মঙ্গলবার আক্রান্ত ১৯উহানে করোনার বিস্তার ‘দমনের’ ঘোষণা চীনের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:২৭, মার্চ ১১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৪, মার্চ ১১, ২০২০

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া উহান শহর সফর করেছেন। তার এই সফরের মধ্য দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর সৃষ্ট পরিস্থিতি এখন বেইজিংয়ের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। জিনপিংয়ের উহান সফর এমন সময় হলো, যখন দেশটি জানিয়েছে, ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার পর মঙ্গলবার সবচেয়ে কম মানুষ (১৯ জন) নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। বিদেশ ফেরত দুজন বাদে নতুন আক্রান্তদের সবাই উহানের নাগরিক। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

চীনের উহান থেকেই করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) ছড়িয়ে পড়ে। মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৭৫৪ জন ও মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ১৩৬।

ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার এটিই ছিল শহরটিতে চীনা প্রেসিডেন্টের প্রথম সফর। দেশটির সরকারি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, মঙ্গলবার মহামারি মোকাবিলা ও নিয়ন্ত্রণ করার কাজ পরিদর্শনে আসেন তিনি। হুবেই প্রদেশের উহান শহরটি লকডাউন করে রাখা হয়েছিল ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে। শি জিনপিং কোয়ারেন্টাইনে থাকা শহরটির একটি সম্প্রদায়ের এলাকা সফর করেন।

সফরে চীনা প্রেসিডেন্ট ঘোষণা দিয়েছেন, হুবেই প্রদেশ ও উহানে ভাইরাসটির ছড়িয়ে পড়া মূলগতভাবে দমন করা গেছে। হুবেই ও উহানে আক্রান্ত হওয়ার ঊর্ধ্বগতি থামিয়ে এবং পরিস্থিতি স্থিতিশীল করে প্রাথমিক সফলতা এসেছে।

চীনা রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে বিশ্লেষকদের উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, জিনপিংয়ের সফর পুরো দেশ ও বিশ্বের জন্য বার্তা যে চীন ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়ার কঠিন মুহূর্ত থেকে বের হয়ে আসছে।

ভাইরাস মোকাবিলায় দশ দিনের ভেতরে নির্মিত অস্থায়ী হউশেনশান হাসপাতালও পরিদর্শন করেন চীনা প্রেসিডেন্ট। সেখানে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে কর্মী ও রোগীদের সঙ্গে তিনি কথা বলেন। তার সফরের পর অস্থায়ীভাবে নির্মিত ১৪টি হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।  

বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, দ্রুত নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসায় ধীরে ধীরে চীনের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। কিঙ্গাই প্রদেশে ১৪৪টি সিনিয়র স্কুল ও সেকেন্ডারি ভোকেশনাল স্কুল সোমবার খুলে দেওয়া হয়েছে। চীনা সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়, উহানের তিয়ানহি বিমানবন্দর চালু করার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কোনও তারিখ জানানো হয়নি।

ডিজনিল্যান্ড সাংহাই জানিয়েছে, আংশিকভাবে পুনরায় চালু করা হয়েছে। যদিও মূল থিমপার্ক এখনও বন্ধ। তবে দোকান ও রেস্তোরাঁ পুনরায় চালু হয়েছে।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়েছে। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মৃতের সংখ্যা ইতালিতে। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩১ জনে। একদিনে দেশটিতে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে ১৬৮ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ১৪৯ জনে।

/এএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ