X
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
১৯ মাঘ ১৪২৯

কীটনাশকসহ সব বিষক্রিয়ার গবেষণা জরুরি: বিএসএমএমইউ উপাচার্য

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৯:৫২আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৯:৫২

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়- বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, আমাদের দেশে বিভিন্ন ধরনের বিষক্রিয়ায় মৃত্যুর হার অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক বেশি। শুধুমাত্র ধানে কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় নয়, খাদ্যে অনেক ধরনের বিষক্রিয়া ঘটে থাকে। তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষকে রক্ষার জন্য কীটনাশকের বিষক্রিয়াসহ অন্যান্য বিষের ওপর গবেষণা হওয়া জরুরি।’

রবিবার (২৭ নভেম্বর)  ‘পেস্টিসাইড পয়জনিং ম্যানেজমেন্ট পিটফলস্ অ্যান্ড আপডেট’ শীর্ষক একটি বৈজ্ঞানিক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি ব্লকে ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের শ্রেণিকক্ষে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, ‘খাদ্যে বিষক্রিয়া এবং আর্সেনিক দূষণ, পোল্ট্রি শিল্প বা গোবাদি পশুতে যেভাবে বিভিন্ন ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হচ্ছে, তাতেও দেশের মানুষের স্বাস্থ্যের ওপর অনেক প্রভাব পড়ছে।’

সেমিনারে বলা হয়,  বাংলাদেশে প্রতি মাসে প্রায় ৭ দশমিক ৫ শতাংশ রোগী বিভিন্ন ধরনের বিষক্রিয়া নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। যার মধ্যে প্রায় ৫৮ দশমিক ৮ শতাংশ রোগী কীটনাশকজনিত বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত এবং ৫ দশমিক ৪ শতাংশ রোগী মৃত্যুবরণ করেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এসব বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হন এবং প্রাণ হারায় দেশের যুবসমাজ। যার ফলশ্রুতিতে রোগীর পরিবার এবং গোটা দেশকে আর্থিক ক্ষতির সম্মখীন হতে হয়। এই সমস্যা মোকাবিলায় অযাচিত কীটনাশক ব্যবহার এবং বিক্রয় পর্যবেক্ষণ করার সঙ্গে সঙ্গে বিষাক্ত কীটনাশকের ওপর স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার ব্যাপারে এই অনুষ্ঠানে বক্তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

সায়েন্টিফিক সেমিনারটিতে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সোহেল মাহমুদ আরাফাত। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিভাগটির সহযোগী অধ্যাপক ডা. ফজলে রাব্বী চৌধুরী।

সেমিনারে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটি অব এডিনবার্গের সেন্টার ফর পেস্টিসাইড সুইসাইড প্রিভেনশন বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ডা. মাইকেল এডেলস্টন। তিনি বিভিন্ন ধরনের কীটনাশক বিষক্রিয়ার ব্যাপকতা এবং মানবদেহে পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে আলোচনা করেন। তার আলোচনায় প্রধানত উঠে আসে— বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সহজলভ্যতার কারণে সাধারণ মানুষের মধ্যে কীটনাশক ব্যবহার করে আত্মহত্যার প্রবণতার হার অনেক বেশি, যা অন্যান্য পদ্ধতির তুলনায় অনেক বেশি প্রাণঘাতী।

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। এছাড়া সেমিনারে বক্তব্য রাখেন— বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. সায়েদুর রহমান, ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. শাহা আলম । অনুষ্ঠানে মেডিসিন অনুষদ ভুক্ত বিভিন্ন বিভাগের বিভিন্ন স্তরের শিক্ষক ও রেসিডেন্টরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন  আহমেদ ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের আধুনিক শ্রেণিকক্ষ  উদ্বোধন করেন।

/এসও/এপিএইচ/
সর্বশেষ খবর
ফুলকপির মাঠে রঙিন হাসি
ফুলকপির মাঠে রঙিন হাসি
যে রেকর্ডে রোনালদোর চেয়েও এগিয়ে মেসি
যে রেকর্ডে রোনালদোর চেয়েও এগিয়ে মেসি
সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর
সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ
সর্বাধিক পঠিত
বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে ৬৩ কেন্দ্রে এগিয়ে হিরো আলম
বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে ৬৩ কেন্দ্রে এগিয়ে হিরো আলম
২৮ হাজার টাকা বেতনে চাকরি দিচ্ছে ইস্টার্ন ব্যাংক
২৮ হাজার টাকা বেতনে চাকরি দিচ্ছে ইস্টার্ন ব্যাংক
বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ১৩২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার প্রার্থী, হিরো আলম তৃতীয়
বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ১৩২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার প্রার্থী, হিরো আলম তৃতীয়
‘এবারের জয় ছিল স্মরণকালের, সরকারের প্রতি সমর্থন থাকবে’
‘এবারের জয় ছিল স্মরণকালের, সরকারের প্রতি সমর্থন থাকবে’
সংসদ থেকে পদত্যাগ করে আবারও এমপি হলেন সাত্তার ভূঁইয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উপনির্বাচনসংসদ থেকে পদত্যাগ করে আবারও এমপি হলেন সাত্তার ভূঁইয়া