নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অনশনে বসছেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:০৪, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:১১, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করে অনশনে বসছেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী ও সিপিএম নেতা পিনারাই বিজয়ন। কেরালা সিপিএম সূত্র জানায়, আগামীকাল সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) তিরুবনন্তপুরমের পালায়মের শহিদ মিনারে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই ও বিরোধী দলনেতা রমেশ চেনিথালাসহ দলীয় নেতাকর্মীরা অনশনে বসবেন। তারা বলছেন, এ আইনের বিরোধিতা করতে গিয়ে কোনও ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড না করে বিজেপিকে আটকানোর একমাত্র পথই হলো অনশন।

বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান থেকে নিপীড়নের মুখে ভারতে পালিয়ে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টানদের নাগরিকত্ব নিশ্চিতে সম্প্রতি আইন সংশোধন করেছে ভারত। ১২ ডিসেম্বর রাতে প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের পরেই আইনে পরিণত হয়েছে বিতর্কিত বিলটি। এই বিতর্কিত আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দেশজুড়ে সরব একাধিক রাজনৈতিক দল। চলছে দফায় দফায় আন্দোলন। আইনি লড়াইয়ের পথে হাঁটছেন অনেকে। এ আইন প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনে অগ্নিগর্ভ উত্তর-পূর্ব ভারতও। এই পরিস্থিতিতে কেরলার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নসহ তার মন্ত্রিসভার অন্য মন্ত্রীরা এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা রমেশ চেনিথালাসহ বিরোধী নেতারা সোমবার অনশনে বসতে যাচ্ছেন।

পার্লামেন্টে ওই আইন পাস হওয়ার পরই মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন স্পষ্ট করে বলেছিলেন, ‘কেরালায় এই আইন কার্যকর করতে দেওয়া হবে না। এই আইন ভারতকে হিন্দুরাষ্ট্র তৈরির চেষ্টা মাত্র।’ তিনি আরও বলেন, নাগরিকত্ব আইন আদতে ভারতীয় সংবিধানের সাম্য, ধর্ম নিরপেক্ষতার বৈশিষ্ট্যকে গলা টিপে হত্যা করছে। কেরলা ঐক্যবদ্ধভাবে এই আইনের বিরোধিতা করবে।’

সোমবারের অনশন কর্মসূচিতে কেবল রাজনৈতিক নেতা-কর্মীরা নয়, হাজির থাকবেন সংস্কৃতি, সাহিত্যের মতো একাধিক জগতের বিশিষ্টজনেরা। তবে সিপিএমের এমন গান্ধীবাদী আন্দোলনে বিজেপি শিবির কিছুটা বিস্মিত। পিনারাইয়ের মোকাবিলায় বিজেপি নেতৃত্ব কোন পথে হাঁটে, সেটাই এখন দেখার।

সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির এক সদস্য জানিয়েছেন, পিনারাইয়ের এই অনশন কর্মসূচি কতটা কার্যকর হয় তা দেখেই বিভিন্ন রাজ্যে পার্টি প্রয়োজনে অনশনে নামবে। কেরলার এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বিজেপিবিরোধী শিবির।

এ বিষয়ে কেরলার বিরোধী দলনেতা রমেশ চেনিথালা জানান, এই আইনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবেন তিনি। একইসঙ্গে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধভাবে অনশনেও বসবেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের কথা হয়েছে। আমরা বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করবো। তারা আরএসএসের কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে চাইছে। কিছুতেই তাদের উদ্দেশ্য সফল হতে দেব না।’

/এইচকে/

লাইভ

টপ