X
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বইমেলায় অপর্যাপ্ত ওয়াশরুমের কারণে ভোগান্তি

আবিদ হাসান
১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:৫২আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:৫২

অমর একুশে বইমেলা মানেই দর্শক, পাঠক, লেখক ও প্রকাশকদের মিলনমেলা। মেলায় সবাইকে অনেকটা সময় ধরে মেলায় অবস্থান করতে হয় বলে অস্থায়ী ও স্থায়ী ওয়াশরুমের ব্যবস্থা করেছে আয়োজক কমিটি বাংলা একাডেমি। তবে এসব ওয়াশরুমের পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্টি জানালেও অপর্যাপ্ত বলছেন দর্শনার্থী ও প্রকাশকরা।

মেলার ওয়াশরুম আরও বাড়ানোর দাবি জানিয়ে তারা অভিযোগ করে বলেন, মেলার সার্বিক পরিস্থিতিতে তেমন কোনও সমস্যা নেই। তবে ওয়াশরুমের সংখ্যা আরও বাড়ালে ভালো হতো। লোকজনের ভিড় বাড়লে আধা ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেও ওয়াশরুমের সিরিয়াল পাওয়া যায় না।

অন্যদিকে মেলায় প্রকাশকদের একটি অংশ মেলার সার্বিক ব্যবস্থপনা ও পরিবেশ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তারা অভিযোগ করে বলেন, মেলা অব্যবস্থাপনায় হচ্ছে বারবার। বইমেলার আয়োজন বাংলা একাডেমির নিয়মিত কাজ না হওয়ায় তারা তেমন গুরুত্ব দিচ্ছে না। ফলে বারবার অগোছালো ও এলোমেলো মেলা হচ্ছে। তারা মেলাকে প্রকাশকদের হাতে ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানান।

তারা বলছেন, মেলায় লোকজন বেশি হলেই ধুলায় থাকা যায় না। যেখানে মেলা হবে নির্মল ও সুন্দর পরিবেশে। মেলার মাঠ ইট দিয়ে ঢেকে দিলে ধুলাবালু থেকে বাঁচা যেতো বলে জানান তারা।

তবে প্রকাশকদের একটি অংশ বলছেন ভিন্ন কথা। তারা মনে করেন, মেলার সার্বিক পরিস্থিতি ভালোই আছে। ময়লা-আর্বজনা নেই, সুন্দর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ধুলার বিষয়ে তারা বলেন, মেলায় ধুলাবালুর জন্য প্রতিদিন পানি দেওয়া হচ্ছে। তবে লোকজন বেশি হলে ধুলো উড়তে থাকে। বেশি ইট দিলে মেলা তার প্রাকৃতিক পরিবেশ হারাবে বলে মনে করেন তারা।

অন্য প্রকাশের প্রকাশক মাজহারুল ইসলাম বলেন, মেলা অব্যবস্থাপনায় হচ্ছে বারবার। বইমেলার আয়োজন বাংলা একাডেমির নিয়মিত কাজ না হওয়ায় তারা তেমন গুরুত্ব দিচ্ছে না। ফলে বারবার অগোছালো ও এলোমেলো মেলা হচ্ছে। আমি মনে করি তাদের এই মেলা আয়োজন ছেড়ে দিয়ে তাদের নিয়মিতগুলো করা উচিত।

কলকাতা ও ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলার উদাহারন টেনে তিনি বলেন, আমি তো এসব মেলায়ও গিয়েছি৷ অনেক সুন্দর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। অনেক নির্মল ও সুন্দর পরিবেশে হচ্ছে। বইমেলা আয়োজন বাংলা একাডেমির নিয়মিত কাজ না হওয়ায়, তারা দুই-তিন মাস আগে কাজ শুরু করে। একেকবার একেক রকম এক্সপেরিমেন্ট চালায়। ফলে মেলায় সব সময়ই অসঙ্গতি দেখা যায়। বইমেলায় সরকারি কর্তৃপক্ষ পক্ষ থেকে আয়োজনের জন্য ভর্তুকি থাকা দরকারও বলে মনে করেন তিনি।

লিটল ম্যাগাজিন নোঙরের সম্পাদক সুমন সাজ। তিনি মেলার ব্যবস্থাপনা নিয়ে অভিযোগ করে বলেন, বাংলা একাডেমি অভিভাবকসুলভ আচরণ করছে না আমাদের সঙ্গে। আমাদের এক কোনায় রেখে অবহেলা করা হয়েছে। চত্বরের ৩৪টা স্টল একটি গাছের আড়ালে পড়ে গেছে। পুরো জায়গাটা অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে থাকে। আমরা ইতোমধ্যে অভিযোগ দিয়েছি, বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ পরিদর্শন ও করে গেছে। কিন্তু এখনও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

আগামী প্রকাশনীর বিক্রয়কর্মী সজিব হোসেন বলেন, মেলার সার্বিক পরিবেশ সুন্দর, ভালোই লাগছে। তবে ওয়াশরুমগুলো আরও বাড়ালে ভালো হতো। অনেক্ষণ ধরে সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।

মেলায় অতিরিক্ত ধুলোর জন্য প্রতিদিনই পানি দেওয়া হচ্ছে

মেলার আয়োজন তিনি বলেন, এ বিষয়ে মনে তেমন কোনও অভিযোগ আছে বলে মনে হয় না। আর ধুলোর জন্য প্রতিদিনই পানি দেওয়া হচ্ছে। লোকজন বেশি হলে ধুলো উড়বেই। এ ক্ষেত্রে ইট দিলে মেলার প্রাকৃতিক পরিবেশ হারাবে।

পুথিনিলয় প্রকাশনীর ব্যবস্থাপক জিসান ফেরদৌসী বলেন, মেলার সার্বিক পরিস্থিতি অভিযোগ করার মতো কিছু নেই। তবে মেলার ওয়াশরুমের সংখ্যা বাড়ালে আরও ভালো হতো।

বাংলা একাডেমির মেলা আয়োজনের বিষয়ে তিনি বলেন, আমার মনে হয় না তেমন কোনও সমস্যা হচ্ছে। বাংলা একাডেমি যেহেতু আয়োজন করছে, তাদের সঙ্গে অবশ্যই প্রকাশকদের সম্পর্ক রয়েছে। আমার মনে হয় না আলাদা করে আয়োজন করার দরকার আছে।

নতুন বই
বইমেলার ১৫তম দিনে নতুন বই এসেছে ৯৭টি। এর মধ্যে গল্প ১১, উপন্যাস ৮, প্রবন্ধ ১২, কবিতা ২৪, গবেষণা ২, চড়া ১, শিশুসাহিত্য ১, মুক্তিযুদ্ধ ১, নাটক ১, ভ্রমণ ৫, ইতিহাস ৪, বঙ্গবন্ধু ৩, ধর্মীয় ৪, অনুবাদ ৪, অভিধান ১, সায়েন্স ফিকশন ২ ও অন্যান্য ১৬টি।

মূল মঞ্চের আয়োজন
বিকাল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় স্মরণ: আবদুল হালিম বয়াতি শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জোবায়ের আবদুল্লাহ। আলোচনায় অংশ নেন মো. নিশানে হালিম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাইদুর রহমান বয়াতি।

প্রবন্ধিক জোবায়ের আবদুল্লাহ বলেন, বাংলাদেশের লোকসংগীতাঙ্গনে যেসব সাধক-ব্যক্তিত্ব নতুন ধারা প্রবর্তনে প্রবর্তকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন, মরমি সংগীতসাধক আবদুল হালিম বয়াতি তাদের অগ্রগণ্য। সংগীতসৃষ্টি, সুরারোপ ও পরিবেশনার মাধ্যমে তিনি এ দেশের শহর ও গ্রামাঞ্চলে সমান জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় তার বিচরণ অতি সামান্য হলেও সংগীতসাধনায় তিনি ছিলেন নিরলস ও উদ্যোগী। প্রকৃতিদত্ত প্রতিভা ও বৈচিত্র্যময় গ্রন্থপাঠের মাধ্যমে অর্জিত জ্ঞানালোকে তিনি নিজেকে যেমন সমৃদ্ধ করেছেন, তেমনি অর্জিত অভিজ্ঞতা ও অভিজ্ঞানকে গীত-গানের মাধ্যমে শৈল্পিক সাবলীলতায় উপস্থাপন করে অর্জন করেছেন জননন্দিত শিল্পীর স্বীকৃতি।

সভাপতির বক্তব্যে সাইদুর রহমান বয়াতি বলেন, আবদুল হালিম বয়াতির মতো প্রতিভাবান সাধক কবি এ দেশে বিরল। বাংলার লোকসংগীতের ইতিহাসে তার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। তার সৃষ্টি ও সংগীতের মধ্য দিয়ে আবদুল হালিম ভক্তশ্রোতাদের অন্তরে চিরকাল বেঁচে থাকবেন।

লেখক বলছি
আজ লেখক বলছি অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন বই নিয়ে আলোচনা করেন কথাসাহিত্যিক মাসুদুল হক, কবি ও সম্পাদক এজাজ ইউসুফী এবং গবেষক কাজী সামিও শীশ এবং শিশুসাহিত্যিক রুনা তাসমিনা।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠ করেন কবি গোলাম কিবরিয়া পিনু, মিহির মুসাকী, শফিক সেলিম, খোকন মাহমুদ এবং ইমরুল ইউসুফ। আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী এ বি এম রাশেদুল হাসান, শিরিন জাহান ও তালুকদার মো. যোবায়ের আহম্মেদ টিপু।

দলীয় আবৃত্তি পরিবেশন করেন সুবর্ণা আফরিনের পরিচালনায় 'কিংবদন্তি আবৃত্তি পরিষদ' এবং মো, রহমতুল্লাহর পরিচালনায় 'কথাশৈলী আবৃত্তি চক্র'। পুথিপাঠ করেন এথেন্স শাওন। এ ছাড়া ছিল প্রণয় সাহার পরিচালনায় সাংস্কৃতিক সংগঠন 'কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসর'-এর পরিবেশনা। সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী বাবু সরকার, কোহিনুর আক্তার গোলাপী, মেহেরুন আশরাফ, অঞ্জলি চৌধুরী, গঞ্জের আলী জীবন, সুমন চন্দ্র দাস এবং বিজন কান্তি রায়।

শুক্রবারের সময়সূচি
শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বইমেলা শুরু হবে সকাল ১১টায় এবং চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত। সকাল ১১টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত মেলায় থাকবে শিশুপ্রহর। শিশু-কিশোর আবৃত্তি প্রতিযোগিতা আগামীকাল সকাল ১০টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অমর একুশে শিশু-কিশোর আবৃত্তি প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

বিকাল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে স্মরণ: ব্রিগেডিয়ার (অব.) আব্দুল মালিক শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন হারিসুল হক। আলোচনায় অংশ নেবেন ফজিলাতুন নেছা মালিক এবং এস এম মোস্তফা জামান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ।

/এনএআর/
সম্পর্কিত
স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে কাজ করে চলেছে রকমারি ডট কম
বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত হোসেনউদ্দীন হোসেন আর নেই
দাম কমেছে সবজি-মাংসের, তবু পরিস্থিতি অস্বাভাবিক
সর্বশেষ খবর
দুই কোরবানির হাটে ক্যাশলেস লেনদেন
দুই কোরবানির হাটে ক্যাশলেস লেনদেন
কানের অফিসিয়াল লালগালিচায় ঢাকার একমাত্র মুখ
কান উৎসব ২০২৪কানের অফিসিয়াল লালগালিচায় ঢাকার একমাত্র মুখ
ফেসবুকে ‘পাত্রী চাই’ বিজ্ঞাপন দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১
ফেসবুকে ‘পাত্রী চাই’ বিজ্ঞাপন দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১
১৪ দলের শরিকদের অবমূল্যায়নের অভিযোগ, সান্ত্বনা জোটনেত্রীর
১৪ দলের শরিকদের অবমূল্যায়নের অভিযোগ, সান্ত্বনা জোটনেত্রীর
সর্বাধিক পঠিত
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
কবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
এমপি আনার হত্যাকবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
নেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
এমপি আজীম হত্যাকাণ্ডনেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
সেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
৩০ শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতারসেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম