X
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

বিচারের কাঠগড়ায় জার্মান ‘আইএস জিহাদি’

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০১৬, ২৩:৫৫

আদালতে হাজির করা হলে এভাবেই মুখ ঢাকেন নিলস

সুন্নিপন্থী সশস্ত্র সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) নির্যাতনের বিশেষ শাখায় অংশ নেওয়ায় বিচার হচ্ছে এক জার্মান নাগরিকের। ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে ডুয়েসলডর্ফে এ বিচার শুরু হয়েছে। বুধবার বৃটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক খবরে এ কথা জানা গেছে।

নিলস ডি (২৫) নামে ওই যুবককে এক বছর আগে সিরিয়া থেকে ফেরত আসার পর গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে আইএসের সদস্য হওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগে বলা হয়েছে, নিলস আইএসে যোগদানের পর সংগঠনটির নির্যাতনের বিশেষ শাখায় কাজ করেছেন।

জার্মানিতে ফেরার পর নিলস দাবি করেছেন, তিনি পুলিশকে আইএসের কার্যক্রমের বিষয়ে ৪০ বার সাক্ষাৎকার দিয়েছেন।

জার্মান আইন অনুসারে তার পুরো নাম প্রকাশ করা হয়নি। সিরিয়াতে নিলস ১৩ মাস অবস্থান করেন। এর মধ্যে আটমাস তিনি আইএস গেস্টাপো শাখায় কাজ করেন। ২০১৩ সালে সিরিয়ায় পাড়ি জমানো বেশ কয়েকজন তরুণের মধ্যে তিনি ছিলেন একজন। তারা নিজেদের লহবার্গার ব্রিগেড হিসেবে পরিচয় দিতেন।

গত বছর দুটি বিচারে নিলস প্রমাণ দিয়েছেন। আদালতের সেলে তিনি নির্যাতন ও শিরশ্ছেদের প্রত্যক্ষদর্শী বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, যারা আইএস ছেড়ে দিতে চায় তাদের অনিবার্য পরিণাম মৃত্যু।

দোষী প্রমাণিত হলে নিলসের ১০ বছর জেল হতে পারে। তবে আইএসের নির্যাতনের বিশেষ শাখায় থাকার কথা অস্বীকার করেছেন তিনি।

আইএসে যোগ দিতে  প্রায় ৮০০ জার্মানি সিরিয়া ও ইরাকে গমন করেছেন। দেশটির গোয়েন্দাদের ধারণা, জার্মানিতে অন্তত ১১০০ জন জিহাদি অবস্থান করছেন।

/এএ/

সম্পর্কিত

ইউরোপে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার নিয়ে ডব্লিউএইচও’র সতর্কতা

ইউরোপে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার নিয়ে ডব্লিউএইচও’র সতর্কতা

প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে করের আওতায় আনতে চায় জি-৭

প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে করের আওতায় আনতে চায় জি-৭

ইউরোপে মার্কিন গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে ক্ষুব্ধ জার্মানি-ফ্রান্স

ইউরোপে মার্কিন গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে ক্ষুব্ধ জার্মানি-ফ্রান্স

নামিবিয়া গণহত্যার দায় স্বীকার জার্মানির

নামিবিয়া গণহত্যার দায় স্বীকার জার্মানির

ফিলিস্তিনের সমর্থনে দেশে দেশে ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ

ফিলিস্তিনের সমর্থনে দেশে দেশে ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ

ফ্যাশনের কোনও বয়স আছে নাকি!

ফ্যাশনের কোনও বয়স আছে নাকি!

জার্মানিতে কেয়ার ক্লিনিকে হামলায় নিহত ৪

জার্মানিতে কেয়ার ক্লিনিকে হামলায় নিহত ৪

ভুল ঢাকতে ভ্যাকসিনের বদলে স্যালাইন দিলেন জার্মান নার্স

ভুল ঢাকতে ভ্যাকসিনের বদলে স্যালাইন দিলেন জার্মান নার্স

জার্মানিতে দুই সপ্তাহের কঠোর লকডাউন চান চিকিৎসকরা

জার্মানিতে দুই সপ্তাহের কঠোর লকডাউন চান চিকিৎসকরা

জার্মানিতে ইস্টারে লকডাউন জারির একদিন পর বাতিল

জার্মানিতে ইস্টারে লকডাউন জারির একদিন পর বাতিল

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকায় রক্ত জমাট বাঁধার কারণ জানার দাবি গবেষকদের

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকায় রক্ত জমাট বাঁধার কারণ জানার দাবি গবেষকদের

জার্মানি ও বেলজিয়ামে শত কোটি ডলার মূল্যের কোকেন উদ্ধার

জার্মানি ও বেলজিয়ামে শত কোটি ডলার মূল্যের কোকেন উদ্ধার

সর্বশেষ

ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে অটোরিকশার ২ যাত্রী নিহত

ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে অটোরিকশার ২ যাত্রী নিহত

বিশ্বের শীর্ষ ১০০ সৃজনশীল বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ইউল্যাব

বিশ্বের শীর্ষ ১০০ সৃজনশীল বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ইউল্যাব

পাহাড়ে দুর্বৃত্তের গুলিতে গ্রামপ্রধান নিহত

পাহাড়ে দুর্বৃত্তের গুলিতে গ্রামপ্রধান নিহত

ইসরায়েলে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু যুগের অবসান

ইসরায়েলে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু যুগের অবসান

মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সিলেটের পাহাড়ে ১০ হাজার মানুষের বসবাস

মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সিলেটের পাহাড়ে ১০ হাজার মানুষের বসবাস

বাবুল আক্তারের দুই সন্তানকে তদন্ত কর্মকর্তার কাছে হাজিরের নির্দেশ

বাবুল আক্তারের দুই সন্তানকে তদন্ত কর্মকর্তার কাছে হাজিরের নির্দেশ

রোহিঙ্গাদের প্রতি সমর্থন জানাচ্ছে মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থীরা

রোহিঙ্গাদের প্রতি সমর্থন জানাচ্ছে মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থীরা

আফগানিস্তান ত্যাগের পর তুরস্ককে হিসাব করবে যুক্তরাষ্ট্র: এরদোয়ান

আফগানিস্তান ত্যাগের পর তুরস্ককে হিসাব করবে যুক্তরাষ্ট্র: এরদোয়ান

পরীমণি জানালেন ধর্ষণচেষ্টায় অভিযুক্তর নাম

পরীমণি জানালেন ধর্ষণচেষ্টায় অভিযুক্তর নাম

দিনাজপুর সদর উপজেলা লকডাউন

দিনাজপুর সদর উপজেলা লকডাউন

৩০ জুন পর্যন্ত ভারতীয় সীমান্ত বন্ধ

৩০ জুন পর্যন্ত ভারতীয় সীমান্ত বন্ধ

স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনকে হত্যার কারণ অনুসন্ধানে পুলিশ

স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনকে হত্যার কারণ অনুসন্ধানে পুলিশ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইউরোপে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার নিয়ে ডব্লিউএইচও’র সতর্কতা

ইউরোপে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার নিয়ে ডব্লিউএইচও’র সতর্কতা

প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে করের আওতায় আনতে চায় জি-৭

প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে করের আওতায় আনতে চায় জি-৭

ইউরোপে মার্কিন গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে ক্ষুব্ধ জার্মানি-ফ্রান্স

ইউরোপে মার্কিন গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে ক্ষুব্ধ জার্মানি-ফ্রান্স

নামিবিয়া গণহত্যার দায় স্বীকার জার্মানির

নামিবিয়া গণহত্যার দায় স্বীকার জার্মানির

ফিলিস্তিনের সমর্থনে দেশে দেশে ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ

ফিলিস্তিনের সমর্থনে দেশে দেশে ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ

ফ্যাশনের কোনও বয়স আছে নাকি!

ফ্যাশনের কোনও বয়স আছে নাকি!

জার্মানিতে কেয়ার ক্লিনিকে হামলায় নিহত ৪

জার্মানিতে কেয়ার ক্লিনিকে হামলায় নিহত ৪

ভুল ঢাকতে ভ্যাকসিনের বদলে স্যালাইন দিলেন জার্মান নার্স

ভুল ঢাকতে ভ্যাকসিনের বদলে স্যালাইন দিলেন জার্মান নার্স

জার্মানিতে দুই সপ্তাহের কঠোর লকডাউন চান চিকিৎসকরা

জার্মানিতে দুই সপ্তাহের কঠোর লকডাউন চান চিকিৎসকরা

জার্মানিতে ইস্টারে লকডাউন জারির একদিন পর বাতিল

জার্মানিতে ইস্টারে লকডাউন জারির একদিন পর বাতিল

© 2021 Bangla Tribune