X
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২
১৯ আষাঢ় ১৪২৯
পীরগাছার আট ইউপির নির্বাচন

সমঝোতা করে প্রার্থী দিলো বিএনপি-জামায়াত

আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০২১, ২৩:০২

রংপুরের পীরগাছার আট ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে সাতটি রাজনৈতিক দলের প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। দলগুলো হলো আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জাসদ, ইসলামী আন্দোলন, জামায়াতে ইসলামী ও বাংলাদেশ কংগ্রেস। এ ছাড়া কয়েকজন স্বতন্ত্র প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। সবমিলে চেয়ারম্যান পদে ৪৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে ইউপি নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত আগেই জানিয়েছিল। তবে পীরগাছায় বিএনপি নেতাকর্মীরা স্থানীয় জামায়াতের সঙ্গে সমঝোতা করে প্রার্থী দিয়েছেন। আট ইউনিয়নের মধ্যে চারটিতে বিএনপি এবং দুটিতে জামায়াত প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। 

মাঠপর্যায়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা চালাচ্ছেন এসব প্রার্থী। তবে কাগজকলমে স্বতন্ত্র প্রার্থী তারা। আসন ভাগাভাগির পর সেখানে একে-অপরের বিরুদ্ধে প্রার্থী দেয়নি।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পারুল ইউনিয়নে তোফাজ্জল হোসেন, ইটাকুমারী ইউনিয়নে আবুল বাশার, অন্নদানগর ইউনিয়নে আমিনুল ইসলাম, ছাওলায় আব্দুল হাকিম, তাম্বুলপুরে শাহীন সরদার, পীরগাছায় জাহাঙ্গীর আলম জালাল, কৈকুড়ীতে শফিকুল ইসলাম লেবু ও কান্দি ইউনিয়নে আমিনুল ইসলাম রাজ্জাক নৌকার প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন।

দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে পারুল ইউনিয়নে আবুল কালাম আজাদ, অন্নদানগরে আনোয়ার হোসেন, ছাওলায় আব্দুস ছবুর আকন্দ, তাম্বুলপুরে নুরুজ্জামান সরকার, আবুল কালাম আজাদ, সোহরাব হোসেন মিঠু ও কান্দি ইউনিয়নে নজরুল ইসলাম খাঁন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বিএনপি প্রার্থীরা চার ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন। এর মধ্যে অন্নদানগর ইউনিয়নে ইউনিয়ন সভাপতি জিল্লুর রহমান, ছাওলা ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপির উপদেষ্টা নাজির হোসেন, পীরগাছা ইউনিয়নে ইউনিয়ন সভাপতি মো. মোস্তাফিজার রহমান রেজা ও কান্দি ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপির সদস্য আব্দুস ছালাম আজাদ জুয়েল নির্বাচন করছেন। 

তবে কান্দি ইউনিয়নের আব্দুস ছালাম আজাদ জুয়েল জানান, তিনি বিএনপির রাজনীতি করেন না। বিএনপি প্রার্থী হিসেবে নয়, স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচন করছেন।

বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে অন্নদানগর ইউনিয়নে সাবেক ইউনিয়ন সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, ছাওলা ইউনিয়নে যুব দলের সাবেক সভাপতি শাহ মো. নুরে আলম ছিদ্দিকী ও কৈকুড়ী ইউনিয়নে ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছাইদুল ইসলাম চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ ব্যাপারে বিএনপির তিন বিদ্রোহী প্রার্থী জানান, বিএনপি দলগতভাবে তাদের সমর্থন না দেওয়ায় স্বতন্ত্র হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সেই সঙ্গে বিএনপির বেশিরভাগ নেতাকর্মী তাদের সমর্থন দিয়েছেন।

একসময় পীরগাছা জাতীয় পার্টির দুর্গ হিসেবে পরিচিত থাকলেও আগামী ইউপি নির্বাচনে আট ইউনিয়নের মধ্যে চারটিতে প্রার্থী দিয়েছে জাতীয় পার্টি। জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে ইটাকুমারীতে ইউনিয়ন কমিটির সদস্য সাইফুল ইসলাম সোহেল, তাম্বুলপুর ইউনিয়নে উপজেলা কমিটির প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম লাভলু, পীরগাছা ইউনিয়নে উপজেলা কমিটির সদস্য রঞ্জু আলম ও কৈকুড়ী ইউনিয়নে ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি নুর আলম চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অপরদিকে, দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে জাতীয় পার্টির বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে কৈকুড়ী ইউনিয়নে বাবুল আক্তার চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী দুটি ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। এর মধ্যে তাম্বুলপুর ইউনিয়নে জামায়াতের উপজেলা আমির বজলুর রশিদ মুকুল ও কৈকুড়ী ইউনিয়নে উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিলন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা জামায়াতের আমির ও তাম্বুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী বজলুর রশিদ মুকুল বলেন, আমরা স্থানীয়ভাবে বিএনপির সঙ্গে সমন্বয় করে নির্বাচন করছি। বিএনপি যে চারটিতে প্রার্থী দিয়েছে সেখানে আমরা দিইনি। আমরা যে দুটি ইউনিয়নে প্রার্থী দিয়েছি সেখানে বিএনপি দেয়নি।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, পীরগাছায় বিএনপি-জামায়াত জোট শক্তিশালী। আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে আর নির্বাচন নিরপেক্ষ হলে ছয়টিতেই আমাদের প্রার্থীরা জয়ী হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লা আল মাহমুদ মিলন বলেন, বিএনপি-জামায়াত নির্বাচনি সভায় ২০ দলীয় জোট প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এটি নির্বাচনি আইনের পরিপন্থী। তারা যতই চালাকি করুক, জনগণ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে।

পারুল ইউনিয়নে জাসদের একমাত্র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ দলীয় প্রতীক মশাল না নিয়ে স্বতন্ত্র হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া ইসলামী আন্দোলন ছয় ইউনিয়নে প্রার্থী দিয়েছে। এর মধ্যে পীরগাছায় মাওলানা সাইফুল ইসলাম, অন্নদানগরে রিয়াজুল ইসলাম, তাম্বুলপুরে আব্দুস ছামাদ, কান্দিতে আমির উদ্দিন, কৈকুড়ীতে হাফেজ আসাদুজ্জামান রানু ও ইটাকুমারীতে জাহিদুল ইসলাম হাত পাখা প্রতীক নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

বাংলাদেশ কংগ্রেস চার ইউনিয়নে প্রার্থী দিয়েছে। পীরগাছায় শহিদুল ইসলাম, ইটাকুমারীতে আদম আলী, তাম্বুলপুরে শফিকুল ইসলাম ও কৈকুড়ী ইউনিয়নে হারুন পাশা ডাব মার্কা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

উপজেলার আট ইউনিয়নে ৪৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী ছাড়াও ৩৪৮ জন সাধারণ সদস্য ও ১২৭ জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পীরগাছা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শোয়ায়েব হোসেন বলেন, উপজেলার আট ইউনিয়নের ৮১টি ওয়ার্ডের ১১৭টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৩৯ হাজার ২৯৯ জন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ১৭ হাজার ৯৩৬ জন এবং নারী ভোটার এক লাখ ২১ হাজার ৩৬৩ জন।

/এএম/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে শুরু ওয়েস্ট ইন্ডিজের
আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে শুরু ওয়েস্ট ইন্ডিজের
যুদ্ধের প্রভাবে আবারও লোডশেডিংয়ের কবলে দেশ
যুদ্ধের প্রভাবে আবারও লোডশেডিংয়ের কবলে দেশ
বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কে?
বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কে?
মাদ্রাসাছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ
মাদ্রাসাছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ
এ বিভাগের সর্বশেষ
বিএসএফের ধাওয়ায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ, ৩৬ ঘণ্টা পর ভাই-বোনের লাশ উদ্ধার 
বিএসএফের ধাওয়ায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ, ৩৬ ঘণ্টা পর ভাই-বোনের লাশ উদ্ধার 
ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে বেচাকেনা নেই শপিং মলে 
ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে বেচাকেনা নেই শপিং মলে 
রংপুরের পশুর হাটে ভিড় জমিয়েছেন ঢাকার পাইকাররা
রংপুরের পশুর হাটে ভিড় জমিয়েছেন ঢাকার পাইকাররা
হিলি বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকবে ৮ দিন 
হিলি বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকবে ৮ দিন 
মুহূর্তেই বিলীন ৩৫ লাখ টাকার বিদ্যালয় ভবন
মুহূর্তেই বিলীন ৩৫ লাখ টাকার বিদ্যালয় ভবন