেজে পরিবহনে চাঁদা তুলতো তারা