X
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
২২ আষাঢ় ১৪২৯

ধর্ষণের বিচার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, আহত ৩০

আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ২২:৫৪

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর দফায় দফায় হামলার ঘটনা ঘটেছে।

হামলায় অন্তত ৩০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এ সময় তিন শিক্ষকও আহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে আহত শিক্ষার্থীদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের সহযোগী ও স্থানীয়রা এ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের।

বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৫টায় প্রথম দফায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ঘোনাপাড়া মোড়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়। এ সময় কয়েকজন আহত হন। এরপর দ্বিতীয় দফায় সন্ধ্যা ৬টার দিকে ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়।  

পুলিশ, শিক্ষার্থী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিকাল ৩টার দিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলতে ঘটনাস্থলে আসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা, পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতারের আশ্বাস দিলেও সড়ক থেকে সরেননি শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তারা।

আরও পড়ুন: শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, সহপাঠীদের আন্দোলনে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে যানজট

বিকাল ৫টার দিকে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা চলে গেলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন। তারা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সড়ক ছেড়ে চলে যেতে বলেন। একই সঙ্গে আন্দোলনে অংশ নেওয়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের আন্দোলন থেকে চলে যাওয়ার ঘোষণা দেন। এরপর তারা চলে যান। কিছুদূর যাওয়ার পরই আশপাশ থেকে ইট-পাটকেল, লাঠিসোঁটা নিয়ে একদল যুবক এসে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়।

আহত এক শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে নিয়ে যাচ্ছেন সহপাঠীরা

এতে কয়েকজন শিক্ষার্থী ও ঘটনাস্থলে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব, প্রক্টর ড. রাজিউর রহমান ও সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. হাসিবুর রহমান আহত হন। এরপর সন্ধ্যা ৬টার দিকে ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে আবারও শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায় ওসব যুবক ও স্থানীয় এলাকাবাসী। এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ লেগে যায়। এতে আরও ২৫-৩০ জন শিক্ষার্থী আহত হন।

বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব বলেন, ‘আমরা এই হামলায় মর্মাহত। হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি আমরা।’

আরও পড়ুন: গোপালগঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে উপাচার্য বলেন, ‘তোমরা কি চাও? হামলায় আমি এবং দুই জন শিক্ষক আহত হয়েছেন। ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে। আমরা সুস্থ হলে শুক্রবার সকাল ১০টায় তোমাদের সঙ্গে বসবো। এখন সবাই ফিরে যাও।’

একাধিক সূত্রে জানা গেছেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় স্থানীয় প্রভাবশালীরা জড়িত। তাদের অনুসারীদের নেতৃত্বে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। কেউ কেউ বিষয়টিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। হামলাকারীদের সঙ্গে কয়েকজন ছাত্রলীগের কর্মীকে দেখা গেছে।

গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সেতু বলেন, ‘আমাদের কাছে ১০ জন শিক্ষার্থী আহত অবস্থায় এসেছেন। এর মধ্যে চার জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেছি। যারা অল্প আঘাত পেয়েছেন তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন।’

আরও পড়ুন: গোপালগঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নাইম বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের কারণে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে যানজট লাগায় বাইপাস দিয়ে গাড়ি চলাচলের ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছি আমরা। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সড়ক ছাড়তে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার অনুরোধ করেছেন। কিন্তু তারা সড়ক না ছাড়ায় যানজট দীর্ঘ হয়েছে। দুই হাজার যানবাহন আটকা পড়েছে। আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি। যারা আহত হয়েছেন তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর রাজিউর রহমান বলেন, আমরা ওই ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলে রাতেই দুই জনকে আসামি করে গোপালগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেছি। এরই মধ্যে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: সহপাঠীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের স্লোগানে উত্তাল মহাসড়ক

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বলেন, ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই ছাত্রী আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

জানা গেছে, বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টা ২৫ মিনিটে গোপালগঞ্জ জেলা স্কুলের নির্মাণাধীন ভবনে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী তার বন্ধুর সঙ্গে গোপালগঞ্জ সদরের নবীনবাগ হেলিপ্যাডের সামনে থেকে হেঁটে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে তাদের অটোতে তুলে নেওয়া হয়। পরে ৭/৮ জন মিলে তাদের গোপালগঞ্জ জেলা স্কুলের নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে বন্ধুকে মারধর করে ওই শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়। 

/এএম/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বিনিয়োগের প্রলোভনে আনিসের কাছ থেকে কোটি টাকা নেন হেনোলাক্সের মালিক
বিনিয়োগের প্রলোভনে আনিসের কাছ থেকে কোটি টাকা নেন হেনোলাক্সের মালিক
ঘাটে যানজট নেই
ঘাটে যানজট নেই
গভীর রাতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষে আহত ৭
গভীর রাতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষে আহত ৭
পাঁচ বেসামরিককে হত্যা করেছে রুশ বাহিনী: ডোনেস্কের গভর্নর
পাঁচ বেসামরিককে হত্যা করেছে রুশ বাহিনী: ডোনেস্কের গভর্নর
এ বিভাগের সর্বশেষ
১৮ লাখ টাকায় নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় পাস, গ্রেফতার ৩
১৮ লাখ টাকায় নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় পাস, গ্রেফতার ৩
ইভ্যালির রাসেল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা
ইভ্যালির রাসেল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা
দুর্ঘটনার আগমুহূর্তে ট্রাকচালকের হাতে সিগারেট কানে মোবাইল
রংপুরে ট্রাকচাপায় নিহত ৫দুর্ঘটনার আগমুহূর্তে ট্রাকচালকের হাতে সিগারেট কানে মোবাইল
অস্ত্র-মাদকসহ সাবেক যুবলীগ নেতা গ্রেফতার
অস্ত্র-মাদকসহ সাবেক যুবলীগ নেতা গ্রেফতার
অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কায় নিহত বেড়ে ৫
অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কায় নিহত বেড়ে ৫