X
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
১১ আষাঢ় ১৪৩১

মোদিকে নিয়ে অবমাননাকর পোস্ট, ভারত-মালদ্বীপ উত্তেজনা বাড়ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৮ জানুয়ারি ২০২৪, ২০:০৮আপডেট : ০৮ জানুয়ারি ২০২৪, ২০:০৮

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আপত্তিকর পোস্ট নিয়ে ভারত ও মালদ্বীপের সম্পর্কে উত্তেজনা বাড়ছে। এই ঘটনার জেরে সোমবার ভারতের একটি বৃহত্তম পর্যটন কোম্পানি মালদ্বীপে তাদের ফ্লাইট বুকিং বাতিল করেছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

মালদ্বীপে সবচেয়ে বেশি পর্যটক আসে ভারত ও রাশিয়া থেকে। ভারত মহাসাগরীয় দ্বীপ দেশটি বিলাসবহুল রিসোর্টের জন্য বিখ্যাত। দেশটির অর্থনীতির প্রায় এক-তৃতীয়াংশ পর্যটনের ওপর নির্ভরশীল বলে বিশ্বব্যাংকের তথ্যে উঠে এসেছে।

ভারতীয় পর্যটন কোম্পানি ইজমাইট্রিপ-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক প্রশান্ত পিত্তি বলেছেন, অনির্দিষ্টকালের জন্য মালদ্বীপে বুকিং স্থগিত করা হয়েছে।

সাধারণভাবে দিল্লি ও মালের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। তবে নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট মোহামেদ মুইজ্জু ক্ষমতায় এসেছেন ‘ভারত হটাও’ প্রতিশ্রুতি দিয়ে।

সম্প্রতি এক্সে (সাবেক টুইটার) মোদিকে নিয়ে অবমাননাকর কয়েকটি পোস্ট করেন মালদ্বীপের তিনজন মন্ত্রী। যদিও তিন মন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছে মালদ্বীপ সরকার। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, সরকারি পদে থেকে যারা মোদির বিরুদ্ধে  পোস্ট দিয়েছেন, এখন তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে। তিন মন্ত্রী হলেন মরিয়াম শিউনা, মালশা শরিফ ও মাহজোম মাজিদ।

মোদিকে নিয়ে এই তিন সাবেক মন্ত্রী এমন সময় আপত্তিকর মন্তব্য করলেন যখন মুইজ্জু ক্ষমতায় আসার পর প্রথমবারের মতো চীন সফরে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ৮-১২ জানুয়ারি তার চীনে অবস্থান করার কথা। দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে বেইজিং ও নয়া দিল্লির প্রভাব রয়েছে।

পিত্তি রয়টার্সকে বলেছেন, আমরা এই পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নিয়েছি কারণ যেকোনও আত্মমর্যাদাশীল জাতির এমনটি করা উচিত। মালদ্বীপ সরকারের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে আমরা যে বিবৃতি শুনেছি তা দেশের জন্য অত্যন্ত অবমাননাকর।

তিনি বলেছেন, তার প্রতিষ্ঠানটি ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম অনলাইন ট্রাভেল বুকিং সংস্থা। এটি এই খাতের ২২ শতাংশ বুকিং নিয়ন্ত্রণ করে। 

সম্প্রতি মোদি ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল লাক্ষাদ্বীপ সফর করেন। সেখানে অবকাশযাপনের কিছু ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেন তিনি। সেখানে মোদিকে স্নোরকেলিং করতে দেখা যায়, যা ভাইরাল হয়। ভারতীয়দের মালদ্বীপের বদলে সেই দ্বীপে ভ্রমণেরও আহ্বান জানান। তারপরই মালদ্বীপের ওই তিন মন্ত্রী ও কয়েকজন নেতা মোদির বিরুদ্ধে ‘আপত্তিকর‘ মন্তব্য করেন।

ভারতের দাবি মালদ্বীপের মন্ত্রীরা কিছু ছবিতে মোদিকে ‘পুতুল’ বলে অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন। পরে বিতর্কের মুখে পোস্টগুলি মুছে দেওয়া হয়।

পিত্তির বলেছেন, তার কোম্পানি বিদেশি স্থানের বিপরীতে লাক্ষাদ্বীপ ভ্রমণের পক্ষে প্রচার চালাবে। 

বেশ কয়েকজন সেলিব্রেটিসহ অনেক ভারতীয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মালদ্বীপের বদলে দেশীয় পর্যটনস্থানের পক্ষে প্রচার শুরু করেছেন।

এছাড়া আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগে মালদ্বীপের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ভারত সরকার।

মালদ্বীপের বিদেশি মুদ্রা আয়ের বৃহত্তম মাধ্যম হলো পর্যটন। গত বছর রাশিয়া ও ভারত থেকে ২ লাখ ৯ হাজার পর্যটক দেশটি ভ্রমণ করেছেন। ২০২৪ সালে ২০ লাখ পর্যটক আশা করছে দ্বীপটি।

/এএ/
সম্পর্কিত
ভারত ইস্যুতে সক্রিয় বিএনপিসহ বিরোধী দল ও হেফাজত, কর্মসূচি আসছে
পশ্চিমবঙ্গে আরও এক জঙ্গি গ্রেফতার
রাশিয়া সফরে যাচ্ছেন মোদি
সর্বশেষ খবর
এমপি আনার হত্যা: গ্যাস বাবুকে ঝিনাইদহ কারাগারে স্থানান্তর
এমপি আনার হত্যা: গ্যাস বাবুকে ঝিনাইদহ কারাগারে স্থানান্তর
ভারত ইস্যুতে সক্রিয় বিএনপিসহ বিরোধী দল ও হেফাজত, কর্মসূচি আসছে
ভারত ইস্যুতে সক্রিয় বিএনপিসহ বিরোধী দল ও হেফাজত, কর্মসূচি আসছে
সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি নিয়ে সংসদে সরব আ.লীগের দুই এমপি
সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি নিয়ে সংসদে সরব আ.লীগের দুই এমপি
কেনিয়ায় বিক্ষোভ: বারাক ওবামার সৎ বোনের ওপর কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ
কেনিয়ায় বিক্ষোভ: বারাক ওবামার সৎ বোনের ওপর কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ
সর্বাধিক পঠিত
বানের পানির মতো আসছে রেমিট্যান্স, পাচারের অর্থও কি সঙ্গে আসছে?
বানের পানির মতো আসছে রেমিট্যান্স, পাচারের অর্থও কি সঙ্গে আসছে?
পরীমণিকাণ্ডে চাকরি হারাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন
পরীমণিকাণ্ডে চাকরি হারাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন
ইসরায়েলি অভিযান নিয়ে হিজবুল্লাহকে যে সতর্কবার্তা দিলো যুক্তরাষ্ট্র
ইসরায়েলি অভিযান নিয়ে হিজবুল্লাহকে যে সতর্কবার্তা দিলো যুক্তরাষ্ট্র
কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?
কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?
‘মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছি, তিনি মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন না’
‘মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছি, তিনি মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন না’