X
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

মহাসমাবেশ থেকে আসছে বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর ধারাবাহিক কর্মসূচি

সালমান তারেক শাকিল
২৫ জুলাই ২০২৩, ১৯:০০আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২৩, ১৯:২৪

সরকার পতনের একদফা দাবিতে আগামী বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) ঢাকায় অনুষ্ঠেয় মহাসমাবেশ থেকে ধারাবাহিকভাবে যুগপৎ কর্মসূচি দেবে বিএনপি ও বিরোধী দলগুলো। এসব কর্মসূচির মধ্যে ছুটির দিনগুলোতে সভা-সমাবেশ ও অফিস চলাকালীন দিনগুলোয় অবস্থান কর্মসূচি দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছেন নেতারা। এক্ষেত্রে মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে সংঘাত বা সহিংসতার ঘটনা ঘটলে কর্মসূচির ধরন পাল্টে যাবে। তবে ‘লাগাতার কর্মসূচি বা অঘোষিতভাবে বসে পড়ার’ কোনও সম্ভাবনা নেই বলে জানান বিএনপি ও মঞ্চের সিনিয়র নেতারা।

বিএনপি ও দলটির সঙ্গে যুগপতে যুক্ত বিরোধী দলগুলোর নেতারা বলছেন, সরকারকে বাধ্য করতে ও রাজনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে ধারাবাহিক কর্মসূচি দেওয়া হবে। এসব কর্মসূচির মধ্যে মহাসমাবেশের পরের দুদিন সভা-সমাবেশ, রবিবার (৩০ জুলাই) থেকে অবস্থান কর্মসূচি আসতে পারে। অবস্থান কর্মসূচির ক্ষেত্রে চারদিক থেকে সচিবালয় ঘেরাও, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ঘেরাও, নির্বাচন কমিশন ঘেরাওসহ নানা সরকারি প্রতিষ্ঠান ঘেরাওয়ের কর্মসূচি থাকতে পারে। যেগুলোকে ‘শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি’ হিসেবে ঘোষণা করা হতে পারে।

গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাদের কেউ কেউ মনে করেন, ধারাবাহিক কর্মসূচি দেওয়ার পাশাপাশি সরকারকে পদত্যাগে আল্টিমেটাম বেঁধে দিতে পারে বিএনপি ও বিরোধী দলগুলো।

বিএনপির উচ্চ পর্যায়ের সূত্রগুলো জানায়, অবস্থান কর্মসূচির ক্ষেত্রে রাজধানীর সব গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান নেবে বিএনপি ও বিরোধী দলগুলো। এসব কর্মসূচি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সিনিয়র থেকে তৃণমূল—সব পর্যায়ের নেতাদেরই আটক বা গ্রেফতারের আশঙ্কা রয়েছে।

বিএনপির ক্ষেত্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত কোনও নেতা গ্রেফতার হলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে দায়িত্ব বণ্টনের সব কার্যক্রম গুছিয়ে আনা হয়েছে। এছাড়া, অন্যান্য বিরোধী দলের নেতারাও গ্রেফতারের শঙ্কা করছেন বলে জানিয়েছেন প্রভাবশালী কোনও কোনও নেতা।

বিএনপি ও গণতন্ত্র মঞ্চের প্রভাবশালী একাধিক নেতা মনে করছেন, সরকার যেকোনও মুহূর্তে কঠোর আচরণ শুরু করতে পারে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে এ ধরনের নির্দেশনা এরইমধ্যে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেন একাধিক নেতা।

তবে বৃহস্পতিবার মহাসমাবেশ করে রাজপথে ‘বসে পড়ার’ কোনও বাস্তবতা নেই বলে জানিয়েছেন মঞ্চের এক নেতা।

এ প্রসঙ্গে গণতন্ত্র মঞ্চের সমন্বয়ক সাইফুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আসন্ন মহাসমাবেশের পর ধারাবাহিকভাবে আন্দোলন থাকবে। সরকারের ওপর রাজনৈতিক চাপ বৃদ্ধি করবো। আমরা আন্দোলনকে শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ রাখতে চাই। কিন্তু বিষয়টি পুরোপুরি নির্ভর করছে সরকার ও সরকারি দলের ওপর। তারা সহিংসতার দিকে ঠেলে দিলে জনগণ সন্ত্রাস মোকাবিলা করবে, রাজপথে থাকবে।’

গণতন্ত্র মঞ্চের অন্যতম নেতা জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘মহাসমাবেশ থেকে একদফা দাবি আদায়ে জনগণকে সম্পৃক্ত করে সরকারকে বাধ্য করতে ধারাবাহিক কর্মসূচি আসবে। আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।’

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘মহাসমাবেশ থেকে কর্মসূচি আসবে। এরইমধ্যে এক কর্মসূচি শেষে আরেক কর্মসূচিতে গেছি আমরা। এবারও সেরকম হবে।’

বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) মহাসমাবেশের পরই ‘অবস্থান নেওয়া বা বসে পড়ার’ কোনও সম্ভাবনা আছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে আমির খসরু বলেন, ‘আমাদের বসে পড়ার কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এগুলো গুজব। আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বিশ্বাসী।’

বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, বৃহস্পতিবারের মহাসমাবেশের জন্য ডিএমপিকে বিএনপির পক্ষ থেকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। নয়াপল্টন বা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের যেকোনও এক জায়গায় সমাবেশ হবে। এছাড়া ববি হাজ্জাজের এনডিএম বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে, ১২ দলীয় জোট বিজয়নগরে পানির ট্যাংকের সামনে, পান্থপথে এলডিপি, মতিঝিলে গণফোরাম-পিপলস পার্টি, পুরানা পল্টন এলাকায় লেবার পার্টি মহাসমাবেশ ডেকেছে। গণতন্ত্র মঞ্চ, জাতীয়তাবাদী সমমনা জোটসহ অন্যরা স্থান নির্ধারণ করে জানাবে।

/এপিএইচ/এমওএফ/
সম্পর্কিত
দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে সচিবালয় অভিমুখে বিক্ষোভ করবে গণতন্ত্র মঞ্চ
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগবারবার সংঘর্ষ, লাগাম টানবে কে?
দুই দিনের কর্মসূচি দিলো গণতন্ত্র মঞ্চ
সর্বশেষ খবর
রাষ্ট্রপতির কাছে যে পরিকল্পনা তুলে ধরতে চায় দুদক
রাষ্ট্রপতির কাছে যে পরিকল্পনা তুলে ধরতে চায় দুদক
গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে নিজের শরীরে আগুন দিলেন এক মার্কিনী
গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে নিজের শরীরে আগুন দিলেন এক মার্কিনী
১৫ মামলা মাথায় নিয়ে নির্বাচনের মাঠে কায়সার, কখনও আসামি হননি সূচনা
কুমিল্লা সিটির উপনির্বাচন১৫ মামলা মাথায় নিয়ে নির্বাচনের মাঠে কায়সার, কখনও আসামি হননি সূচনা
শ্রমিকনেতা শহিদুল হত্যায় পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্রে কী আছে?
শ্রমিকনেতা শহিদুল হত্যায় পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্রে কী আছে?
সর্বাধিক পঠিত
১০ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত
১০ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত
অভিযান চালিয়ে হাসপাতাল বন্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘না’
অভিযান চালিয়ে হাসপাতাল বন্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘না’
আইন অনুযায়ী ট্রান্সকমের মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চায় পুলিশ
সম্পত্তি নিয়ে বিরোধআইন অনুযায়ী ট্রান্সকমের মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চায় পুলিশ
এজলাসে বসে বাংলাদেশের বিচারকাজ পর্যবেক্ষণ করলেন ভারতের প্রধান বিচারপতি
এজলাসে বসে বাংলাদেশের বিচারকাজ পর্যবেক্ষণ করলেন ভারতের প্রধান বিচারপতি
গণিত পরীক্ষায় নিজ স্কুলের শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করায় শিক্ষক গ্রেফতার
গণিত পরীক্ষায় নিজ স্কুলের শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করায় শিক্ষক গ্রেফতার