X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ইরানে গোপন অভিযানের কথা ফাঁস করলেন সাবেক মোসাদ প্রধান

আপডেট : ১১ জুন ২০২১, ২০:৫০

ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের বিদায়ী প্রধান ইয়োসি কোহেন ইরানে দেশটির নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের বেশ কিছু তথ্য তুলে ধরেছেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, কীভাবে ইরানের পারমাণবিক আর্কাইভ থেকে চুরি করা হয়েছে। তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, ইরানের নাতাঞ্জ পারমাণবিক কেন্দ্রে নাশকতা ও পারমাণবিক বিজ্ঞানী হত্যায় ইসরায়েলের সম্পৃক্ততা রয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

কোহেন গত সপ্তাহে মোসাদ প্রধানের দায়িত্ব থেকে অবসর নিয়েছেন। তিনি চ্যানেল ১২-এর সাংবাদিক ইলান দায়ানের সঙ্গে কথা বলেছেন। বৃহস্পতিবার সাক্ষাৎকারটি ইসরায়েলি টেলিভিশনে প্রকাশিত হয়েছে।

২০১৫ সালের শেষ দিকে কোহেনকে মোসাদ প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। লন্ডন ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়ন শষে ১৯৮২ সালে সংস্থাটিতে যোগ দেন তিনি। সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, কর্মজীবনে তার কয়েকশ’ পাসপোর্ট ছিল।

মোসাদের সদ্য বিদায়ী প্রধান কোহেন

সাক্ষাৎকারে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ইরানের পারমাণবিক আর্কাইভ থেকে চুরির বিস্তৃত বিবরণ। ২০১৮ সালে নেতানিয়াহু এক সংবাদ সম্মেলনে চুরি করা এসব নথি প্রকাশ করেন। ওই সময় তিনি অভিযোগ করেন, ইরান যে গোপনে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি করছে, এগুলো তারই প্রমাণ। ইরান এমন অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিল।

কোহেন জানান, এসব তথ্য চুরির পরিকল্পনা করতেই দুই বছর লেগেছে। মাঠে মোসাদের মোট ২০ জন এজেন্ট কাজ করেছেন। তারা কেউই ইসরায়েলের নাগরিক ছিলেন না।

তেল আবিবে কমান্ড সেন্টারে বসে চুরি করা প্রত্যক্ষ করে কোহেন। এজেন্টরা ওয়্যারহাউসের দরজা ভেঙে ঢুকে পড়ে, ৩০টির বেশি আলমারি থেকে তথ্য বের করে। কোহেন বলেন, এটি ছিল আমাদের জন্য অসাধারণ উত্তেজনাকর মুহূর্ত।

তিনি আরও জানান, অভিযানে অংশ নেওয়া সব এজেন্ট সুস্থ ছিল। যদিও কয়েকজনকে ইরান থেকে সরিয়ে আনতে হয়েছিল।

এই নথি চুরির কথা ইসরায়েল প্রকাশ্যেই স্বীকার করে আসছে। কিন্তু কোহেন ইঙ্গিত দিয়েছেন, এতদিন ধরে ইরানের পারমাণবিক কেন্দ্রে নাশকতায় ইসরায়েল জড়িত বলে যে গুজব রয়েছে তা আসলেই সত্যি। সাক্ষাৎকারের শুরুর দিকে তিনি ইরানের নাতাঞ্জ পারমাণবিক কেন্দ্র নিয়ে কথা বলেছেন।

কোহেন জানান, কেন্দ্রটি সম্পর্কে তিনি ভালো করেই জানেন। যেখানে সেন্ট্রিফিউজ রয়েছে সেখানে তিনি দায়ানকে নিয়ে যেতে পারবেন।

গত বছর নভেম্বরে তেহরানের বাইরে একটি সড়কে আততায়ীর হাতে নিহত ইরানের শীর্ষ পারমাণবিক বিজ্ঞানী মহসেন ফাখরিজাদেহকে নিয়েও কথা বলেন সাবেক মোসাদ প্রধান। হত্যাকাণ্ডে ইসরায়েলের জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার বা অস্বীকার কোনোটাই করেননি তিনি। বলেন, কয়েক বছর ধরে এই বিজ্ঞানী তাদের টার্গেট ছিলেন। তার বৈজ্ঞানিক জ্ঞানের কারণে মোসাদ উদ্বিগ্ন ছিল।

/এএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

‘আগাম সতর্কতায় অবজ্ঞার ফলেই ভারতে করোনার ভয়াবহতা’

‘আগাম সতর্কতায় অবজ্ঞার ফলেই ভারতে করোনার ভয়াবহতা’

আজারবাইজানের মুক্ত অঞ্চলে এরদোয়ান

আজারবাইজানের মুক্ত অঞ্চলে এরদোয়ান

স্কুল খুললে সরকারের খরচ, বার খুললে সরকারের লাভ: বিজেপি নেতা

স্কুল খুললে সরকারের খরচ, বার খুললে সরকারের লাভ: বিজেপি নেতা

অর্ধশত বছর ধরে জ্বলছে ‘নরকের দরজা’

অর্ধশত বছর ধরে জ্বলছে ‘নরকের দরজা’

নিজেদের তৈরি প্রথম টিকা অনুমোদন দিলো ইরান

নিজেদের তৈরি প্রথম টিকা অনুমোদন দিলো ইরান

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

এরদোয়ান-বাইডেন রুদ্ধদ্বার বৈঠক

এরদোয়ান-বাইডেন রুদ্ধদ্বার বৈঠক

সর্বশেষ

আবু ত্ব-হা’র সন্ধান বের করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব: খেলাফত মজলিস

আবু ত্ব-হা’র সন্ধান বের করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব: খেলাফত মজলিস

গৃহবধূকে অপহরণ করে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

গৃহবধূকে অপহরণ করে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক নিয়ে যা বললেন এরদোয়ান

বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক নিয়ে যা বললেন এরদোয়ান

নোবেলকে মহানায়ক বললেন আমান রেজা

নোবেলকে মহানায়ক বললেন আমান রেজা

ঢাকা মহানগর হেফাজতের সাবেক নেতা আজহারুল রিমান্ডে

ঢাকা মহানগর হেফাজতের সাবেক নেতা আজহারুল রিমান্ডে

গার্ড অব অনার: নারী ইউএনও’র বিকল্প প্রস্তাবের নিন্দা সিপিবির

গার্ড অব অনার: নারী ইউএনও’র বিকল্প প্রস্তাবের নিন্দা সিপিবির

সীমান্ত স্কয়ারে অগ্নিকাণ্ড

সীমান্ত স্কয়ারে অগ্নিকাণ্ড

ফ্লাইওভারে প্রাইভেটকার আটকিয়ে হেনস্তা, সেই পাঁচ তরুণ গ্রেফতার

ফ্লাইওভারে প্রাইভেটকার আটকিয়ে হেনস্তা, সেই পাঁচ তরুণ গ্রেফতার

বিমানবন্দরে ফাঁকি দিয়ে কোয়ারেন্টিনের ৬ যাত্রী বাড়িতে

বিমানবন্দরে ফাঁকি দিয়ে কোয়ারেন্টিনের ৬ যাত্রী বাড়িতে

যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

এক কোটি ৭৭ হাজার ডোজ ‘কোভিশিল্ড' দেওয়া শেষ

এক কোটি ৭৭ হাজার ডোজ ‘কোভিশিল্ড' দেওয়া শেষ

এক ঘণ্টায় আম ডেলিভারি সুবিধা দিচ্ছে চালডাল ডটকম

এক ঘণ্টায় আম ডেলিভারি সুবিধা দিচ্ছে চালডাল ডটকম

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘আগাম সতর্কতায় অবজ্ঞার ফলেই ভারতে করোনার ভয়াবহতা’

‘আগাম সতর্কতায় অবজ্ঞার ফলেই ভারতে করোনার ভয়াবহতা’

আজারবাইজানের মুক্ত অঞ্চলে এরদোয়ান

আজারবাইজানের মুক্ত অঞ্চলে এরদোয়ান

স্কুল খুললে সরকারের খরচ, বার খুললে সরকারের লাভ: বিজেপি নেতা

স্কুল খুললে সরকারের খরচ, বার খুললে সরকারের লাভ: বিজেপি নেতা

অর্ধশত বছর ধরে জ্বলছে ‘নরকের দরজা’

অর্ধশত বছর ধরে জ্বলছে ‘নরকের দরজা’

নিজেদের তৈরি প্রথম টিকা অনুমোদন দিলো ইরান

নিজেদের তৈরি প্রথম টিকা অনুমোদন দিলো ইরান

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

© 2021 Bangla Tribune