X
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২
১৭ আশ্বিন ১৪২৯

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একের পর এক হামলা-খুন কেন?

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:০২আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:৪২

কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরগুলোতে একের পর এক হামলা ও খুনের ঘটনা ঘটছে। অভিযোগ উঠেছে, অপরাধ নিয়ন্ত্রণে রাতে স্বেচ্ছায় রোহিঙ্গাদের পাহারা দেওয়ার যে পদ্ধতি চালু আছে, তা অকার্যকর করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে বিদ্রোহী রোহিঙ্গা গ্রুপগুলো। এর ফলে ক্যাম্পগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে বলে মনে করছে স্বেচ্ছাসেবী রোহিঙ্গারা। অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করা আগের চেয়ে কঠিন হয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

গত পাঁচ দিনে শিবিরগুলোতে স্বেচ্ছাসেবকসহ তিন জন নিহত হয়েছে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) ভোরে আরও এক রোহিঙ্গাকে হত্যা করে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। 

এ প্রসঙ্গে ১৪ এপিবিএন-এর সহকারী পুলিশ সুপার (অপারেশন) মো. ফারুক আহমেদ জানান, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবীদের পাহারার ফলে ক্যাম্পে আগের তুলনায় অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালানো কঠিন হয়ে পড়েছিল। ফলে এসব গ্রুপ এখন নিরাপত্তাকে চ্যালেঞ্জ করতে চাচ্ছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে অকার্যকর করার চেষ্টা করছে। শিবিরগুলোর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি প্রশ্নবিদ্ধ করতে এসব ক্যাম্পভিত্তিক সন্ত্রাসী দল নিরাপত্তাকর্মীদের টার্গেট হিসেবে বেছে নিয়েছে। এরা প্রতিনিয়ত অবস্থান ও কৌশল বদল করে কার্যক্রম চালায়। কিন্তু তাদের টার্গেট কোনোভাবে সফল হবে না। আমরা অভিযান অব্যাহত রেখেছি।’ রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে এপিবিএন

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত বছর অক্টোবর থেকে চালু হয় ক্যাম্পগুলোতে ব্লকভিত্তিক স্বেচ্ছা পাহারা পদ্ধতি। ক্যাম্পে নিয়োজিত উখিয়া-টেকনাফে ৮-এপিবিএন-এর আওতাধীন ক্যাম্পগুলোতে প্রতি রাতে প্রায় চার হাজার স্বেচ্ছাসেবী রোহিঙ্গা নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। এছাড়া ১৪-এপিবিএনের অধীনে তিন হাজার ৫১৬ জন এবং ১৬-এপিবিএনের অধীনে তিন হাজার সাতশ’ স্বেচ্ছাসেবক একই কাজ করছে।

এদিকে এই কার্যক্রম শুরু হওয়ায় স্বেচ্ছা পাহারার সঙ্গে জড়িত রোহিঙ্গা নেতা ও স্বেচ্ছাসেবীদের বেশ কয়েকজন এসব সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ও আহত হয়েছে। গত জুলাই থেকে প্রায় তিন মাসে রোহিঙ্গা শিবিরে তিন মাঝিসহ খুন হয়েছে অন্তত ১২ জন। এদের মধ্য পাঁচ জন ছিল স্বেচ্ছাসেবক।

সর্বশেষ আজ (২২ সেপ্টেম্বর) ভোরে উখিয়ার কুতুপালং শরণার্থী শিবিরে দুর্বৃত্তরা মো. এরশাদ নামে এক রোহিঙ্গাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে জানান ১৪-এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আনোয়ার। এ নিয়ে পর পর দুদিনে দুই রোহিঙ্গা খুন হলো। এর আগে গত মঙ্গলবার রাতে উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পে রাতের পাহারায় নিয়োজিত থাকা মো. জাফার (৩৫) নামে এক রোহিঙ্গা স্বেচ্ছাসেবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এছাড়াও ১৮ সেপ্টেম্বর টেকনাফ মৌচনী ক্যাম্পে ইলিয়াছ নামে এক রোহিঙ্গাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এসব ঘটনায় ক্যাম্পের বাসিন্দারা আতঙ্কে রয়েছে।

ক্যাম্পে স্বেচ্ছাসেবীদের হত্যার ঘটনায় জাফরের সঙ্গে থাকা আরও কয়েকজন আহত হন বলে জানান স্বেচ্ছাসেবক রোহিঙ্গা নেতা মো. হারুন। তিনি বলেন, ‘আমাদের ধারণা এই হামলার সঙ্গে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) সদস্যরা জড়িত। ক্যাম্পে এসব ঘটনার পর থেকে স্বেচ্ছাসেবকরা ভয়ে আছে।’

তিনি জানান, তার ক্যাম্পে প্রায় ৪০০ স্বেচ্ছাসেবক রয়েছে, যাদের তৎপরতায় ক্যাম্পভিত্তিক সন্ত্রাসীরা বাধার মুখে পড়ছে। ফলে সন্ত্রাসীরা স্বেচ্ছাসেবকদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। এর আগে গত জুন মাসে তার ক্যাম্পের একজন স্বেচ্ছাসেবক মাঝিকে (নেতা) গুলি চালিয়ে হত্যা করে বলে জানান তিনি।

রোহিঙ্গা নেতারা জানান, রোহিঙ্গাদের সশস্ত্র সন্ত্রাসী সংগঠন আরসা ক্যাম্পটিতে আস্তানা গড়তে চায়। সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বাধা পেয়ে গত বছর ক্যাম্পের এইচ-৫২ ব্লকের একটি মাদ্রাসায় রাতে হামলা চালিয়ে ছয় রোহিঙ্গাকে হত্যা করে।

আরও পড়ুন-

ক্যাম্পে আরেক রোহিঙ্গাকে কুপিয়ে হত্যা

‘টার্গেট কিলিংয়ের’ শিকার রোহিঙ্গা নেতারা

১৪ ধরনের অপরাধে জড়িত রোহিঙ্গারা, ১১৫টি হত্যাকাণ্ড

/এফএস/এমওএফ/
সম্পর্কিত
‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের’ মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলেন বাবা-ছেলে
‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের’ মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলেন বাবা-ছেলে
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন 
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন 
টেকনাফে দুই বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’
টেকনাফে দুই বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’
বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ঢোকার চেষ্টা নস্যাৎ করা হয়েছে : বিজিবি মহাপরিচালক
বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ঢোকার চেষ্টা নস্যাৎ করা হয়েছে : বিজিবি মহাপরিচালক
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
১৯৭৭ সালের ‘সেনা হত্যাকাণ্ডে’ স্বাধীন তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি
১৯৭৭ সালের ‘সেনা হত্যাকাণ্ডে’ স্বাধীন তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি
বিশ্ব শিশু দিবস ও জাতীয় কন্যাশিশু দিবসের কর্মসূচিতে যা থাকছে
বিশ্ব শিশু দিবস ও জাতীয় কন্যাশিশু দিবসের কর্মসূচিতে যা থাকছে
দেশের স্বাস্থ্যসেবা বিশ্বমানে উন্নীতের কাজ চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
দেশের স্বাস্থ্যসেবা বিশ্বমানে উন্নীতের কাজ চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
আসিফ-লগ্নজিতার প্রেমে পড়ার গল্প (ভিডিও)
আসিফ-লগ্নজিতার প্রেমে পড়ার গল্প (ভিডিও)
এ বিভাগের সর্বশেষ
‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের’ মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলেন বাবা-ছেলে
‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের’ মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলেন বাবা-ছেলে
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন 
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন 
টেকনাফে দুই বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’
টেকনাফে দুই বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছর, ক্যাম্পে বাড়ছে অপরাধ
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছর, ক্যাম্পে বাড়ছে অপরাধ
৪ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করে রোহিঙ্গা যুবকের ভিডিও বার্তা
৪ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করে রোহিঙ্গা যুবকের ভিডিও বার্তা