X
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

স্কুল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলক টিকা বৃহস্পতিবার

আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৩৩

দেশে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) স্কুল শিক্ষার্থীদের (১২ থেকে ১৭ বছরের বছর বয়সীদের) পরীক্ষামূলকভাবে টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) ফেসবুক লাইভে এসে তিনি একথা বলেন। তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে ৫০ থেকে ১০০ জন শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে।

অধ্যাপক খুরশিদ আলম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের নির্দেশনা দিয়েছিলেন শিশুদেরকে টিকা দিতে হবে। সে লক্ষ্যে কাজ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর আজকে জানাতে চাচ্ছে যে, আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় মানিকগঞ্জের কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজে আমরা এই টিকার একটি টেস্ট রান শুরু করবো।’
তবে এই টিকাগ্রহীতাদেরকেও পর্যবেক্ষণে রাখা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা এর আগেও দেখেছেন, আমরা যেকোনও টিকা দেওয়ার আগে একটি টেস্ট রান করি। এরপর কিছুদিন পর্যবেক্ষণ করি এবং তারপর ফাইনাল কাজে নামি।’
এবারের টেস্ট রানের জায়গাটি বেছে নিয়েছি মানিকগঞ্জকে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘এটা স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের নির্বাচনি এলাকা, সেখান থেকে এবারের এই কার্যক্রম শুরু করছি।’
মহাপরিচালক বলেন,‘প্রাথমিকভাবে দুটো সরকারি বিদ্যালয়ের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের বেছে নিয়েছি এবং তাদেরকে ফাইজার বায়োএনটেকের টিকা দেবো। আর টেকনিক্যাল কারণে মানিকগঞ্জের কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজে এটা শুরু করবো।’
তিনি বলেন, ‘টিকা দেবার পর শিশুদেরকে ১০ থেকে ১৪ দিন পর্যবেক্ষণ করবো— শিশুদের কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয় কিনা। তারপর ঢাকায় আমরা বড় আকারে এই টিকা কার্যক্রম শুরু করবো।’ সে ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, শিক্ষামন্ত্রী এবং শিক্ষাসচিবসহ অন্যান্য যারা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আছেন, তারাও সংযুক্ত হবেন বলে আমরা আশা করছি, বলেন তিনি।

 

 

/জেএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

ফের ৪ বিভাগে মৃত্যু নেই

ফের ৪ বিভাগে মৃত্যু নেই

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্র করছে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি’ 

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১২

সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, স্বাধীনতা বিরোধীরা হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগিয়ে দেশের সকল অর্জন ম্লান করে দেওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল ষড়যন্ত্রকারীদের কঠোরভাবে প্রতিহত করার আহ্বানও জানান মন্ত্রী।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) হোটেল সোনারগাঁওয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগ আয়োজিত স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরে '৫০ বছরের অর্জন ভবিষ্যৎ করণীয়' শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী জানান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্য, পানি, নিরাপত্তা, অবকাঠামো, যোগাযোগসহ সকল ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। মুসলিম-হিন্দু, বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সবাই মিলেমিশে কাজ করছে বলেই দেশ আজ বিশ্ব উন্নয়নের রোল মডেল। কিন্তু দেশের শত্রুরা এই ঐক্য এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার পাঁয়তারা করছে।

পাকিস্তানের মদদ পুষ্ট ও প্রেতাত্মারা আবার ক্ষমতায় যাওয়ার দুঃস্বপ্ন দেখছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দেশের জনগণ তাদেরকে উচ্ছিষ্ট হিসেবে প্রত্যাখ্যান করেছে। গুণ্ডা, সন্ত্রাস দিয়ে মাঠে নামার যখন কোনও অবস্থা নেই তখন তারা ধর্মকে ব্যবহার করে নতুন কৌশল অবলম্বন করছে। যে কৌশল পাকিস্তানিরা স্বাধীনতা যুদ্ধে ব্যবহার করেছিলো।

দেশের ৯৮ ভাগ এবং বস্তি এলাকা ৭০ ভাগ মানুষ সুপেয় পানির আওতায় এসেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন সেক্টরে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন হয়েছে। এসডিজি-২০৩০ এবং ২০৪১ সালের লক্ষ্যমাত্রা সামনে রেখে সরকার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৮

গত ২৪ ঘণ্টায় (১৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ১৬ অক্টোবর সকাল ৮টা পর্যন্ত) ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৮৩ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৪১ জন আর বাকি ৪২ জন দেশের অন্যান্য বিভাগে। তাদের নিয়ে চলতি মাসের প্রথম ১৫ দিনেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা তিন হাজার ছাড়িয়ে গেলো।

শনিবার ( ১৬ অক্টোবর) ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এ তথ্য জানায়।

কন্ট্রোল রুম জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ১৮৩  জনকে নিয়ে চলতি মাসের প্রথম ১৫ দিনে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগী হয়েছেন মোট তিন হাজার চারজন।

বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট রোগী ভর্তি আছেন ৮৬৯জন। তাদের মধ্যে ঢাকার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬৮৮ জন আর অন্যান্য বিভাগে ভর্তি আছেন ১৮১ জন।

চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মোট ২১ হাজার ২০১ জন। তাদের মধ্যে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২০ হাজার ২৪৯ জন আর চলতি বছরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৩ জন।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

ডেঙ্গু: ১ থেকে ২০ বছর বয়সী রোগী বেশি

ডেঙ্গু: ১ থেকে ২০ বছর বয়সী রোগী বেশি

৫৯ জেলায় শনাক্তের সংখ্যা কমে এক অঙ্কে

৫৯ জেলায় শনাক্তের সংখ্যা কমে এক অঙ্কে

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৫

ঢাকামুখী অভিবাসন রোধ করা না গেলে যত পরিকল্পনাই নেওয়া হোক তা কার্যকর হবে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। 

শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও ওয়াটার এইড বাংলাদেশের উদ্যোগে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত ‘পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরে ৫০ বছরের অর্জন ও ভবিষ্যৎ করণীয়’ শীর্ষক এক সেমিনারে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এই মন্তব্য করেন। 

মেয়র বলেন, ঢাকা ২ কোটি ১০ লাখ মানুষের শহর। ২০৩০ সালে কি এটা ৩ কোটি হবে, ২০৪১ সালে কি ৫ কোটি হবে? তাহলে কিন্তু সমস্যার সমাধান হবে না। আমাদেরকে আগে ২ কোটি ১০ লক্ষ মানুষের সকল নাগরিক সুবিধা, উন্নত ঢাকার সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। সেজন্য আমাদেরকে দেশের গ্রামগুলোতে চাকরি, কর্মসংস্থান ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। যখন ঢাকার দিকে এই গতি (গ্রাম হতে শহরে অভিবাসন) রোধ করতে পারবো, তখনই আমরা ২০৩০ সালে ঢাকার ২ কোটি ১০ লাখ মানুষের যথার্থ সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে পারবো। কিন্তু আমরা যদি ধরেই নিই যে, ঢাকার দিকে এই অভিবাসনের গতি চলতে থাকবে, তাহলে আমরা যতই পরিকল্পনা করি না কেন, ২০৩০ সালে গিয়ে দেখা যাবে আমাদের কোনও পরিকল্পনা কার্যকর হয়নি।

ঢাকা শহরের ৯৫ শতাংশ বাড়িতে সেপটিক ট্যাংক ও ৯৯.৯৯ শতাংশ বাড়িতে সোক ওয়েল নেই কিন্তু বাড়ির মালিকদের সেগুলো নিশ্চিত করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করতে বাধ্য করতে হবে জানিয়ে শেখ তাপস বলেন, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনে ইমারত নির্মাণ ও পুনর্নির্মাণের আবেদন ও অনুমতি সিটি করপোরেশনের কাছ থেকে নিতে হবে বলে উল্লেখ আছে। কিন্তু আজ অবধি সেটা রাজউক দিয়ে থাকে। আমরা একটি নীতিমালা প্রণয়ন করে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেছি। মন্ত্রণালয় সেটা পর্যালোচনা করছে। আমি আশাবাদী যে, ডিসেম্বরের মধ্যে সেটা পেয়ে যাবো। পেয়ে গেলে আগামী বছর থেকে সেটা বাস্তবায়ন করব।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। 

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

যাত্রাবাড়ীতে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫৪

গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে করোনাতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৯৩ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনাতে সরকারি হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০০ এর নিচে রোগী কমার সঙ্গে সঙ্গে দৈনিক শনাক্ত হার নেমে এসেছে দুই এর নিচে। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, এ সময়ে রোগী শনাক্তের হার এক দশমিক ৮৮ শতাংশ। অধিদফতর জানাচ্ছে, দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র দুই জেলায় রোগী শনাক্ত সংখ্যা দুই অঙ্কের ঘরে। বাকি ৬২ জেলায় শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা এক অঙ্কের ঘরে।

দুই জেলার মধ্যে  ঢাকা বিভাগের ঢাকা মহানগরসহ ঢাকা জেলায় ১৭৫ জন আর চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম জেলায় শনাক্ত হয়েছেন ২২ জন।

এছাড়া ঢাকা বিভাগের মানিকগঞ্জ জেলা, ময়মনসিংহ বিভাগের শেরপুর, চট্টগ্রাম বিভাগের বান্দরবান, খাগড়াছড়ি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর, নওগাঁ ও জয়পুরহাট, রংপুর বিভাগের নীলফামারী, লালমনিরহাট ও গাইবান্ধা, খুলনা বিভাগের বাগেরহাট, চুয়াডাঙ্গা, যশোর, মাগুরা, নড়াইল ও সাতক্ষীরা, বরিশাল বিভাগের বরিশাল, পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও ঝালকাঠি এবং সিলেট বিভাগের সিলেট, সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন শনাক্ত নেই।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

ডেঙ্গু: ১ থেকে ২০ বছর বয়সী রোগী বেশি

ডেঙ্গু: ১ থেকে ২০ বছর বয়সী রোগী বেশি

৫৯ জেলায় শনাক্তের সংখ্যা কমে এক অঙ্কে

৫৯ জেলায় শনাক্তের সংখ্যা কমে এক অঙ্কে

ফের ৪ বিভাগে মৃত্যু নেই

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩৮

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৩ জন আর ১ জন করে চট্টগ্রাম, খুলনা ও সিলেট বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। বাকি চার বিভাগ অর্থাৎ রাজশাহী, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার কারণে কারও মৃত্যু হয়নি। স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

আগের ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহের পাশাপাশি খুলনা বিভাগেও মারা যাননি কেউ। ১৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ১৬ অক্টোবর সকাল ৮টা পর্যন্ত হিসাবে মৃত্যুহীন বিভাগের তালিকা থেকে খুলনা বাদ পড়লো। 

চলতি বছরের মার্চ মাসের পর থেকে করোনায় দৈনিক মৃত্যু ক্রমে বাড়তে থাকে। করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের দাপটে জুলাই মাসে দৈনিক মৃত্যু দুইশ’র ঘর ছাড়িয়ে যায়। গত আগস্টের দুই দিন সর্বোচ্চ ২৬৪ জনের মৃত্যু হয়। তবে কিছুদিন ধরে সংক্রমণের হার কমে আসার সঙ্গে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও কমছে।

ডেল্টার তাণ্ডবের পর গত ২৩ সেপ্টেম্বর দেশে প্রথমবারের মতো তিন বিভাগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যু হয়নি। সেদিন ২৪ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছিল, দেশের আট বিভাগের মধ্যে রাজশাহী, বরিশাল ও ময়মনসিংহে গত ২৪ ঘণ্টায় কারও মৃত্যু হয়নি।

এরপর থেকে প্রায় প্রতিদিনই কোনও না কোনও বিভাগ করোনায় মৃত্যুহীন থাকছে। তিন বিভাগ থেকে মৃত্যুহীন বিভাগের তালিকা বেড়ে চার সংখ্যায় উন্নীত হয় গত ২৯ সেপ্টেম্বর। সেদিন ১৭ জনের মৃত্যুর কথা জানায় অধিদফতর। এর মধ্য দিয়ে প্রথমবার চার মাস পর মৃতের সংখ্যা নেমে আসে ২০-এর নিচে। একইসঙ্গে বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি। এভাবে এখন প্রতিদিনই এক বা একাধিক বিভাগে মৃত্যুহীন দিন দেখা যাচ্ছে।

দেশে সরকারি হিসাবে করোনায় মারা গেছেন ২৭ হাজার ৭৫২ জন।

/জেএ/জেএইচ/

সম্পর্কিত

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

ফের ৪ বিভাগে মৃত্যু নেই

ফের ৪ বিভাগে মৃত্যু নেই

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

আরও নাশকতার আশঙ্কায় সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

আরও নাশকতার আশঙ্কায় সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

সর্বশেষ

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

‘দেশে ধর্মীয় দাঙ্গা বাধানোর চক্রান্ত হচ্ছে’

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

লোকালয় থেকে অসুস্থ ঈগল উদ্ধার

লোকালয় থেকে অসুস্থ ঈগল উদ্ধার

© 2021 Bangla Tribune