X
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু

দলের ধারাবাহিক বৈঠক ডেকেছে বিএনপি

আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৩৬

আগামী ১৪ থেকে ১৬ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের সঙ্গে পৃথক পৃথক ধারাবাহিক সভা ডেকেছে বিএনপি। রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দলের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স সাংবাদিকদের এ কথা জানান। তিনি জানান, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সভাগুলোতে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করবেন।

দলীয় সূত্র জানায়, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও জাতীয় স্থায়ী কমিটির নির্ধারিত সদস্যরাও সভাগুলোতে  উপস্থিত থাকবেন। ধারাবাহিক এ সভা প্রতিদিন বিকাল সাড়ে তিনটায় ঢাকার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য, ১৫ সেপ্টেম্বর বুধবার জাতীয় নির্বাহী কমিটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক, সম্পাদক, সহ-সম্পাদক এবং ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতাদের সভা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, করোনা পরিস্থিতিতে বন্ধ থাকা সাংগঠনিক কার্যক্রম পুনরায় শুরু করেছে বিএনপি। দলের পক্ষ থেকে দেশব্যাপী  নেতাকর্মীদের প্রতি সামাজিক দুরত্ব বজায় এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

 

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইউপি নির্বাচন

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৭

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী দমাতেই পারছে না ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। ‘বিদ্রোহী হলে আর কখনও নৌকা প্রতীক বা দলের পদ-পদবিতে রাখা হবে না’—কেন্দ্র থেকে এমন কঠোর বার্তা দেওয়ার পরও তৃণমূল নেতারা তা আমলে নিচ্ছেন না। নৌকার বিরোধী হিসেবে ভোটযুদ্ধে মাঠে থাকছেন তারা।

এ অবস্থায় দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন, তারা চান দল থেকে কেউ বিদ্রোহী না হোক। তবে তৃণমূল নেতাকর্মীদের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মানানো খুব কঠিন কাজ। আবার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিতদের লাইন দীর্ঘ হোক, সেটাও চায় না তারা।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দেশের ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরমধ্যে শতাধিক ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে ভোটযুদ্ধে লড়েছেন। এর আগে রবিবার আরও কয়েকটি জেলায় ২০৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দেখা গেছে, বহু ইউনিয়নে নৌকার বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেতারাই ভোট করেছেন।

শুধু তা-ই নয়, সোমবার কক্সবাজারের মহেশখালীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে সংঘাত-সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে নিজের দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে। মহেশখালীর একটি ইউনিয়নের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের একজন কর্মী মারা গেছেন। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন কয়েকজন।

আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানিয়েছে, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারটিও ভালোভাবে দেখছে না দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। ফলে নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ করতে ভিন্ন চিন্তা করতে পারে শীর্ষ নেতৃত্ব।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী সোমবার সন্ধ্যায় বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বিদ্রোহী দমনে আমাদের সিদ্ধান্তে কোনও পরিবর্তন আসেনি। আবার বিদ্রোহ দমনেও সফল হতে পারছি না- এটা ঠিক। আওয়ামী লীগ বিশ্বাস করে ধীরে ধীরে সুফল আসবে। সিস্টেম দাঁড় করাতে সব রাজনৈতিক দলকে কমিটমেন্টে আসতে হবে। আওয়ামী লীগে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকুক যেমন চায় না, তেমনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে জিতুক সেটাও চায় না। নির্বাচনে ভোটযুদ্ধ হোক সেটাই চাই।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা বিদ্রোহী প্রার্থী দমন করতে কঠোর অবস্থান জানান দিয়েছি। তবু দেখা যাচ্ছে বিদ্রোহী প্রার্থী থেকে যায়। তবে অনড় অবস্থানে থাকবে আওয়ামী লীগ। আস্তে আস্তে সুফলও আসবে।’

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ চায়। অন্য রাজনৈতিক দলের অসহযোগিতায় তা হয়ে ওঠে না। আবার প্রার্থী না থাকলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অনেক চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে যাচ্ছেন। সেটাও ভালো দেখাচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা এখন গভীরভাবে চিন্তা করছি এটা কীভাবে ঠেকানো যায়। বিদ্রোহী প্রার্থী দমনের চেয়ে নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ করার ব্যাপারে আমরা ভাবছি। কী কৌশলে তা বাস্তবায়ন করা যায় তা নিয়ে পর্যালোচনা চলছে।’

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল বলেন, ‘বিদ্রোহী দমনের ব্যাপারে নতুন কৌশল আসতেও পারে। আমাদের কঠোর অবস্থানে কোনও নড়চড় হবে না। তবে নিচের দিকের নেতাকর্মীকে মানানো খুব কষ্টের।’

 

/এনএইচ/আইএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে’

‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে’

বিএনপির আন্দোলনের বর্তমান প্রয়াসও নিষ্ফল হবে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির আন্দোলনের বর্তমান প্রয়াসও নিষ্ফল হবে: ওবায়দুল কাদের

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৩৩

বিএনপির ধারাবাহিক দ্বিতীয় দফা বৈঠক চলাকালে হঠাৎ মিছিল বের করেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। সংগঠনের প্রায় শতাধিক অনুসারী এ মিছিলে অংশ নেন। এ সময় তারা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে স্লোগান দেন।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকাল সোয়া চারটার দিকে গুলশানের ৮৪ নম্বর রোডে সংক্ষিপ্ত সময়  তারা এ মিছিল করেন।

মিছিলে ছাত্রদলের তিতুমীর কলেজ শাখার  সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক হিমেল, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সাবেক সহ-সম্পাদক মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন, বতর্মান কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শ্যামল মালুম, মহানগর পশ্চিমের সদস্য সচিব আশরাফুল হাসান মামুন,  প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জানান, বৈঠক চলাকালীন প্রায় সময়ই ছাত্রদল, যুবদল, বিএনপির কমীরা মিছিলে অংশগ্রহণ করেন।

তিনি বলেন, ‘এবার নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন কী রকম হতে পারে, তা ঠিক করতে বিএনপির ধারাবাহিক এই বৈঠক। আমরা আশা করি, দেশের মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য বিএনপির এবারের আন্দোলনে জনগণও স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ করবে।

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

গুলশানে বিএনপির দ্বিতীয় দফা রুদ্ধদ্বার মতবিনিময়

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:১৯

কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নেতাদের সঙ্গে ৩ দিনের বৈঠকের পর দ্বিতীয় দফায় বিভাগীয় পর্যায়ের সদস্য, জেলা সভাপতিদের সঙ্গে বিএনপির মতবিনিময় শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪টায় গুলশানের চেয়ারপারসনের অফিসে রুদ্ধদ্বার এ বৈঠক শুরু হয়।

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলের কৌশল ও নীতি চূড়ান্ত করতে ধারাবাহিকভাবে দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করছে বিএনপি।

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে ও বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থায়ী কমিটির কয়েকজন সদস্যের উপস্থিতিতে বৈঠক শুরু হয়েছে।

বৈঠকে অংশগ্রহণ করছেন ঢাকা ও ফরিদপুর বিভাগীয় পর্যায়ের নির্বাহী কমিটির সদস্যরা। উপস্থিত রয়েছেন ‑ ফকির মাহবুব আনাম স্বপন, লুৎফুল মতিন, খন্দকার আহসান হাবিব, সাইদ সোহরাব, খোন্দকার আবদুল হামিদ, বাবুল আহমেদ, রহিমা শিকদার, বজলুল বাসিত, রাজিয়া আলিম, মোহাম্মদ আলী, তমিজ উদ্দিনসহ অনেকে। আমন্ত্রিত ১২৬ জনের মধ্যে অধিকাংশ সদস্যই বৈঠকে উপস্থিত আছেন।

বৈঠকে অংশ নেওয়া স্থায়ী কমিটির সদস্যরা হলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়,  নজরুল ইসলাম খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

বৈঠক সঞ্চালনা করছেন কেন্দ্রীয় নেতা শহিদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি।

এদিকে, বৈঠককে কেন্দ্র করে গুলশান-২ এর কার্যালয়ে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের আনাগোনা রয়েছে। এছাড়া, বিএনপির শতাধিক অনুসারী রয়েছে কার্যালয়ের আশেপাশের সড়কে। তবে পরিস্থিতি শান্ত ও স্বাভাবিক।

এর আগে গত ১৪, ১৫ ও ১৬ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টা, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক ও সম্পাদকমণ্ডলী এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছে বিএনপি। ওইসব বৈঠকের পরই মির্জা ফখরুল জানিয়েছিলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির বাকি সদস্যদের সঙ্গেও আলোচনা করবেন তারা।

আরও পড়ুন: বিএনপির দ্বিতীয় দফায় বৈঠক শুরু হচ্ছে আজ

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

/এসটিএস/এমএস/

সম্পর্কিত

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: মান্না

এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: মান্না

সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ স্বাধীনতার দাবি বাম ঐক্যের

সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ স্বাধীনতার দাবি বাম ঐক্যের

এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: মান্না

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৩৫

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, স্থানীয় সরকারের সবচেয়ে নিম্ন স্তর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই জন নিহত, অর্ধশতাধিক গুলিবিদ্ধ এবং শতাধিক আহত হওয়ার ঘটনা আরও একবার প্রমাণ করলো—এই সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় কোনও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। বিরোধী দল নির্বাচনে না থাকার পরও সরকারি দল নিজেদের মধ্যেই সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাকিব আনোয়ার স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। 

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এই শীর্ষনেতা বলেন, ‘বর্তমান ক্ষমতাসীনরা বিগত ১৩ বছরে দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনের ভোট আগের রাতে ডাকাতি করে ক্ষমতায় গিয়ে তারা নির্বাচন ব্যবস্থার কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দিয়েছে। বিরোধী দল অনুপস্থিত থাকার পরও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনেও তাদের নিজেদের দলের ক্যাডাররা অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে। নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে মানুষ হত্যা করছে। এই সরকারের অধীনে কোনও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।’

নির্বাচন কমিশন সংস্কার প্রসঙ্গে মান্না বলেন, ‘এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের কোনও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান তার দায়িত্ব পালন করতে পারবে না। সুতরাং নির্বাচন কমিশন সংস্কার করলেও সুষ্ঠু নির্বাচনের সম্ভাবনা নেই।’

অন্তর্বর্তীকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানিয়ে ডাকসুর সাবেক এই ভিপি বলেন, ‘অবৈধ ক্ষমতাসীনদের বলছি, আপনারা এখনই পদত্যাগ করে একটি নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন। অন্যথায় দেশের জনগণ হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য জেগে উঠলে সেই স্রোতে ভেসে যাবেন।’

 

/এসটিএস/আইএ/

সম্পর্কিত

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

গুলশানে বিএনপির দ্বিতীয় দফা রুদ্ধদ্বার মতবিনিময়

গুলশানে বিএনপির দ্বিতীয় দফা রুদ্ধদ্বার মতবিনিময়

সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ স্বাধীনতার দাবি বাম ঐক্যের

সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ স্বাধীনতার দাবি বাম ঐক্যের

সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ স্বাধীনতার দাবি বাম ঐক্যের

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৩৫

গণতন্ত্র বিকাশে দেশের সকল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে সমাবেশ করেছে গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য।

আজ মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয় নাই। কারণ দেশের সংবিধানে প্রধানমন্ত্রীকে একক ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। এর ফলে স্বৈরতান্ত্রিক চরিত্র দেখা যায়। এই অবস্থা থেকে মুক্তির জন্য সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিতে হবে।

তারা বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশনকে স্বাধীনতা দিতে হবে। নির্বাচন কমিশনকে স্বাধীন করে দিতে হবে। বিচার বিভাগকে আইন মন্ত্রণালয়ে নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করে দিতে হবে। জেলা বিচারপতিদের নিয়ন্ত্রণ হাইকোর্টের অধীনে ন্যস্ত করতে হবে। সকল বিচারপতিদের নিয়োগ দেওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টের নিয়ন্ত্রণে একটি নিয়োগ কমিটি গড়ে তুলতে হবে। জেলা আদালত থেকে উচ্চ আদালত পর্যন্ত বিচারপতিদের নিয়োগের জন্য সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের সমন্বয়ে নিয়োগ কমিটি করে নিয়োগ দিতে হবে।

সমাবেশে তারা বলেন, দেশে গণতন্ত্র বিকাশের জন্য স্বাধীন গণমাধ্যম থাকতে হবে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার জন্য আন্দোলনরত সকল রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে সরকার গড়ে তুলে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে।

গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সমন্বয়ক ও বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এম-এল) সাধারণ সম্পাদক হারুন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক সামছুল আলম, সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এসডিপি’র আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, পিডিবি’র ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ খান, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলী হোসেন, সাবেক ছাত্রনেতা বিধান দাসসহ গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

/জেডএ/এমএস/

সম্পর্কিত

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

৪২ বছরেও গঠনতন্ত্র পূর্ণাঙ্গ করতে পারেনি ছাত্রদল

৪২ বছরেও গঠনতন্ত্র পূর্ণাঙ্গ করতে পারেনি ছাত্রদল

শিক্ষা আন্দোলন সফল করতে হবে ছাত্রদের: এম এম আকাশ

শিক্ষা আন্দোলন সফল করতে হবে ছাত্রদের: এম এম আকাশ

সব দলের মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের দাবি

সব দলের মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের দাবি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

ইউপি নির্বাচনআওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

গুলশানে ছাত্রদলের হঠাৎ মিছিল

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

এখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে চিন্তা করছি না: মির্জা ফখরুল

এখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে চিন্তা করছি না: মির্জা ফখরুল

সংসদে কাদের মির্জার বিচার চেয়েছে জাপা

সংসদে কাদের মির্জার বিচার চেয়েছে জাপা

ক্ষমতা হাতছাড়া হওয়ার ভয়েই গ্রেফতার অভিযান: রিজভী

ক্ষমতা হাতছাড়া হওয়ার ভয়েই গ্রেফতার অভিযান: রিজভী

সীমান্তে হত্যা বন্ধে ভারতকে বাধ্য করার আহ্বান বিএনপির

সীমান্তে হত্যা বন্ধে ভারতকে বাধ্য করার আহ্বান বিএনপির

জাসাসের কমিটি বিলুপ্ত করলো বিএনপি

জাসাসের কমিটি বিলুপ্ত করলো বিএনপি

সর্বশেষ

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল মা, বিছানায় শিশুর লাশ

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল মা, বিছানায় শিশুর লাশ

ভালো স্কোর করতে পারেননি রোমান সানা

ভালো স্কোর করতে পারেননি রোমান সানা

সৌদিতে বৈদ্যুতিক খুঁটি থেকে পড়ে বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু

সৌদিতে বৈদ্যুতিক খুঁটি থেকে পড়ে বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু

মোস্তাফিজদের অধিনায়কের জরিমানা  

মোস্তাফিজদের অধিনায়কের জরিমানা  

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

© 2021 Bangla Tribune