X
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
১১ আশ্বিন ১৪২৯

ছেলেদের কাছে মায়ের ভিডিও পাঠিয়ে টাকা আদায়, গ্রেফতার ২

সিলেট প্রতিনিধি
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০৩আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০৩

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের আগতালুক গ্রামে চার সন্তানের জননীকে যৌন হয়রানি করে এর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় করা মামলায় দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দুপুরের দিকে কানাইঘাট থানার একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাররা হলেন- আগতালুক গ্রামের বরকত উল্লার ছেলে বড় আব্দুল্লাহ (৩৫) ও একই গ্রামের রফিক আহমদের ছেলে সায়েদ উল্লাহ (৩০)।

এ মামলায় দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে জানিয়ে সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লুৎফর রহমান বলেন, ‘অপরাধী যে হোক না কেন, তাকে দ্রুত আইনের আওতায় আনতে জেলা পুলিশ কাজ করে যাবে।’ মামলার বাকি দুই আসামি আব্দুল্লাহ ও জব্বারকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

জানা গেছে, ওই নারীর স্বামী মারা গেছেন। তার চার সন্তানের মধ্যে দুইজন দুবাই প্রবাসী। দুই মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। বাড়িতে একা থাকতেন। এ সুযোগে ওই নারীর ওপর ভয়ংকর নির্যাতন চালায় প্রতিবেশী চার যুবক। রাতে দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে তাকে যৌন হয়রানি এবং এর ভিডিও ধারণ করে। সেই ভিডিও প্রবাসী ছেলেদের কাছে পাঠিয়ে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। মূলত ছেলেদের কাছ থেকে টাকা নিতেই তারা এটা করেছে। তবে এক লাখ টাকা দিলেও ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় অভিযুক্তরা। এ ঘটনায় সোমবার রাতে ওই নারী বাদী হয়ে কানাইঘাট থানায় চারজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, চার যুবক ওই নারীকে টানাহেঁচড়া করছে। এ সময় ওই নারী নিজেকে মুক্ত করতে বারবার হাতজোড় করে আকুতি করছেন। কান্নাকাটি করে অনুনয় করছেন। তবে তার অনুনয়ে হাসিঠাট্টা করে চার যুবক।

/এফআর/
সম্পর্কিত
শ্বশুরকে অপহরণের পর হত্যা, বনের ভেতরে লুকিয়ে রাখা হয় লাশ
শ্বশুরকে অপহরণের পর হত্যা, বনের ভেতরে লুকিয়ে রাখা হয় লাশ
ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছে গৃহশিক্ষক
আদালতে জবানবন্দিধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছে গৃহশিক্ষক
ডিজে দম্পতি ‘হত্যাকাণ্ডের’ ৪ বছর পর আসামিদের স্বীকারোক্তি
ডিজে দম্পতি ‘হত্যাকাণ্ডের’ ৪ বছর পর আসামিদের স্বীকারোক্তি
তালাবদ্ধ ঘরে অতিথির মরদেহ: দম্পতি গ্রেফতার
তালাবদ্ধ ঘরে অতিথির মরদেহ: দম্পতি গ্রেফতার
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
নৌকাডুবিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯
নৌকাডুবিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯
রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহায়তা করবে চীন
রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহায়তা করবে চীন
ইউএনও সমর কুমারের সঙ্গে কাজ করতে চান না ১৪ জনপ্রতিনিধি
ইউএনও সমর কুমারের সঙ্গে কাজ করতে চান না ১৪ জনপ্রতিনিধি
সীমান্ত বন্ধের বিষয়ে অবস্থান স্পষ্ট করলো রাশিয়া
সীমান্ত বন্ধের বিষয়ে অবস্থান স্পষ্ট করলো রাশিয়া
এ বিভাগের সর্বশেষ
শ্বশুরকে অপহরণের পর হত্যা, বনের ভেতরে লুকিয়ে রাখা হয় লাশ
শ্বশুরকে অপহরণের পর হত্যা, বনের ভেতরে লুকিয়ে রাখা হয় লাশ
ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছে গৃহশিক্ষক
আদালতে জবানবন্দিধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছে গৃহশিক্ষক
তালাবদ্ধ ঘরে অতিথির মরদেহ: দম্পতি গ্রেফতার
তালাবদ্ধ ঘরে অতিথির মরদেহ: দম্পতি গ্রেফতার
দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৯: জোয়ানা পরিবহনের চালক গ্রেফতার
দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৯: জোয়ানা পরিবহনের চালক গ্রেফতার
নোয়াখালীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, গৃহশিক্ষক রিমান্ডে
নোয়াখালীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, গৃহশিক্ষক রিমান্ডে