X
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
১১ আষাঢ় ১৪৩১

মেনোত্তির মৃত্যুতে পাশে না থাকার আফসোস ক্রুসিয়ানির

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৬ মে ২০২৪, ১৪:১২আপডেট : ০৬ মে ২০২৪, ১৭:৫২

প্রায় গভীর রাতে ঘুমান দিয়েগো আন্দ্রেস ক্রুসিয়ানি। বাংলাদেশে যখন রাত, আর্জেন্টিনাতে দিন। তাই ঢাকায় থেকে নিজ দেশের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য রাতকে বেশিরভাগ সময় বেছে নিতে হয় বাংলাদেশের সাবেক ও আবাহনী লিমিটেডের বর্তমান কোচ ক্রুসিয়ানিকে। গতকাল রাতে ভার্চুয়াল জগতে আসতেই বড় দুঃসংবাদে তাকে ধাক্কা খেতে হয়েছে। আর সেটা হচ্ছে আর্জেন্টিনার প্রথম বিশ্বকাপজয়ী কোচ সিজার লুইস মেনোত্তির মৃত্যুর খবর! 

আর্জেন্টাইন ঈশ্বর ডিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্যুর পর মেনোত্তির চলে যাওয়া মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে ৬১ বছর বয়সী ক্রুসিয়ানির। শুধু যে আর্জেন্টিনাকে প্রথম বিশ্বকাপ জেতানো কোচ বলে নয়, মেনোত্তির সঙ্গে নিবিড় সম্পর্কও ছিল তার। বলতে গেলে মেনোত্তি ছিলেন তার কোচিং ক্যারিয়ারে গুরুর সমতূল্য। ১৯৯৯-২০০০ সালের দিকে বুয়েন্স এইরেসের অন্যতম নামী দল ইন্ডিপেন্ডেন্টের কোচ চিলেন মেনোত্তি। সেই কোচিং স্টাফদের মধ্যে ক্রুসিয়ানি ছিলেন অন্যতম। সহকারী হয়ে কাজ করেছেন। মেনোত্তির কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছেনও। ৮৫ বছর বয়সী গুরুর প্রয়াণে তাই ক্রুসিয়ানি গভীরভাবে শোকাহত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোকের কথাও লিখেছেন। রাতে এমন মৃত্যুর খবর দেখে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, ‘মেনোত্তি ছিলেন আমার গুরু। তার সঙ্গে দুই যুগ আগে টেকনিক্যাল স্টাফদের একজন হয়ে কাজ করেছি। সেই স্মৃতি বেশ মনে পড়ছে। তার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি।’

আরও পড়ুন: পরপারে আর্জেন্টিনাকে প্রথম বিশ্বকাপ জেতানো মেনোত্তি

ক্রুসিয়ানি এখন আবাহনী লিমিটেডের ডাগ আউট সামলাচ্ছেন। গুরুর মৃত্যুতে তার শেষকৃত্যে থাকতে পারছেন না। শেষ সময়ে সমবেদনা জানাতে না পেরে আক্ষেপ করছেন তিনি, ‘মেনোত্তির মৃত্যুতে আমি এই মুহূর্তে বেশি কিছু বলতে পারছি না। দয়া করে আমাকে কিছু জিজ্ঞেসও করবেন না। মেনোত্তির শেষকৃত্যে থাকতে পারবো না। শেষ দেখাটা দেখতে পারবো না, বিদায় জানাতে পারবো না; এটা ভেবে খারাপ লাগছে। এটা আমার জীবনে সবচেয়ে হৃদয়বিদারক বলতে পারেন।’

সিজার লুইস মেনোত্তি-ফাইল ছবি। মেনোত্তি ১১টি ক্লাবের দায়িত্ব সামলেছেন। তাছাড়া দুটি জাতীয় দলের ভার সামলেছেন যার স্থায়ীত্ব ছিল ৩৭ বছর। কিন্তু তিনি সবচেয়ে চির স্মরণীয় হয়ে থাকবেন ১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনাকে প্রথমবার বিশ্বকাপ জেতানোর জন্যে। অথচ তার আগের বছরই ডিয়েগো ম্যারাডোনার অভিষেক হয়েছিল। কিন্তু ওই বছর তাকে দলে নেননি মেনোত্তি।  

রোজারিও সেন্ট্রাল, বোকা জুনিয়র্স সান্তোসে খেলা মেনোত্তি তার কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করেন মেসির শৈশবের ক্লাব নিউওয়েলস ওল্ড বয়েজে। ১৯৭৩ সালে ঘরোয়া চ্যাম্পিয়নশিপ জেতেন হুরাকানের হয়ে। তার পরেই ১৯৭৪ সালে জাতীয় দলের দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন। ১৯৮২ সালে জাতীয় দলের দায়িত্ব ছাড়ার পর স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার কোচও হন। তার অধীনে পরের বছরই কোপা দেল রের শিরোপা জেতে বার্সা। 

এছাড়া কাতার বিশ্বকাপে মেসিদের শিরোপা জেতার পেছনেও ভূমিকা রেখেছেন তিনি। ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক পদে থেকে নেপথ্যে কাজ করেছেন। তাই মেসি সহ অন্যরাও কম শোকাহত কম নন।

/টিএ/এফআইআর/
সম্পর্কিত
আটলান্টার পিচ নিয়ে ক্ষুব্ধ স্কালোনি-মার্তিনেজ
রেকর্ড ভেঙে যা বললেন মেসি
মেসির ইতিহাস গড়ার দিনে জয়ে কোপা শুরু আর্জেন্টিনার
সর্বশেষ খবর
সোনার দাম আরও বাড়লো
সোনার দাম আরও বাড়লো
১০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ: সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা কারাগারে
১০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ: সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা কারাগারে
বাঙালির আবেগ নিয়ে আর কত খেলবেন সাকিব-শান্তরা?
বাঙালির আবেগ নিয়ে আর কত খেলবেন সাকিব-শান্তরা?
মৌলভীবাজারে বন্যা: চার দিনে পানিতে ডুবে ৭ জনের মৃত্যু
মৌলভীবাজারে বন্যা: চার দিনে পানিতে ডুবে ৭ জনের মৃত্যু
সর্বাধিক পঠিত
আছাদুজ্জামান মিয়ার তথ্য ফাঁস করায় পুলিশের এডিসি বরখাস্ত
আছাদুজ্জামান মিয়ার তথ্য ফাঁস করায় পুলিশের এডিসি বরখাস্ত
বানের পানির মতো আসছে রেমিট্যান্স, পাচারের অর্থও কি সঙ্গে আসছে?
বানের পানির মতো আসছে রেমিট্যান্স, পাচারের অর্থও কি সঙ্গে আসছে?
পরীমণিকাণ্ডে চাকরি হারাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন
পরীমণিকাণ্ডে চাকরি হারাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন
কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?
কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?
কঠিন সমীকরণ নিয়ে আফগানদের মুখোমুখি বাংলাদেশ
কঠিন সমীকরণ নিয়ে আফগানদের মুখোমুখি বাংলাদেশ