কাশ্মির ইস্যুতে জাতিসংঘের মধ্যস্থতা চান ইমরান খান

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৩৪, জানুয়ারি ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৬, জানুয়ারি ২৩, ২০২০

ভারত অধিকৃত কাশ্মির ইস্যুতে জাতিসংঘের উদ্যোগ চেয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বুধবার সকালে সুইজারল্যান্ডের দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সম্মেলনের সাইডলাইনে এ বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তিনি কাশ্মির ইস্যুতে পারমাণবিক ক্ষমতাসম্পন্ন দুই দেশের মধ্যে মধ্যস্থতা করার জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানান।
ভারতের মুসলিমবিদ্বেষী নাগরিকত্ব আইন নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন ইমরান খান। তিনি বলেন, তার সবচেয়ে বড় ভয় হচ্ছে ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিদ্যমান বিক্ষোভ নিয়ে।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, এই বিক্ষোভের জবাবে মুসলমানদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করতে পারে দিল্লি। ইতোমধ্যেই ওই আইনের বিরুদ্ধে জমায়েত ও বিক্ষোভকেন্দ্রিক সহিংসতার জন্য মুসলমানদের দায়ী করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  ঝাড়খণ্ডে এক নির্বাচনি জনসভায় তিনি বলেছেন, ‘আগুন কারা লাগাচ্ছে, সেটা তাদের পোশাক (পাঞ্জাবি-টুপি) দেখলেই চেনা যায়।’ যদিও বাস্তব চিত্র ভিন্ন। পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে টুপি পরে ট্রেনে পাথর ছোড়ার অভিযোগে বিজেপি কর্মীসহ ছয়জনকে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। এমনকি দিল্লিতে বিক্ষোভকারীদের ফাঁসাতে খোদ পুলিশই বাসে আগুন দিয়েছে বলে তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

ভারতে বিক্ষোভ পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে গেলে সেখান থেকে দৃষ্টি ফেরাতে দিল্লি কী পদক্ষেপ নেয় তা নিয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করেন ইমরান খান। এমন পরিস্থিতিতে উত্তেজনা নিরসনে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিষয়টি নিয়ে উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের শান্তি প্রক্রিয়া নিয়েও কথা বলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ওয়াশিংটনকে সেখানে সমঝোতা ও শান্তি পরিকল্পনার পথে হাঁটা উচিত।

এদিন ইরান পরিস্থিতি নিয়েও কথা বলেন ইমরান খান। জানান, তিনি ট্রাম্পকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়লে তা দুনিয়াজুড়ে বিপর্যয় তৈরি করবে। তবে ট্রাম্প তার এ কথার কোনও জবাব দেননি। সূত্র : আল জাজিরা।

/এমপি/

লাইভ

টপ